শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা: বেকারদের চার মাসের বেতন দেবে যুক্তরাষ্ট্র

আব্দুল লতিফ :=

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের কারণে যারা চাকরি হারিয়েছেন সেসব লোকজনকে চার মাসের বেতন দেওয়া হবে। তাদের প্রত্যেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যেই এই অর্থ প্রেরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভ মুচিন। হোয়াইট হাউস থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে মুুচিন বলেন, আমরা আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে চাকরি হারানোদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দিতে পারব বলে আশা করছি।এর আগে গত বুধবার পাঁচদিনের টানা ও উত্তেজনাপূর্ণ আলোচনার পর দেশটির পার্লামেন্টে দুই ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি প্রণোদনা চুক্তিতে সম্মতি দেয় হোয়াইট হাউস ও সিনেট। ওই চুক্তির আওতা থেকেই বেকারদের ৪ মাসের বেতন দেয়া হবে।

এছাড়া হাসপাতালের জন্য বেছে নেওয়া পরিকল্পনাতেই প্রণোদনার ১৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করা হবে।এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা অবিরত বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে করোনায় দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬ হাজার ৪৮ জন। আর করোনায় মারা গেছেন ৯৪৪ জন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

করোনা: বেকারদের চার মাসের বেতন দেবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশের সময় : ০৭:১১:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০
আব্দুল লতিফ :=

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের কারণে যারা চাকরি হারিয়েছেন সেসব লোকজনকে চার মাসের বেতন দেওয়া হবে। তাদের প্রত্যেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যেই এই অর্থ প্রেরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভ মুচিন। হোয়াইট হাউস থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে মুুচিন বলেন, আমরা আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে চাকরি হারানোদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দিতে পারব বলে আশা করছি।এর আগে গত বুধবার পাঁচদিনের টানা ও উত্তেজনাপূর্ণ আলোচনার পর দেশটির পার্লামেন্টে দুই ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি প্রণোদনা চুক্তিতে সম্মতি দেয় হোয়াইট হাউস ও সিনেট। ওই চুক্তির আওতা থেকেই বেকারদের ৪ মাসের বেতন দেয়া হবে।

এছাড়া হাসপাতালের জন্য বেছে নেওয়া পরিকল্পনাতেই প্রণোদনার ১৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করা হবে।এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা অবিরত বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে করোনায় দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬ হাজার ৪৮ জন। আর করোনায় মারা গেছেন ৯৪৪ জন।