মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আন্দোলনের জেরে বড় ধাক্কার মুখে ভারতের পর্যটন খাত

রোকনুজ্জামান রিপন :=

নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে যে উত্তাল আন্দোলন শুরু হয়েছে, তার জেরে বড় ধাক্কার মুখে পড়েছে ভারতের পর্যটন খাত। দেশি এবং বিদেশি পর্যটকদের সফর বাতিল করার ধুম পড়েছে। এতে মাথায় হাত পড়েছে ট্রাভেল এজেন্টদের।

ভারতের ট্রাভেল এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জ্যোতি মায়াল রোববার সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘আমরা একের পর এক ফোন এবং ই-মেইল পাচ্ছি। দেশি ও বিদেশি পর্যটকরা তাদের বুকিং বাতিল করে দিচ্ছেন। বিদেশি পর্যটকদের মধ্যে এ হিড়িক সবচেয়ে বেশি।’

সরকারি তথ্যানুসারে, সারা বছর ভারতে যত বিদেশি পর্যটক আসেন, তার সিংহভাগই আসেন ডিসেম্বরে। তাদের অধিকাংশেরই গন্তব্য থাকে উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলো। এবার নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনে উত্তর-পূর্ব উত্তাল হয়েছে। এখনও কিছু রাজ্যে চালু হয়নি ইন্টারনেট পরিষেবা। সংবাদমাধ্যমে এ খবর দেখেই বুকিং বাতিল করার লাইন পড়ে গেছে।

ভারতীয় পর্যটকদের অনেকেই আবার দেশের মধ্যে বিভিন্ন জায়গার পরিকল্পনা ছেড়ে দুবাই, সিঙ্গাপুর যাওয়ার বুকিং করছেন। কিন্তু ক্রিসমাসের সময়ে সেখানে বুকিং পাওয়াও মুশকিল হয়ে উঠেছে। হোটেল ভাড়াও বছরের অন্য সময়ের তুলনায় অনেকটা বেশি। ফলে অনেকে ট্রিপ বাতিল করে দিচ্ছেন।সবমিলিয়ে পর্যটন ব্যবসায় কয়েক হাজার কোটি টাকার ক্ষতির মুখে উত্তর-পূর্বের পর্যটন শিল্প।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

আন্দোলনের জেরে বড় ধাক্কার মুখে ভারতের পর্যটন খাত

প্রকাশের সময় : ০৯:১৮:১২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ ডিসেম্বর ২০১৯
রোকনুজ্জামান রিপন :=

নাগরিকত্ব আইন ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে যে উত্তাল আন্দোলন শুরু হয়েছে, তার জেরে বড় ধাক্কার মুখে পড়েছে ভারতের পর্যটন খাত। দেশি এবং বিদেশি পর্যটকদের সফর বাতিল করার ধুম পড়েছে। এতে মাথায় হাত পড়েছে ট্রাভেল এজেন্টদের।

ভারতের ট্রাভেল এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জ্যোতি মায়াল রোববার সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘আমরা একের পর এক ফোন এবং ই-মেইল পাচ্ছি। দেশি ও বিদেশি পর্যটকরা তাদের বুকিং বাতিল করে দিচ্ছেন। বিদেশি পর্যটকদের মধ্যে এ হিড়িক সবচেয়ে বেশি।’

সরকারি তথ্যানুসারে, সারা বছর ভারতে যত বিদেশি পর্যটক আসেন, তার সিংহভাগই আসেন ডিসেম্বরে। তাদের অধিকাংশেরই গন্তব্য থাকে উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলো। এবার নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনে উত্তর-পূর্ব উত্তাল হয়েছে। এখনও কিছু রাজ্যে চালু হয়নি ইন্টারনেট পরিষেবা। সংবাদমাধ্যমে এ খবর দেখেই বুকিং বাতিল করার লাইন পড়ে গেছে।

ভারতীয় পর্যটকদের অনেকেই আবার দেশের মধ্যে বিভিন্ন জায়গার পরিকল্পনা ছেড়ে দুবাই, সিঙ্গাপুর যাওয়ার বুকিং করছেন। কিন্তু ক্রিসমাসের সময়ে সেখানে বুকিং পাওয়াও মুশকিল হয়ে উঠেছে। হোটেল ভাড়াও বছরের অন্য সময়ের তুলনায় অনেকটা বেশি। ফলে অনেকে ট্রিপ বাতিল করে দিচ্ছেন।সবমিলিয়ে পর্যটন ব্যবসায় কয়েক হাজার কোটি টাকার ক্ষতির মুখে উত্তর-পূর্বের পর্যটন শিল্প।