মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলে ৩ হোটেলে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা আদায় ১ লাখ ১০ হাজার টাকা

সেলিম রেজা :=

অনিয়ম ও ভেজাল বিরোধী অভিযানে বেনাপোলে পাঁচটি হোটেল-রেস্তোরার মালিককে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
বেনাপোলে ৫টি খাবার হোটেল ও রেস্তোরায় স্যানিটারি ইন্সপেক্টরের উপস্থিতিতে ভোক্তা অধিকার আইনে শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) কর্মকর্তা খোরশেদ আলম চৌধুরী অভিযান পরিচালনা কালে হোটেল গুলো অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাবার পরিবেশন করছে এবং মূল্য তালিকা দৃশ্যমান স্থানে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করেনি। উপর্যুক্ত অপরাধে এবং লাইসেন্স না থাকার কারণে সৌরভ হোটেলকে ৫০০০০/-(পঞ্চাশ হাজার),শাপলা হোটেলকে ৫০০০০/-(পঞ্চাশ জাজার) এবং আরব চাইনিজ রেস্টুরেন্টেকে ১০০০০/-(দশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড করা হয়। মর্বমোট ১১০০০০/-(এক লাখ দশ হাজার) টাকা অর্থ আদায় করেন। শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) কর্মকর্তা খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন, শার্শা উপজেলার সকল হোটেল গুলোকে আগামী ১সপ্তাহের মধ্যে সব কিছু ঠিক করে নেওয়ার নির্দেশ দেয় এবং অনিয়ম ও ভেজালের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে বসবে দুই বাংলার ভাষা প্রেমীদের মিলন মেলা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

বেনাপোলে ৩ হোটেলে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা আদায় ১ লাখ ১০ হাজার টাকা

প্রকাশের সময় : ১০:৫৩:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৯
সেলিম রেজা :=

অনিয়ম ও ভেজাল বিরোধী অভিযানে বেনাপোলে পাঁচটি হোটেল-রেস্তোরার মালিককে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
বেনাপোলে ৫টি খাবার হোটেল ও রেস্তোরায় স্যানিটারি ইন্সপেক্টরের উপস্থিতিতে ভোক্তা অধিকার আইনে শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) কর্মকর্তা খোরশেদ আলম চৌধুরী অভিযান পরিচালনা কালে হোটেল গুলো অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাবার পরিবেশন করছে এবং মূল্য তালিকা দৃশ্যমান স্থানে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করেনি। উপর্যুক্ত অপরাধে এবং লাইসেন্স না থাকার কারণে সৌরভ হোটেলকে ৫০০০০/-(পঞ্চাশ হাজার),শাপলা হোটেলকে ৫০০০০/-(পঞ্চাশ জাজার) এবং আরব চাইনিজ রেস্টুরেন্টেকে ১০০০০/-(দশ হাজার) টাকা অর্থদন্ড করা হয়। মর্বমোট ১১০০০০/-(এক লাখ দশ হাজার) টাকা অর্থ আদায় করেন। শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) কর্মকর্তা খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন, শার্শা উপজেলার সকল হোটেল গুলোকে আগামী ১সপ্তাহের মধ্যে সব কিছু ঠিক করে নেওয়ার নির্দেশ দেয় এবং অনিয়ম ও ভেজালের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।