শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

তারাবি’র নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

আলহাজ্ব মতিয়ার রহমান ।। 

করোনাভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে আসছে রমজান মাসে দেশবাসীকে ঘরে বসে তারাবি’র নামাজ পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকা বিভাগের বেশ কয়েকটি জেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের সময় এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।এ ব্যাপারে সৌদি আরবের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, “আপনারা দেখেছেন সৌদি আরব, সেখানে পর্যন্ত মসজিদে নামাজ বা জমায়েত হওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।এমনকি তারাবিহ’র নামাজও সেখানে হবে না, সবাই ঘরে বসে পড়বে।”এই বিষয়গুলি থেকে আমাদেরও শেখার বিষয় আছে। যে কারণে আমরা মসজিদে না যেয়ে নিজের ঘরে বসে নামাজ পড়তে পারি। আল্লাহর এবাদত, এবাদত তো আপনি যেকোনো জায়গায় বসে করতে পারেন। এটা তো আল্লাহর কাছে সরাসরি আপনি করবেন।”

সামনে রোজা। রমজান মাসে আমাদের কোনো পণ্য পরিবহন বা খাদ্য সামগ্রীর অসুবিধা না হয় সে জন্য আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছি। সেই সাথে সাথে এখানে তারাবি’র নামাজ- যেহেতু সৌদি আরবেও মসজিদে করছে না এবং অন্যান্য দেশেও হচ্ছে না; আমাদের এখানেও আমাদের যেহেতু ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইতিমধ্যে কতগুলো নির্দেশনা দিয়েছে সেটা মেনে ঘরে বসে তারাবি পড়েন। নিজের মন মতো করে পড়েন।”

আল্লাহকে ডাকতে হবে। এবাদত করতে হবে। যেটা আপনি আপনার মতো করে যত ডাকতে পারবেন আল্লাহ সেটাই কবুল করবেন।”

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ব্রায়ান লারার অপরাজিত ৪০০ রানের রেকর্ড, দু’দশক আজ

তারাবি’র নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ০৫:৩৬:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০
আলহাজ্ব মতিয়ার রহমান ।। 

করোনাভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে আসছে রমজান মাসে দেশবাসীকে ঘরে বসে তারাবি’র নামাজ পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকা বিভাগের বেশ কয়েকটি জেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের সময় এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।এ ব্যাপারে সৌদি আরবের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, “আপনারা দেখেছেন সৌদি আরব, সেখানে পর্যন্ত মসজিদে নামাজ বা জমায়েত হওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।এমনকি তারাবিহ’র নামাজও সেখানে হবে না, সবাই ঘরে বসে পড়বে।”এই বিষয়গুলি থেকে আমাদেরও শেখার বিষয় আছে। যে কারণে আমরা মসজিদে না যেয়ে নিজের ঘরে বসে নামাজ পড়তে পারি। আল্লাহর এবাদত, এবাদত তো আপনি যেকোনো জায়গায় বসে করতে পারেন। এটা তো আল্লাহর কাছে সরাসরি আপনি করবেন।”

সামনে রোজা। রমজান মাসে আমাদের কোনো পণ্য পরিবহন বা খাদ্য সামগ্রীর অসুবিধা না হয় সে জন্য আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছি। সেই সাথে সাথে এখানে তারাবি’র নামাজ- যেহেতু সৌদি আরবেও মসজিদে করছে না এবং অন্যান্য দেশেও হচ্ছে না; আমাদের এখানেও আমাদের যেহেতু ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইতিমধ্যে কতগুলো নির্দেশনা দিয়েছে সেটা মেনে ঘরে বসে তারাবি পড়েন। নিজের মন মতো করে পড়েন।”

আল্লাহকে ডাকতে হবে। এবাদত করতে হবে। যেটা আপনি আপনার মতো করে যত ডাকতে পারবেন আল্লাহ সেটাই কবুল করবেন।”