শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার নির্যাতিত মুসলিমদের পাশে দাঁড়ালো রাশিয়া

রোকনুজ্জামান রিপন :==

ফিলিস্তিন বিষয়ক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত শান্তি পরিকল্পনা বা ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরিকে’ প্রত্যাখ্যান করায় রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ইসলামি প্র’তিরো’ধ আন্দোলন হামাস।

গত ২৮ জানুয়ারি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার কথিত শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশ করেন। এ পরিকল্পনায় ইহুদিবাদী ইসরাইল খুশি হলেও ফিলিস্তিনের সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠন এর বি’রো’ধিতা করছে।

গত সোমবার রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে হামাসের পলিটব্যুরোর প্রধান ইসমাইল হানিয়া বৈঠক করেন এবং ওই বৈঠকে তিনি ফিলিস্তিনিদের অধিকার রক্ষার প্রতি সমর্থন দেয়ায় রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানান। ল্যাভরভকে ইসমাইল হানিয়া বলেন, ফিলিস্তিনিদের অধিকারের প্রতি সমর্থন দেয়ার ক্ষেত্রে রাশিয়ার দীর্ঘদিনের ইতিহাস রয়েছে।

২৮ জানুয়ারি প্রকাশিত এই শান্তি পরিকল্পনায় উদ্বাস্তু ফি’লিস্তিনিদেরকে নিজ ভূখণ্ডে ফেরার ক্ষেত্রে বা’ধা সৃষ্টি করা হয়েছে; এমনকি স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের অস্তিত্ব স্বী’কার করা হয় নি। এছাড়া, ফি’লিস্তিনের পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের অংশ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি পশ্চিম তীরে অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপন অব্যাহত রাখার সুযোগ দেয়া হয়েছে।পার্সটুডে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন ঘিরে রাজধানী দিল্লিতে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের তাণ্ডবে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়েছে ভারতের সংসদেও। বিরোধীদের হট্টগোলের জেরে রাজ্যসভা মুলতবি করা হয়েছে। লোকসভার অধিবেশনও মুলতবি হয়েছে দফায় দফায়।

এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, দিল্লির সহিংসতা নিয়ে সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে দুই কক্ষেই সোচ্চার ছিল কংগ্রেস, তৃণমূল, আপ, বিএসপিসহ অধিকাংশ বিরোধী দল। তুমুল প্রতিবাদের মুখে পড়ে ‘পরে আলোচনা’র কৌশল নিয়েছে শাসক দল।

বিরোধীদের হট্টগোলের জেরে রাজ্যসভা মুলতবি করা হয়েছে। লোকসভার অধিবেশনও মুলতবি হয়েছে দফায় দফায়। জানা গেছে, অধিবেশন ফের শুরু হলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিবৃতি দিতে পারেন।

লোকসভার বাইরে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে চোখে কালো কাপড় বেঁধে ‘গান্ধীজির তিন বাঁদর’-এর অনুকরণে প্রতিবাদ করেন তৃণমূল সংসদ সদস্যরা। সেই বিক্ষোভে কংগ্রেস এমপিদেরও যোগ দিতে দেখা গিয়েছে। দিল্লির সহিংস ঘটনার পর সোমবার থেকে শুরু হয়েছে বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্ব।

অধিবেশন শুরুর দিনই বড়সড় ধাক্কা খায় শাসক দল বিজেপি। দিল্লির সহিংসতা নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়ে এ দিন সংসদের উভয় কক্ষেই আলোচনার প্রস্তাব দেয় বিরোধীরা। কংগ্রেসের রাজ্যসভার দলনেতা গোলাম নবি আজাদ প্রশ্ন তোলেন, দিল্লিতে যখন সংঘর্ষ ছড়াচ্ছে, সরকার কি তখন ‘ঘুমোচ্ছিল’।

দিল্লির সহিংসতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিবৃতি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগের দাবি তোলে কংগ্রেস। এ দিন রাজ্যসভার চেয়েও বেশি বিশৃঙ্খলা হয়েছে লোকসভায়। অমিত শাহের পদত্যাগ দাবি করে তুমুল হট্টগোল শুরু করেন বিরোধীরা। কিন্তু রাজ্যসভার মতোই লোকসভাতেও স্পিকার ওম বিড়লা জানিয়ে দেন, এটা আলোচনার উপযুক্ত সময় নয়।

তিনি বলেন, অবস্থার উন্নতির জন্য আমরা অপেক্ষা করব। তার পর আলোচনার অনুমোদন দেব। কংগ্রেসসহ তৃণমূল, আপ, এসপি, বিএসপি, ডিএমকেসহ প্রায় সব বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের হট্টগোলে দফায় দফায় মুলতবি হয়ে যায় অধিবেশন।

কংগ্রেস এমপি শশী থারুর, রাহুল গান্ধী ও অধীর চৌধুরীকে দেখা গিয়েছে প্রতিবাদস্থলে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে। সেই প্ল্যাকার্ডে দাবি উঠেছিল, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস এবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে হানা দিয়েছে। নয়াদিল্লি ও তেলেঙ্গানায় নতুন করে দুইজন আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ খবর জানিয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ভারতে পাঁচজন আক্রান্ত হল। খবর এনডিটিভির।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নয়াদিল্লির রোগীর ইতালি বেড়াতে গিয়েছিল। আর তেলেঙ্গানার আক্রান্ত ব্যক্তির সাম্প্রতিক সময়ে দুবাই ভ্রমণের ইতিহাস রয়েছে। এছাড়া আরও বিস্তারিত তাদের ভ্রমণ ইতিহাস পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এর আগে কেরালায় তিন শিক্ষার্থীর শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল।

তবে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তারা সুস্থ হয়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া চীন থেকে আগত ভারতীয়দের কোয়ারান্টাইন করে রাখা হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণে রাখার পরে কয়েক জনকে ছেড়েও দেয়া হয়েছে

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

এবার নির্যাতিত মুসলিমদের পাশে দাঁড়ালো রাশিয়া

প্রকাশের সময় : ১০:৩১:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ মার্চ ২০২০
রোকনুজ্জামান রিপন :==

ফিলিস্তিন বিষয়ক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত শান্তি পরিকল্পনা বা ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরিকে’ প্রত্যাখ্যান করায় রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ইসলামি প্র’তিরো’ধ আন্দোলন হামাস।

গত ২৮ জানুয়ারি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার কথিত শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশ করেন। এ পরিকল্পনায় ইহুদিবাদী ইসরাইল খুশি হলেও ফিলিস্তিনের সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠন এর বি’রো’ধিতা করছে।

গত সোমবার রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে হামাসের পলিটব্যুরোর প্রধান ইসমাইল হানিয়া বৈঠক করেন এবং ওই বৈঠকে তিনি ফিলিস্তিনিদের অধিকার রক্ষার প্রতি সমর্থন দেয়ায় রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানান। ল্যাভরভকে ইসমাইল হানিয়া বলেন, ফিলিস্তিনিদের অধিকারের প্রতি সমর্থন দেয়ার ক্ষেত্রে রাশিয়ার দীর্ঘদিনের ইতিহাস রয়েছে।

২৮ জানুয়ারি প্রকাশিত এই শান্তি পরিকল্পনায় উদ্বাস্তু ফি’লিস্তিনিদেরকে নিজ ভূখণ্ডে ফেরার ক্ষেত্রে বা’ধা সৃষ্টি করা হয়েছে; এমনকি স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের অস্তিত্ব স্বী’কার করা হয় নি। এছাড়া, ফি’লিস্তিনের পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের অংশ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি পশ্চিম তীরে অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপন অব্যাহত রাখার সুযোগ দেয়া হয়েছে।পার্সটুডে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন ঘিরে রাজধানী দিল্লিতে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের তাণ্ডবে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়েছে ভারতের সংসদেও। বিরোধীদের হট্টগোলের জেরে রাজ্যসভা মুলতবি করা হয়েছে। লোকসভার অধিবেশনও মুলতবি হয়েছে দফায় দফায়।

এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, দিল্লির সহিংসতা নিয়ে সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে দুই কক্ষেই সোচ্চার ছিল কংগ্রেস, তৃণমূল, আপ, বিএসপিসহ অধিকাংশ বিরোধী দল। তুমুল প্রতিবাদের মুখে পড়ে ‘পরে আলোচনা’র কৌশল নিয়েছে শাসক দল।

বিরোধীদের হট্টগোলের জেরে রাজ্যসভা মুলতবি করা হয়েছে। লোকসভার অধিবেশনও মুলতবি হয়েছে দফায় দফায়। জানা গেছে, অধিবেশন ফের শুরু হলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিবৃতি দিতে পারেন।

লোকসভার বাইরে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে চোখে কালো কাপড় বেঁধে ‘গান্ধীজির তিন বাঁদর’-এর অনুকরণে প্রতিবাদ করেন তৃণমূল সংসদ সদস্যরা। সেই বিক্ষোভে কংগ্রেস এমপিদেরও যোগ দিতে দেখা গিয়েছে। দিল্লির সহিংস ঘটনার পর সোমবার থেকে শুরু হয়েছে বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্ব।

অধিবেশন শুরুর দিনই বড়সড় ধাক্কা খায় শাসক দল বিজেপি। দিল্লির সহিংসতা নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়ে এ দিন সংসদের উভয় কক্ষেই আলোচনার প্রস্তাব দেয় বিরোধীরা। কংগ্রেসের রাজ্যসভার দলনেতা গোলাম নবি আজাদ প্রশ্ন তোলেন, দিল্লিতে যখন সংঘর্ষ ছড়াচ্ছে, সরকার কি তখন ‘ঘুমোচ্ছিল’।

দিল্লির সহিংসতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিবৃতি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগের দাবি তোলে কংগ্রেস। এ দিন রাজ্যসভার চেয়েও বেশি বিশৃঙ্খলা হয়েছে লোকসভায়। অমিত শাহের পদত্যাগ দাবি করে তুমুল হট্টগোল শুরু করেন বিরোধীরা। কিন্তু রাজ্যসভার মতোই লোকসভাতেও স্পিকার ওম বিড়লা জানিয়ে দেন, এটা আলোচনার উপযুক্ত সময় নয়।

তিনি বলেন, অবস্থার উন্নতির জন্য আমরা অপেক্ষা করব। তার পর আলোচনার অনুমোদন দেব। কংগ্রেসসহ তৃণমূল, আপ, এসপি, বিএসপি, ডিএমকেসহ প্রায় সব বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের হট্টগোলে দফায় দফায় মুলতবি হয়ে যায় অধিবেশন।

কংগ্রেস এমপি শশী থারুর, রাহুল গান্ধী ও অধীর চৌধুরীকে দেখা গিয়েছে প্রতিবাদস্থলে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে। সেই প্ল্যাকার্ডে দাবি উঠেছিল, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস এবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে হানা দিয়েছে। নয়াদিল্লি ও তেলেঙ্গানায় নতুন করে দুইজন আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ খবর জানিয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ভারতে পাঁচজন আক্রান্ত হল। খবর এনডিটিভির।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নয়াদিল্লির রোগীর ইতালি বেড়াতে গিয়েছিল। আর তেলেঙ্গানার আক্রান্ত ব্যক্তির সাম্প্রতিক সময়ে দুবাই ভ্রমণের ইতিহাস রয়েছে। এছাড়া আরও বিস্তারিত তাদের ভ্রমণ ইতিহাস পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এর আগে কেরালায় তিন শিক্ষার্থীর শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল।

তবে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তারা সুস্থ হয়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া চীন থেকে আগত ভারতীয়দের কোয়ারান্টাইন করে রাখা হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণে রাখার পরে কয়েক জনকে ছেড়েও দেয়া হয়েছে