বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবশেষে পর্দায় ফিরছেন বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন।

মো: ইদ্রিস আলী :=

দীর্ঘদিনের বনবাস। অবশেষে পর্দায় ফিরছেন বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন। সম্প্রতি তার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট থেকে এমন জল্পনাই শুরু হয়েছে। সেখানে সুস্মিতা একটি ছবি পোস্ট করেছেন। তাতে দেখা যায়, বড় একটা জানালার সামনে পেছন ফিরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন অভিনেত্রী। ছবির ক্যাপশনে এমন কিছু লিখেছেন, যাতে আবার তার পর্দায় ফেরারই ইঙ্গিত মিলেছে।

সুস্মিতা লিখেছেন, ‘আমি বরাবরই ধৈর্য ধরতে বিশ্বাসী। একাকী থাকায় আমি আমার ভক্তদের ভক্ত হয়ে গেছি। তারা টানা ১০ বছর আমার পর্দায় ফেরায় অপেক্ষায় রয়েছে। আমাকে প্রতি মুহূর্তে উৎসাহ দিয়েছে। এই বিচ্ছেদের পরেও আমি ফিরছি শুধু তোমাদের জন্যই। অনেক ভালোবাসা রইল।’

বেশ কিছুদিন আগে ফিল্ম সমালোচক রাজীব মসন্দের একটি শোতে এসে সুস্মিতা জানিয়েছিলেন, তিনি ফেরার পরিকল্পনা করছেন। তবে সিনেমার পর্দায় নয়। দেশের অন্যতম দুটি সেরা প্লাটফর্মে ভীষণই অন্য ধরনের দুটি প্রজেক্ট নিয়ে তার কথা চলছে। খুব শিগগির সেই দুটির একটির শুটিং তিনি শুরু করবেন।

সুস্মিতা সবসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণই সক্রিয় থাকেন। সাবেক মিস ইউনিভার্স সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ছবি, ভিডিও শেয়ার করে শিরোনামেও থাকেন। আবার একবার, অভিনেত্রী নিজের একটি ভিডিও শেয়ার করে ইন্টারনেট জুড়ে ছড়িয়ে দিয়েছেন নিজেকে। আসলে সুস্মিতা সেন নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি দুরন্ত ভিডিও শেয়ার করেছেন যেখানে অভিনেত্রীকে সমুদ্রতটে চুটিয়ে মজা করতে দেখা যাচ্ছে। সুস্মিতা সেন এই ভিডিও শেয়ার করার পরেই তার ভক্তরা প্রচুর কমেন্ট ও প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন।

এদিকে গেল মাসে ৪৪ বছরে পা রেখেছেন এ বলিউড অভিনেত্রী। বিশেষ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে কোনো চেষ্টার বাকি রাখেননি তার প্রিয়জনরা। তাদের সম্পর্ক নিয়ে মিডিয়াকে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘বিয়েটা আমাদের জন্য বড় বিষয় নয়। আমরা সম্পর্কে আছি সেটাই বড় বিষয়। একে অপরের সঙ্গ উপভোগ করছি। এটা স্বীকার করতেও আমার কোনো দ্বিধা নেই। আমি আলোচনা-সমালোচনাকে কখনো পাত্তা দিইনি। এখনো দিই না।’

সুস্মিতা সেন ১৯৯৪ সালে ১৮ বছর বয়সে ফেমিনা মিস ইন্ডিয়ার মুকুট জয় করেন এবং পরে মিস ইউনিভার্স (১৯৯৪)-এর মুুকুট জয় করেন। তিনি প্রথম ভারতীয় হিসেবে মিস ইউনিভার্সের মুকুট লাভ করেন। মূলত হিন্দি চলচ্চিত্রে কাজের জন্য পরিচিতি লাভ করলেও তিনি তামিল ও বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রে তার কাজের জন্য তিনি একটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ একাধিক পুরস্কার অর্জন করেছেন।

সুস্মিতার প্রথম চলচ্চিত্র দস্তক ১৯৯৬ সালে মুক্তি পায়। এতে তিনি শরদ কাপুরের চরিত্রের শিকার চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯৭ সালে তিনি তামিল ছবিতে অভিনয় করেন। দুই বছর পর তিনি ডেভিড ধবনের হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র বিবি নাম্বার ওয়ান-এ রুপালি চরিত্রে অভিনয় করেন এবং ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ পার্শ্বঅভিনেত্রী পুরস্কার অর্জন করেন। ছবিটি ১৯৯৯ সালের চতুর্থ সর্বোচ্চ আয়কারী চলচ্চিত্র ছিল।

একই বছর তিনি ‘শেরফ টুম’ ছবিতে অভিনয় করে একই বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০০০ সালে তাকে ফিজা চলচ্চিত্রের ‘মেহবুব মেরে’ গানে দেখা যায়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

অবশেষে পর্দায় ফিরছেন বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন।

প্রকাশের সময় : ০৮:১২:৩৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৯
মো: ইদ্রিস আলী :=

দীর্ঘদিনের বনবাস। অবশেষে পর্দায় ফিরছেন বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন। সম্প্রতি তার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট থেকে এমন জল্পনাই শুরু হয়েছে। সেখানে সুস্মিতা একটি ছবি পোস্ট করেছেন। তাতে দেখা যায়, বড় একটা জানালার সামনে পেছন ফিরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন অভিনেত্রী। ছবির ক্যাপশনে এমন কিছু লিখেছেন, যাতে আবার তার পর্দায় ফেরারই ইঙ্গিত মিলেছে।

সুস্মিতা লিখেছেন, ‘আমি বরাবরই ধৈর্য ধরতে বিশ্বাসী। একাকী থাকায় আমি আমার ভক্তদের ভক্ত হয়ে গেছি। তারা টানা ১০ বছর আমার পর্দায় ফেরায় অপেক্ষায় রয়েছে। আমাকে প্রতি মুহূর্তে উৎসাহ দিয়েছে। এই বিচ্ছেদের পরেও আমি ফিরছি শুধু তোমাদের জন্যই। অনেক ভালোবাসা রইল।’

বেশ কিছুদিন আগে ফিল্ম সমালোচক রাজীব মসন্দের একটি শোতে এসে সুস্মিতা জানিয়েছিলেন, তিনি ফেরার পরিকল্পনা করছেন। তবে সিনেমার পর্দায় নয়। দেশের অন্যতম দুটি সেরা প্লাটফর্মে ভীষণই অন্য ধরনের দুটি প্রজেক্ট নিয়ে তার কথা চলছে। খুব শিগগির সেই দুটির একটির শুটিং তিনি শুরু করবেন।

সুস্মিতা সবসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণই সক্রিয় থাকেন। সাবেক মিস ইউনিভার্স সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ছবি, ভিডিও শেয়ার করে শিরোনামেও থাকেন। আবার একবার, অভিনেত্রী নিজের একটি ভিডিও শেয়ার করে ইন্টারনেট জুড়ে ছড়িয়ে দিয়েছেন নিজেকে। আসলে সুস্মিতা সেন নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি দুরন্ত ভিডিও শেয়ার করেছেন যেখানে অভিনেত্রীকে সমুদ্রতটে চুটিয়ে মজা করতে দেখা যাচ্ছে। সুস্মিতা সেন এই ভিডিও শেয়ার করার পরেই তার ভক্তরা প্রচুর কমেন্ট ও প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন।

এদিকে গেল মাসে ৪৪ বছরে পা রেখেছেন এ বলিউড অভিনেত্রী। বিশেষ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে কোনো চেষ্টার বাকি রাখেননি তার প্রিয়জনরা। তাদের সম্পর্ক নিয়ে মিডিয়াকে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘বিয়েটা আমাদের জন্য বড় বিষয় নয়। আমরা সম্পর্কে আছি সেটাই বড় বিষয়। একে অপরের সঙ্গ উপভোগ করছি। এটা স্বীকার করতেও আমার কোনো দ্বিধা নেই। আমি আলোচনা-সমালোচনাকে কখনো পাত্তা দিইনি। এখনো দিই না।’

সুস্মিতা সেন ১৯৯৪ সালে ১৮ বছর বয়সে ফেমিনা মিস ইন্ডিয়ার মুকুট জয় করেন এবং পরে মিস ইউনিভার্স (১৯৯৪)-এর মুুকুট জয় করেন। তিনি প্রথম ভারতীয় হিসেবে মিস ইউনিভার্সের মুকুট লাভ করেন। মূলত হিন্দি চলচ্চিত্রে কাজের জন্য পরিচিতি লাভ করলেও তিনি তামিল ও বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রে তার কাজের জন্য তিনি একটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ একাধিক পুরস্কার অর্জন করেছেন।

সুস্মিতার প্রথম চলচ্চিত্র দস্তক ১৯৯৬ সালে মুক্তি পায়। এতে তিনি শরদ কাপুরের চরিত্রের শিকার চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯৭ সালে তিনি তামিল ছবিতে অভিনয় করেন। দুই বছর পর তিনি ডেভিড ধবনের হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র বিবি নাম্বার ওয়ান-এ রুপালি চরিত্রে অভিনয় করেন এবং ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ পার্শ্বঅভিনেত্রী পুরস্কার অর্জন করেন। ছবিটি ১৯৯৯ সালের চতুর্থ সর্বোচ্চ আয়কারী চলচ্চিত্র ছিল।

একই বছর তিনি ‘শেরফ টুম’ ছবিতে অভিনয় করে একই বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০০০ সালে তাকে ফিজা চলচ্চিত্রের ‘মেহবুব মেরে’ গানে দেখা যায়।