বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা সংক্রমন ও অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধে বেনাপোলের বিভিণ্ন সীমান্তে বিজিবি সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায়

শেখ নাছির উদ্দিন : স্টাফ রিপোর্টার :=
করোনা সংক্রমন ও অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধে বেনাপোলের বিভিণ্ন সীমান্তে বিজিবিকে রাখা হয়েছে সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায়। ভিন দেশ থেকে যাতে কেউ অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য বাড়ানো হয়েছে বিজিবির টহল ব্যবস্থা।
বিজিবি সুত্র জানায়, দেশে সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমন দেখা দেয়ার পরপরই বিজিবিকে সীমান্তবর্তী এলাকায় সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। রাতে সীমান্ত এলাকায় লোকজনদের অকারনে চলাচল’র ওপর বিধি নিষেধ দেয়া হয়েছে। ৪৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের অধীনে ৭০ কি: মি: সীমান্ত এলাকায় বিজিবি টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। বিজিবি সদস্যদের সীমান্ত সু রক্ষা দিতে তাদেরকে মাস্ক, হ্যান্ড সেনিটাইজার ও হ্যান্ড গ্লোবস দিয়ে টহল দিতে দেখা গেছে। সীমান্তে বিজিবির চৌকি গুলোতে রাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

ভারতে বসবাসরত কেউ যাতে সীমান্ত টপকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে লক্ষে সীমান্তের বিভিণ্ন ঝুকিপূর্ন পয়েন্ট গুলোতেও বিজিবির চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। বিজিবির প্রশিক্ষন প্রাপ্ত কুকুর নিয়েও তারা টহল দিচ্ছে।

যশোর ৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে: কর্নেল সেলিম রেজা জানান, করোনা সংক্রমন নিয়ে ভারত থেকে যাতে কেউ অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জণ্য সীমান্তবর্তী এলাকায় বিজিবিকে সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। বিশেষ করে রাতে টহল ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে। ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশকে জিরা টলারেন্সে রাখা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

করোনা সংক্রমন ও অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধে বেনাপোলের বিভিণ্ন সীমান্তে বিজিবি সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায়

প্রকাশের সময় : ০৮:৫৬:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০
শেখ নাছির উদ্দিন : স্টাফ রিপোর্টার :=
করোনা সংক্রমন ও অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধে বেনাপোলের বিভিণ্ন সীমান্তে বিজিবিকে রাখা হয়েছে সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায়। ভিন দেশ থেকে যাতে কেউ অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য বাড়ানো হয়েছে বিজিবির টহল ব্যবস্থা।
বিজিবি সুত্র জানায়, দেশে সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমন দেখা দেয়ার পরপরই বিজিবিকে সীমান্তবর্তী এলাকায় সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। রাতে সীমান্ত এলাকায় লোকজনদের অকারনে চলাচল’র ওপর বিধি নিষেধ দেয়া হয়েছে। ৪৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের অধীনে ৭০ কি: মি: সীমান্ত এলাকায় বিজিবি টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। বিজিবি সদস্যদের সীমান্ত সু রক্ষা দিতে তাদেরকে মাস্ক, হ্যান্ড সেনিটাইজার ও হ্যান্ড গ্লোবস দিয়ে টহল দিতে দেখা গেছে। সীমান্তে বিজিবির চৌকি গুলোতে রাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

ভারতে বসবাসরত কেউ যাতে সীমান্ত টপকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে লক্ষে সীমান্তের বিভিণ্ন ঝুকিপূর্ন পয়েন্ট গুলোতেও বিজিবির চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। বিজিবির প্রশিক্ষন প্রাপ্ত কুকুর নিয়েও তারা টহল দিচ্ছে।

যশোর ৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে: কর্নেল সেলিম রেজা জানান, করোনা সংক্রমন নিয়ে ভারত থেকে যাতে কেউ অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জণ্য সীমান্তবর্তী এলাকায় বিজিবিকে সর্বচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। বিশেষ করে রাতে টহল ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে। ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশকে জিরা টলারেন্সে রাখা হয়েছে।