শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তান থেকে জঙ্গিবাদ মুছে দেওয়ার বার্তা ট্রাম্পের

মামুন বাবু :=

ভারতে এসেই সন্ত্রাসদমনে বিশেষ করে পাকিস্তানের মাটি থেকে জঙ্গিবাদ মুছে দিতে একযোগে কাজ করে যাওয়ার বার্তা দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। দিলেন ইসলামিক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয়।

সোমবার দুপুরে গুজরাতের সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে অবতরণ করে ট্রাম্পকে বহনকারী হাইটেক বিমান এয়ারফোর্স ওয়ান।অত্যাধুনিক যুদ্ধের সরঞ্জাম নিয়ে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।  ৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তির ইঙ্গিত।বিনিয়োগের রাস্তা মসৃণ করতে চুক্তির প্রস্তাব।

এদিকে ইতিহাস গড়লেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনিই দেশের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী যিনি দুই মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দেশে স্বাগত জানালেন।এর আগে দুই প্রেসিডেন্টকে দেশে স্বাগত জানিয়ছিলেন ইউপিএ জমানার প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। ডোনাল্ড ট্রাম্প সপ্তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট, যিনি ভারত সফরে এলেন।

এর আগে আইসেন হোয়ার, রিচার্ড নিক্সন, জিমি কার্টার, বিল ক্লিনটন জর্জ বুশ ও বারাক ওবামা ভারতে এসেছেন।দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরবর্তী সময় স্বাধীন ভারতে প্রথম সফরে (১৯৫৯) আসেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি আইসেন হোয়ার। সেসময় ভারত রাশিয়া জোট ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ছিল।তারপরেও ভারতকে বিশাল অংকের আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছিলেন। তাঁকে সেইসময় স্বাগত জানিয়েছিলেন জওহরলাল নেহরু।

এর প্রায় ১০ বছর পর ১৯৬৯ সালে ইন্দিরা গান্ধী প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ভারতে আসেন রিচার্ড নিক্সন। তিনি আবার ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রীকে বিশেষ পছন্দ করতেন না বলেই খবর।এমনকী ইন্দিরা গান্ধীকে বিতর্কিত নামে ডাকার টেপও ফাঁস হয়েছিল সে সময়।  জনতা দলের শাসনকালে ভারতে আসেন জিমি কার্টার। তবে সবচেয়ে বেশিদিনের জন্য ভারত সফরে এসেছিলেন বিল ক্লিন্টন।

অটলবিহারী বাজপেয়ীর শাসনকালে পাঁচ দিনের জন্য সফরে এসেছিলেন তিনি। যা এখনও সর্বোচ্চ।পরবর্তী সময় ২০০৬ সালে মনমোহন সিং প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ভারত সফরে এসেছিলেন জর্জ বুশ। ২০১০ সালে মনমোহন সিংয়ের জমানায় ভারতে এসেছিলেন বারাক ওবামা।এতদিন একমাত্র মনমোহন সিংই দুই ভিন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানিয়েছিলেন। এবার সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০১৫ সালে তাঁর আমলে ভারত সফরে এসেছিলেন বারাক ওবামা। ফের ২০২০ সালে ভারতে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

পাকিস্তান থেকে জঙ্গিবাদ মুছে দেওয়ার বার্তা ট্রাম্পের

প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০
মামুন বাবু :=

ভারতে এসেই সন্ত্রাসদমনে বিশেষ করে পাকিস্তানের মাটি থেকে জঙ্গিবাদ মুছে দিতে একযোগে কাজ করে যাওয়ার বার্তা দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। দিলেন ইসলামিক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয়।

সোমবার দুপুরে গুজরাতের সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে অবতরণ করে ট্রাম্পকে বহনকারী হাইটেক বিমান এয়ারফোর্স ওয়ান।অত্যাধুনিক যুদ্ধের সরঞ্জাম নিয়ে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।  ৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তির ইঙ্গিত।বিনিয়োগের রাস্তা মসৃণ করতে চুক্তির প্রস্তাব।

এদিকে ইতিহাস গড়লেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনিই দেশের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী যিনি দুই মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দেশে স্বাগত জানালেন।এর আগে দুই প্রেসিডেন্টকে দেশে স্বাগত জানিয়ছিলেন ইউপিএ জমানার প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। ডোনাল্ড ট্রাম্প সপ্তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট, যিনি ভারত সফরে এলেন।

এর আগে আইসেন হোয়ার, রিচার্ড নিক্সন, জিমি কার্টার, বিল ক্লিনটন জর্জ বুশ ও বারাক ওবামা ভারতে এসেছেন।দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরবর্তী সময় স্বাধীন ভারতে প্রথম সফরে (১৯৫৯) আসেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি আইসেন হোয়ার। সেসময় ভারত রাশিয়া জোট ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ছিল।তারপরেও ভারতকে বিশাল অংকের আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছিলেন। তাঁকে সেইসময় স্বাগত জানিয়েছিলেন জওহরলাল নেহরু।

এর প্রায় ১০ বছর পর ১৯৬৯ সালে ইন্দিরা গান্ধী প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ভারতে আসেন রিচার্ড নিক্সন। তিনি আবার ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রীকে বিশেষ পছন্দ করতেন না বলেই খবর।এমনকী ইন্দিরা গান্ধীকে বিতর্কিত নামে ডাকার টেপও ফাঁস হয়েছিল সে সময়।  জনতা দলের শাসনকালে ভারতে আসেন জিমি কার্টার। তবে সবচেয়ে বেশিদিনের জন্য ভারত সফরে এসেছিলেন বিল ক্লিন্টন।

অটলবিহারী বাজপেয়ীর শাসনকালে পাঁচ দিনের জন্য সফরে এসেছিলেন তিনি। যা এখনও সর্বোচ্চ।পরবর্তী সময় ২০০৬ সালে মনমোহন সিং প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ভারত সফরে এসেছিলেন জর্জ বুশ। ২০১০ সালে মনমোহন সিংয়ের জমানায় ভারতে এসেছিলেন বারাক ওবামা।এতদিন একমাত্র মনমোহন সিংই দুই ভিন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানিয়েছিলেন। এবার সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০১৫ সালে তাঁর আমলে ভারত সফরে এসেছিলেন বারাক ওবামা। ফের ২০২০ সালে ভারতে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।