শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলে ৪ ভুয়া কাস্টমস কর্মকর্তা আটক

তানজীর মহসিন :=
বেনাপোল বন্দর এলাকায় প্রতারণার সময় চার ভুয়া কাস্টমস কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ।মঙ্গলবার রাত ১০টায় বেনাপোল স্থলবন্দরের ২নং গেট এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন: চাঁদপুর জেলার হোসেনপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আক্তার ফারুক (৪৫), নয়াকান্দী গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে শফিকুর রহমান (৪৪), নরসিংদী জেলার চানপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মিনার হোসেন (৪৩) ও শরিয়তপুর জেলার মাছয়াখালী গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে নুরুজ্জামান নজরুল (৩৮)।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানিয়েছেন, বেনাপোল কাস্টমস হাউসের নিলামকৃত টায়ার বিক্রির লোভ দেখিয়ে চার প্রতারক নিজেদের কাস্টমস অফিসার পরিচয় দিয়ে এক ব্যবসায়ীকে ঢাকা থেকে বেনাপোলে ডেকে আনেন। পরে তারা গোডাউনে টায়ার দেখিয়ে সেই টায়ারের দাম ৬০ লাখ টাকা নির্ধারণ করে এবং ব্যবসায়ীর কাছে ৩০ লাখ টাকা দাবি করে।তিনি আরও জানান, ব্যবসায়ীর সন্দেহ হলে কৌশলে পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করে।প্রতারণার মামলা দিয়ে ওই চারজনকে যশোর আদালতে পাঠানো হবে বলে যোগ করেন তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ব্রায়ান লারার অপরাজিত ৪০০ রানের রেকর্ড, দু’দশক আজ

বেনাপোলে ৪ ভুয়া কাস্টমস কর্মকর্তা আটক

প্রকাশের সময় : ০৮:৪২:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ মার্চ ২০২০
তানজীর মহসিন :=
বেনাপোল বন্দর এলাকায় প্রতারণার সময় চার ভুয়া কাস্টমস কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ।মঙ্গলবার রাত ১০টায় বেনাপোল স্থলবন্দরের ২নং গেট এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন: চাঁদপুর জেলার হোসেনপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আক্তার ফারুক (৪৫), নয়াকান্দী গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে শফিকুর রহমান (৪৪), নরসিংদী জেলার চানপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মিনার হোসেন (৪৩) ও শরিয়তপুর জেলার মাছয়াখালী গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে নুরুজ্জামান নজরুল (৩৮)।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানিয়েছেন, বেনাপোল কাস্টমস হাউসের নিলামকৃত টায়ার বিক্রির লোভ দেখিয়ে চার প্রতারক নিজেদের কাস্টমস অফিসার পরিচয় দিয়ে এক ব্যবসায়ীকে ঢাকা থেকে বেনাপোলে ডেকে আনেন। পরে তারা গোডাউনে টায়ার দেখিয়ে সেই টায়ারের দাম ৬০ লাখ টাকা নির্ধারণ করে এবং ব্যবসায়ীর কাছে ৩০ লাখ টাকা দাবি করে।তিনি আরও জানান, ব্যবসায়ীর সন্দেহ হলে কৌশলে পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করে।প্রতারণার মামলা দিয়ে ওই চারজনকে যশোর আদালতে পাঠানো হবে বলে যোগ করেন তিনি।