মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা যেভাবে ছড়ায়, যেসব লক্ষণ বুঝা যায়

মামুন বাবু :=

করোনা প্রতিরোধে কী করতে হবে তা নিয়ে একটি নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট-আইইডিসিআর। দেখুন বিস্তারিত।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আট মার্চ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাস আক্রান্ত তিন রোগী শনাক্তের ঘোষণা দিয়েছে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআর। ইনস্টিটিউটের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানিয়েছেন, আক্রান্তদের মধ্যে দুজন সম্প্রতি ইতালি থেকে ফিরেছেন। পরবর্তীতে তাদের একজনের সংস্পর্শে পরিবারের আরেক সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে।

করোনা যেভাবে ছড়ায় মোট সাতটি প্রজাতির করোনা ভাইরাস মানুষের দেহে সংক্রমিত হতে পারে। তার একটি ২০১৯ এন করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসটি প্রথমে প্রাণী থেকে মানুষে এবং এখন তা মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হচ্ছে। এটি ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়। হাঁচি, কাশি, কফ, থুথু বা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শেও এই রোগ ছড়ায়।

যেসব লক্ষণ দেখা যায় শরীরে নভেল করোনা ভাইরাস প্রবেশের পর দুই থেকে ১৪ দিনের মধ্যে লক্ষণ দেখা দেয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রথমে জ্বর হয়। এছাড়াও শুকনো কাশি, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া হতে পারে। কারো ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসকষ্ট, হৃদরোগ, কিডনি সমস্যা, ক্যান্সার থাকলে দেহের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিকল হতে পারে।

কী করবেন? প্রতিরোধে ব্যক্তিগত সচেতনতাই একমাত্র উপায়। ঘন ঘন সাবান ও পানি দিয়ে অন্তত ২০ সেকেন্ড সময় ধরে হাত ধুতে হবে। অপরিষ্কার হাতে চোখ, নাক, মুখ স্পর্শ করা যাবে না। আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে। হাঁচি, কাশি দেয়ার সময় বাহু, টিস্যু বা কাপড় দিয়ে নাক-মুখ ঢেকে রাখতে হবে। অসুস্থ পশু-পাখির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন। মাছ-মাংস ভালোভাবে রান্না করে খান।

চিকিৎসা কী? এন করোনা ভাইরাস নতুন হওয়ায় এর কোন টিকা বা ভ্যাকসিন এখনও আবিষ্কার হয়নি। চিকিৎসা লক্ষণভিত্তিক।

অসুস্থ হলে করণীয় অসুস্থ হলে ঘরে থাকতে পরামর্শ দিয়েছে আইইডিসিআর। তবে মারাত্মক অসুস্থ হলে নিকটস্থ সদর হাসপাতালে যেতে হবে৷ রোগীকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

সরকারের নির্দেশনা কেউ যদি চীন, সিঙ্গাপুর, জাপান, দক্ষিন কোরিয়া, ইতালি, ইরান এসব দেশে ভ্রমণ করে থাকেন এবং ফিরে আসার ১৪ দিনের মধ্যে যদি জ্বর-কাশি-গলা-ব্যথা-শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়, তাহলে অতি দ্রুত আইইডিসিআর-এর হটলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করুন এবং কুয়েত-মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আইইডিসিআর-এর হটলাইন করোনা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ- ০১৭০০৭০৫৭৩৭ হটলাইন নাম্বার- ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫। ডয়চে ভেলে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

করোনা যেভাবে ছড়ায়, যেসব লক্ষণ বুঝা যায়

প্রকাশের সময় : ০৩:২১:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ মার্চ ২০২০
মামুন বাবু :=

করোনা প্রতিরোধে কী করতে হবে তা নিয়ে একটি নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট-আইইডিসিআর। দেখুন বিস্তারিত।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আট মার্চ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাস আক্রান্ত তিন রোগী শনাক্তের ঘোষণা দিয়েছে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআর। ইনস্টিটিউটের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানিয়েছেন, আক্রান্তদের মধ্যে দুজন সম্প্রতি ইতালি থেকে ফিরেছেন। পরবর্তীতে তাদের একজনের সংস্পর্শে পরিবারের আরেক সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে।

করোনা যেভাবে ছড়ায় মোট সাতটি প্রজাতির করোনা ভাইরাস মানুষের দেহে সংক্রমিত হতে পারে। তার একটি ২০১৯ এন করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসটি প্রথমে প্রাণী থেকে মানুষে এবং এখন তা মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হচ্ছে। এটি ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়। হাঁচি, কাশি, কফ, থুথু বা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শেও এই রোগ ছড়ায়।

যেসব লক্ষণ দেখা যায় শরীরে নভেল করোনা ভাইরাস প্রবেশের পর দুই থেকে ১৪ দিনের মধ্যে লক্ষণ দেখা দেয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রথমে জ্বর হয়। এছাড়াও শুকনো কাশি, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া হতে পারে। কারো ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসকষ্ট, হৃদরোগ, কিডনি সমস্যা, ক্যান্সার থাকলে দেহের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিকল হতে পারে।

কী করবেন? প্রতিরোধে ব্যক্তিগত সচেতনতাই একমাত্র উপায়। ঘন ঘন সাবান ও পানি দিয়ে অন্তত ২০ সেকেন্ড সময় ধরে হাত ধুতে হবে। অপরিষ্কার হাতে চোখ, নাক, মুখ স্পর্শ করা যাবে না। আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে। হাঁচি, কাশি দেয়ার সময় বাহু, টিস্যু বা কাপড় দিয়ে নাক-মুখ ঢেকে রাখতে হবে। অসুস্থ পশু-পাখির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন। মাছ-মাংস ভালোভাবে রান্না করে খান।

চিকিৎসা কী? এন করোনা ভাইরাস নতুন হওয়ায় এর কোন টিকা বা ভ্যাকসিন এখনও আবিষ্কার হয়নি। চিকিৎসা লক্ষণভিত্তিক।

অসুস্থ হলে করণীয় অসুস্থ হলে ঘরে থাকতে পরামর্শ দিয়েছে আইইডিসিআর। তবে মারাত্মক অসুস্থ হলে নিকটস্থ সদর হাসপাতালে যেতে হবে৷ রোগীকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

সরকারের নির্দেশনা কেউ যদি চীন, সিঙ্গাপুর, জাপান, দক্ষিন কোরিয়া, ইতালি, ইরান এসব দেশে ভ্রমণ করে থাকেন এবং ফিরে আসার ১৪ দিনের মধ্যে যদি জ্বর-কাশি-গলা-ব্যথা-শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়, তাহলে অতি দ্রুত আইইডিসিআর-এর হটলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করুন এবং কুয়েত-মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আইইডিসিআর-এর হটলাইন করোনা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ- ০১৭০০৭০৫৭৩৭ হটলাইন নাম্বার- ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫। ডয়চে ভেলে।