শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেনা সদস্যরা দক্ষতা অর্জন করে : সেনাপ্রধান

ঢাকা ব্যুরো :=

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, শান্তিপূর্ণ সময়ে সেনাবাহিনী মূলত প্রশিক্ষণে নিজেদেরকে নিয়োজিত রাখে। আর এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেনা সদস্যরা দক্ষতা অর্জন করে থাকে।

তিনি বলেন, সেনা সদস্যরা ফায়ারিংয়ে পারদর্শী না হলে কোনো প্রশিক্ষণই তেমন একটা কাজে আসবে না। তাই ফায়ারিংকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুমিল্লা সেনানিবাসের ক্ষুদ্রাস্ত্র ফায়ারিং রেঞ্জে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ফায়ারিং প্রতিযোগিতা-২০২০ এর পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন অঞ্চলের ১৫টি দল অংশগ্রহণ করে। এতে ১৯ পদাতিক ডিভিশন দল ৩১৫.৯৫ পয়েন্ট পেয়ে চ্যাম্পিয়ন এবং ৩৩ পদাতিক ডিভিশন দল ৩১০.৩১ পয়েন্ট পেয়ে রানারআপ হয়।

এছাড়া প্রতিযোগিতায় ৭ ডিভিশনের শ্রী অসীম কুমার শর্মা শ্রেষ্ঠ ফায়ারার এবং ১৯ ডিভিশনের সৈনিক মো. মেহেদী হাসান ২য় শ্রেষ্ঠ ফায়ারার নির্বাচিত হন।

অনুষ্ঠানে ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস্ চৌধুরী ও সেনাসদরসহ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ব্রায়ান লারার অপরাজিত ৪০০ রানের রেকর্ড, দু’দশক আজ

প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেনা সদস্যরা দক্ষতা অর্জন করে : সেনাপ্রধান

প্রকাশের সময় : ০৯:০৭:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ মার্চ ২০২০
ঢাকা ব্যুরো :=

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, শান্তিপূর্ণ সময়ে সেনাবাহিনী মূলত প্রশিক্ষণে নিজেদেরকে নিয়োজিত রাখে। আর এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেনা সদস্যরা দক্ষতা অর্জন করে থাকে।

তিনি বলেন, সেনা সদস্যরা ফায়ারিংয়ে পারদর্শী না হলে কোনো প্রশিক্ষণই তেমন একটা কাজে আসবে না। তাই ফায়ারিংকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুমিল্লা সেনানিবাসের ক্ষুদ্রাস্ত্র ফায়ারিং রেঞ্জে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ফায়ারিং প্রতিযোগিতা-২০২০ এর পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন অঞ্চলের ১৫টি দল অংশগ্রহণ করে। এতে ১৯ পদাতিক ডিভিশন দল ৩১৫.৯৫ পয়েন্ট পেয়ে চ্যাম্পিয়ন এবং ৩৩ পদাতিক ডিভিশন দল ৩১০.৩১ পয়েন্ট পেয়ে রানারআপ হয়।

এছাড়া প্রতিযোগিতায় ৭ ডিভিশনের শ্রী অসীম কুমার শর্মা শ্রেষ্ঠ ফায়ারার এবং ১৯ ডিভিশনের সৈনিক মো. মেহেদী হাসান ২য় শ্রেষ্ঠ ফায়ারার নির্বাচিত হন।

অনুষ্ঠানে ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস্ চৌধুরী ও সেনাসদরসহ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।