সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পরিবহন সমস্য নিরসনে ইবিতে উম্মুক্ত আলোচনা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রতিনিধি
পরিবহন সমস্যা নিরসনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষক-শিক্ষর্থীদের নিয়ে উম্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে ক্যাম্পাসস্থ ডায়না চত্ত্বরে যৌথভাবে সভার আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্র ইউনিয়ন ও ছাত্রমৈত্রী। এতে পরিবহনের বিভিন্ন অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার চিত্র মৌখিক ও লিখিতভাবে তুলে ধরেছেন শিক্ষার্থীরা।

উম্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী। তবে সভায় অংশ নেয়ার কথা থাকলেও সশরীরে উপস্থিত হননি বিশ্ববিদ্যালয়ের  ছাত্র-উপদেষ্টা ও পরিবহন প্রশাসক। এসময় পরিবহন দফতরের এক কর্মকর্তা এবং একজন কর্মচারী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ওই কর্মকর্তা প্রশ্নোত্তর পর্বে পরিবহন দফতরের পক্ষে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

লিখিত অভিযোগের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা মৌখিক অভিযোগ করে বলেন, ভাড়া করা বাসগুলো অপ্রাপ্তবয়স্ক শিশুদের দিয়ে চালনা ও সহযোগীর কাজ করানো হয়, ফিটনেসবিহীন অবৈধ গাড়ি ব্যবহার করা হয়। এছাড়া ঝিনাইদহগামী গাড়িগুলোর অতি মাত্রার গতিতে চলাচল ও বন্ধের দিনে পর্যাপ্ত বাস না থাকা, পরিবহন শ্রমিকদের অসৎদ্বাচরণসহ বিভিন্ন সমস্যার কথা উল্লেখ করেন।

আলোচনায় পরিবহন অফিসের পক্ষে উপস্থিত সহকারী রেজিস্ট্্রার জামাল হোসেন বলেন, ‘আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বিশ^বিদ্যালয়ের সকল বাসে রুট প্লান দেয়া হবে এবং আগামী জুলাই মাসের পর আর কোন অদক্ষ চালক ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি থাকবে না। বাকি সমস্যাগুলোর বিষয়ে আমরা পরিবহন প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা করবো।’

এদিকে দফতর প্রধানরা উপস্থিত না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা। শফিউল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘পরিবহন সমস্যা সংক্রান্ত আলোচনা সভায় পরিবহন প্রশাসক ও ছাত্র উপদেষ্টার অনুপস্থিতি একদম বেমানান।’

তবে আয়োজকরা জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের অভিযোগগুলো তারা লিখিতভাবে সংশ্লিষ্ট দফতর প্রধানদের কাছে প্রেরণ করবেন।আলোচনা সভায় শাখা ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি আব্দুর রউফ, ছাত্র ইউনিয়ন ইবি সংসদের সভাপতি নুরুন্নবী ইসলাম সবুজ, সাধারণ সম্পাদক জি কে সাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বিএনপির নেতাকর্মীদের কারাগারে প্রেরণ সরকারের প্রধান কর্মসূচি -মির্জা ফখরুল

পরিবহন সমস্য নিরসনে ইবিতে উম্মুক্ত আলোচনা

প্রকাশের সময় : ০৭:২৮:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রতিনিধি
পরিবহন সমস্যা নিরসনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষক-শিক্ষর্থীদের নিয়ে উম্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে ক্যাম্পাসস্থ ডায়না চত্ত্বরে যৌথভাবে সভার আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্র ইউনিয়ন ও ছাত্রমৈত্রী। এতে পরিবহনের বিভিন্ন অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার চিত্র মৌখিক ও লিখিতভাবে তুলে ধরেছেন শিক্ষার্থীরা।

উম্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী। তবে সভায় অংশ নেয়ার কথা থাকলেও সশরীরে উপস্থিত হননি বিশ্ববিদ্যালয়ের  ছাত্র-উপদেষ্টা ও পরিবহন প্রশাসক। এসময় পরিবহন দফতরের এক কর্মকর্তা এবং একজন কর্মচারী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ওই কর্মকর্তা প্রশ্নোত্তর পর্বে পরিবহন দফতরের পক্ষে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

লিখিত অভিযোগের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা মৌখিক অভিযোগ করে বলেন, ভাড়া করা বাসগুলো অপ্রাপ্তবয়স্ক শিশুদের দিয়ে চালনা ও সহযোগীর কাজ করানো হয়, ফিটনেসবিহীন অবৈধ গাড়ি ব্যবহার করা হয়। এছাড়া ঝিনাইদহগামী গাড়িগুলোর অতি মাত্রার গতিতে চলাচল ও বন্ধের দিনে পর্যাপ্ত বাস না থাকা, পরিবহন শ্রমিকদের অসৎদ্বাচরণসহ বিভিন্ন সমস্যার কথা উল্লেখ করেন।

আলোচনায় পরিবহন অফিসের পক্ষে উপস্থিত সহকারী রেজিস্ট্্রার জামাল হোসেন বলেন, ‘আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বিশ^বিদ্যালয়ের সকল বাসে রুট প্লান দেয়া হবে এবং আগামী জুলাই মাসের পর আর কোন অদক্ষ চালক ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি থাকবে না। বাকি সমস্যাগুলোর বিষয়ে আমরা পরিবহন প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা করবো।’

এদিকে দফতর প্রধানরা উপস্থিত না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা। শফিউল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘পরিবহন সমস্যা সংক্রান্ত আলোচনা সভায় পরিবহন প্রশাসক ও ছাত্র উপদেষ্টার অনুপস্থিতি একদম বেমানান।’

তবে আয়োজকরা জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের অভিযোগগুলো তারা লিখিতভাবে সংশ্লিষ্ট দফতর প্রধানদের কাছে প্রেরণ করবেন।আলোচনা সভায় শাখা ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি আব্দুর রউফ, ছাত্র ইউনিয়ন ইবি সংসদের সভাপতি নুরুন্নবী ইসলাম সবুজ, সাধারণ সম্পাদক জি কে সাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।