বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভোলায় ১০ দাখিল ভুয়া পরীক্ষার্থী সহ মাদ্রাসা সুপার গ্রেপ্তার

কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা॥
ভোলার দৌলতখানে দাখিল পরীা চলাকালীন দৌলতখান সরকারি আবু আবদুল্লা কলেজ কেন্দ্র থেকে একই প্রতিষ্ঠানের ১০ জন ভুয়া দাখিল পরীার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে প্রশাসন। এসময় অত্র মাদরাসা সুপার মোঃ জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পরে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইফুল ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পাবলিক পরীাসমূহ (অপরাধ) আইন, ১০৮০ এর ধারা -১৩ এবং ধারা-৩ লঙ্গনের দায়ে মাদরাসা সুপারকে ২ বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড ও পাবলিক পরীাসমূহ(অপরাধ) আইন, ১৯৮০ এর ধারা-৩ লঙ্গনের দায়ে ভুয়া পরীার্থী লিজা আক্তারকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন।
বাকি ৯ ভুয়া পরীর্থীর বয়স কম হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার জন্য কেন্দ্র সচিবকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। এসময় দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জীতেন্দ্র কুমার নাথ ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ বজলার রহমান উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, মঙ্গলবার(৪ জানুয়ারী) হাদিস বিষয়ের পরীা চলাকালীন ভোলা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আতাহার মিয়ার নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইফুল ইসলাম ও রেজওয়ানা চৌধুরী দাখিল পরীা কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে জয়নগর বালিকা দাখিল মাদরাসার ১০ জন ভুয়া পরীার্থী সনাক্ত করেন।
এসময় অভিযুক্ত পরীার্থীদের অন্যের পরীা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়। ভুয়া পরীার্থীরা হলেন, লিজা আক্তার, নিয়ামা আক্তার, রাবেয়া সুলতানা, ময়না আক্তার হামিদা বেগম, নাজমুন নাহার, বিবি খাদিজা,রুমা বেগম, ইমা আক্তার, ফারজানা আক্তার।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সিরাজগঞ্জ কামারখন্দ মায়ের স্বপ্ন পূরণে হেলিকপ্টারে বাড়ি ফিরলেন প্রবাসী তোতা

ভোলায় ১০ দাখিল ভুয়া পরীক্ষার্থী সহ মাদ্রাসা সুপার গ্রেপ্তার

প্রকাশের সময় : ০৮:৩৫:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০
কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা॥
ভোলার দৌলতখানে দাখিল পরীা চলাকালীন দৌলতখান সরকারি আবু আবদুল্লা কলেজ কেন্দ্র থেকে একই প্রতিষ্ঠানের ১০ জন ভুয়া দাখিল পরীার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে প্রশাসন। এসময় অত্র মাদরাসা সুপার মোঃ জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পরে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইফুল ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পাবলিক পরীাসমূহ (অপরাধ) আইন, ১০৮০ এর ধারা -১৩ এবং ধারা-৩ লঙ্গনের দায়ে মাদরাসা সুপারকে ২ বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড ও পাবলিক পরীাসমূহ(অপরাধ) আইন, ১৯৮০ এর ধারা-৩ লঙ্গনের দায়ে ভুয়া পরীার্থী লিজা আক্তারকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন।
বাকি ৯ ভুয়া পরীর্থীর বয়স কম হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করার জন্য কেন্দ্র সচিবকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। এসময় দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জীতেন্দ্র কুমার নাথ ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ বজলার রহমান উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, মঙ্গলবার(৪ জানুয়ারী) হাদিস বিষয়ের পরীা চলাকালীন ভোলা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আতাহার মিয়ার নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইফুল ইসলাম ও রেজওয়ানা চৌধুরী দাখিল পরীা কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে জয়নগর বালিকা দাখিল মাদরাসার ১০ জন ভুয়া পরীার্থী সনাক্ত করেন।
এসময় অভিযুক্ত পরীার্থীদের অন্যের পরীা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়। ভুয়া পরীার্থীরা হলেন, লিজা আক্তার, নিয়ামা আক্তার, রাবেয়া সুলতানা, ময়না আক্তার হামিদা বেগম, নাজমুন নাহার, বিবি খাদিজা,রুমা বেগম, ইমা আক্তার, ফারজানা আক্তার।