বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সব পুড়ে ছাই হয়ে ৩ ঘণ্টা পর নিভল রূপনগর বস্তির আগুন

দেবুল কুমার দাস :=

রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। প্রায় ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিসের ২৪ ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে বস্তির দুই শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন। এখন ওই বস্তিতে শুধু কালো ধোঁয়া আর কয়লা। ধোঁয়ার কুণ্ডলী বাতাসে ভাসছে।

রাসেল শিকদার জানান, ৯টা ৪৫ মিনিটে রূপনগরের ‘ত’ ব্লকের বস্তিতে আগুন লাগে। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। প্রথমে ১১টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। অবস্থা বেগতিক দেখে একে একে ২৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় আড়াই হাজার মানুষের বসবাস মিরপুরের এ বস্তিতে। এখানে অবৈধ গ্যাসলাইন, বিদ্যুতের লাইন থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।এ আগুনে দুই শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন।

রূপনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দীপক কুমার দাশ গণমাধ্যমকে বলেন, আগুনে দুই শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিস আগুন নেভানোর পুরোপুরি চেষ্টা করছে। এখানে মূলত রিকশাচালক, দিনমজুর, পোশাক কারখানার কর্মীদের মতো নিম্নআয়ের মানুষেরা থাকেন। আগুন লাগার সময় অনেকেই কর্মস্থলে ছিলেন। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষণিক পাওয়া যায়নি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সব পুড়ে ছাই হয়ে ৩ ঘণ্টা পর নিভল রূপনগর বস্তির আগুন

প্রকাশের সময় : ০৩:৪৬:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ মার্চ ২০২০
দেবুল কুমার দাস :=

রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। প্রায় ৩ ঘণ্টার চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিসের ২৪ ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে বস্তির দুই শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন। এখন ওই বস্তিতে শুধু কালো ধোঁয়া আর কয়লা। ধোঁয়ার কুণ্ডলী বাতাসে ভাসছে।

রাসেল শিকদার জানান, ৯টা ৪৫ মিনিটে রূপনগরের ‘ত’ ব্লকের বস্তিতে আগুন লাগে। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। প্রথমে ১১টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। অবস্থা বেগতিক দেখে একে একে ২৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় আড়াই হাজার মানুষের বসবাস মিরপুরের এ বস্তিতে। এখানে অবৈধ গ্যাসলাইন, বিদ্যুতের লাইন থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।এ আগুনে দুই শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত তিনজন।

রূপনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দীপক কুমার দাশ গণমাধ্যমকে বলেন, আগুনে দুই শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিস আগুন নেভানোর পুরোপুরি চেষ্টা করছে। এখানে মূলত রিকশাচালক, দিনমজুর, পোশাক কারখানার কর্মীদের মতো নিম্নআয়ের মানুষেরা থাকেন। আগুন লাগার সময় অনেকেই কর্মস্থলে ছিলেন। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষণিক পাওয়া যায়নি।