শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাওয়া সাংবাদিকদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর

তানভীর মহসিন অংকুর ।। 

দেশে চলমান করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়া সংবাদমাধ্যম কর্মীদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের সময় সংবাদ কর্মীদেরসহ বিভিন্ন পেশাজীবীদের প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের পুলিশবাহিনী, প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী, আমাদের সশস্ত্রবাহিনী, আমাদের স্বাস্থ্যের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রত্যেকে অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।”

“বলতে গেলে তারা জীবনের ঝুঁকি নিয়েই আপনাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে। আপনাদের সাহায্য করছে। আপনাদের জীবন বাঁচাবার জন্য তারা দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।”

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের সংবাদমাধ্যম কর্মীরাও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা, পরিবেশন করা- এই কাজগুলো করে যাচ্ছে। তাতে আপনাদের সুরক্ষিত করতে আরও উদ্যোগ নিতে পারছি। সকলকেই আমি আমার আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।”

করোনা প্রাদুর্ভাব যাতে ছড়িয়ে না পড়ে দরকার না হলে সবাইকে ঘরে থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী- “সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, কারণ রোগটা বেশ সংক্রামক। কার শরীরে আছে, কার শরীরে ঢুকবে তা বোঝা কঠিন। এটাই ভাইরাসটির কঠিন দিক।”সেই সঙ্গে এবারের বাংলা নববর্ষে বাইরে কোনো অনুষ্ঠান না করারও নির্দেশনা দিয়েছেন সরকার প্রধান, “বাংলা নববর্ষে বাইরে কোনো অনুষ্ঠান করা যাবে না। সব অনুষ্ঠান বন্ধ করতে হবে। লোক সমাগম করা যাবে না। তবে ডিজিটাল মাধ্যমে বা নিজেরা পরিবার-পরিজন নিয়ে করতে পারেন।”

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাওয়া সাংবাদিকদের ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ০৩:১৪:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ এপ্রিল ২০২০
তানভীর মহসিন অংকুর ।। 

দেশে চলমান করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়া সংবাদমাধ্যম কর্মীদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের সময় সংবাদ কর্মীদেরসহ বিভিন্ন পেশাজীবীদের প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের পুলিশবাহিনী, প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী, আমাদের সশস্ত্রবাহিনী, আমাদের স্বাস্থ্যের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রত্যেকে অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।”

“বলতে গেলে তারা জীবনের ঝুঁকি নিয়েই আপনাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে। আপনাদের সাহায্য করছে। আপনাদের জীবন বাঁচাবার জন্য তারা দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।”

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের সংবাদমাধ্যম কর্মীরাও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা, পরিবেশন করা- এই কাজগুলো করে যাচ্ছে। তাতে আপনাদের সুরক্ষিত করতে আরও উদ্যোগ নিতে পারছি। সকলকেই আমি আমার আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।”

করোনা প্রাদুর্ভাব যাতে ছড়িয়ে না পড়ে দরকার না হলে সবাইকে ঘরে থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী- “সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, কারণ রোগটা বেশ সংক্রামক। কার শরীরে আছে, কার শরীরে ঢুকবে তা বোঝা কঠিন। এটাই ভাইরাসটির কঠিন দিক।”সেই সঙ্গে এবারের বাংলা নববর্ষে বাইরে কোনো অনুষ্ঠান না করারও নির্দেশনা দিয়েছেন সরকার প্রধান, “বাংলা নববর্ষে বাইরে কোনো অনুষ্ঠান করা যাবে না। সব অনুষ্ঠান বন্ধ করতে হবে। লোক সমাগম করা যাবে না। তবে ডিজিটাল মাধ্যমে বা নিজেরা পরিবার-পরিজন নিয়ে করতে পারেন।”