বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরগুনায় মাদক ছেড়ে আসা ৩০ জনকে খাদ্য সামগ্রী দিলেন তালতলীর ওসি 

মল্লিক মো.জামাল, বরগুনা প্রতিনিধি।।
বরগুনার তালতলী থানা পুলিশের কাছে মাদক সেবন,ব্যবসা ছেড়ে আত্মসমর্পণ করে আলোর পথে আসা ৩০জন বেকার যুবককে ৭দিনের খাদ্য সামগ্রী দিলেন ওসি।
বৃহস্পতিবার(০৯ এপ্রিল)সকাল ১০টার দিকে তালতলী থানার সামনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাদের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতারন করা হয়।
তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান মিয়া বলেন পুলিশের কাছে বিভিন্ন সময়ে আত্মসমর্পণ করা ৩০ বেকার যুবকদের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ৭ দিনে খাদ্য সামগ্রী হিসেবে দশ কেজি চাল, দুই কেজি আলু,এক কেজি ডাল,দুই কেজি পিয়াজ ও একটি করে সাবান বিতরণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন আত্মসমর্পণ করে পুনরায় মাদকের জগতে ফিরে গেছে তাদের বিরুদ্ধেও পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা চাই না কারোর বিরুদ্ধে মামলা হোক, আর সেই মামলা চালাতে গিয়ে বড় ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ুক। চাইলে তারাও আত্মসমর্পণ করে আলোর পথে ফিরে আসুক। এতে অন্যদের মতো তারাও ভালো থাকবেন।
মাদক থেকে আলোর পথে ফেরা কয়েক জন নাম প্রকাশ না করার শর্তে  বলেন দিনে আত্মগোপন, রাতে পুলিশের ভয়ে নির্ঘুম কাটতো। এই মাদকের ফলে মরণঘাতী মাদকের ভয়াবহ ছোবল। প্রতিটি মুহূর্ত যেন ভয় আর উৎকণ্ঠায় কাটছিল। এর মধ্যেও মাসে মাসে মামলার ঘানি টানতে আদালতে কাঠগড়ায়। কখনো আবার স্বজনদের ছেড়ে জেলখানার চার দেয়ালে বন্দি। সব মিলিয়ে ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসছিল অভিশপ্ত জীবন। তাই এই মাদকের পথ ছেড়ে এখন আলোর পথে সৎ ভাবে আয় করে পরিবার চালাচ্ছি। তার ভিতরে আবার এই মাহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে বেকার হয়ে পড়ছি। আর এই সংঙ্কটের সময় আমাদের মাঝে ওসির ৭দিনে খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি সবাই ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বরগুনায় মাদক ছেড়ে আসা ৩০ জনকে খাদ্য সামগ্রী দিলেন তালতলীর ওসি 

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৯:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০
মল্লিক মো.জামাল, বরগুনা প্রতিনিধি।।
বরগুনার তালতলী থানা পুলিশের কাছে মাদক সেবন,ব্যবসা ছেড়ে আত্মসমর্পণ করে আলোর পথে আসা ৩০জন বেকার যুবককে ৭দিনের খাদ্য সামগ্রী দিলেন ওসি।
বৃহস্পতিবার(০৯ এপ্রিল)সকাল ১০টার দিকে তালতলী থানার সামনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাদের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতারন করা হয়।
তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান মিয়া বলেন পুলিশের কাছে বিভিন্ন সময়ে আত্মসমর্পণ করা ৩০ বেকার যুবকদের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ৭ দিনে খাদ্য সামগ্রী হিসেবে দশ কেজি চাল, দুই কেজি আলু,এক কেজি ডাল,দুই কেজি পিয়াজ ও একটি করে সাবান বিতরণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন আত্মসমর্পণ করে পুনরায় মাদকের জগতে ফিরে গেছে তাদের বিরুদ্ধেও পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা চাই না কারোর বিরুদ্ধে মামলা হোক, আর সেই মামলা চালাতে গিয়ে বড় ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ুক। চাইলে তারাও আত্মসমর্পণ করে আলোর পথে ফিরে আসুক। এতে অন্যদের মতো তারাও ভালো থাকবেন।
মাদক থেকে আলোর পথে ফেরা কয়েক জন নাম প্রকাশ না করার শর্তে  বলেন দিনে আত্মগোপন, রাতে পুলিশের ভয়ে নির্ঘুম কাটতো। এই মাদকের ফলে মরণঘাতী মাদকের ভয়াবহ ছোবল। প্রতিটি মুহূর্ত যেন ভয় আর উৎকণ্ঠায় কাটছিল। এর মধ্যেও মাসে মাসে মামলার ঘানি টানতে আদালতে কাঠগড়ায়। কখনো আবার স্বজনদের ছেড়ে জেলখানার চার দেয়ালে বন্দি। সব মিলিয়ে ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসছিল অভিশপ্ত জীবন। তাই এই মাদকের পথ ছেড়ে এখন আলোর পথে সৎ ভাবে আয় করে পরিবার চালাচ্ছি। তার ভিতরে আবার এই মাহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে বেকার হয়ে পড়ছি। আর এই সংঙ্কটের সময় আমাদের মাঝে ওসির ৭দিনে খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি সবাই ।