বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরের শার্শায় প্রতিদিন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করছেন মেজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম

তানজীর মহসিন অংকন ।। 

যশোরের শার্শা উপজেলার  নাভারনে সরকারি আদেশ অমান্য, বিভিন্ন অনিয়ম ও বেশি দামে পণ্য বিক্রির অভিযোগে ১০টি প্রতিষ্ঠানকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত  নাভারন বাজারে  সেনাবাহিনী ও পুলিশ ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করে এ জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমান আদালতের মেজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোরশেদ আলম।

এসময় শার্শা নাভারনের বজলুর রহমান কাঠ শিখড়াকে ১ হাজার টাকা, শুকুর আলী যাদবপুরকে ১ হাজার টাকা, রেজাউল নাভারণ রেল বাজারকে ১ হাজার টাকা, শহীদ দক্ষিণ বুরুজবাগানকে ১০ হাজার টাকা, আরিফ, বুরুজবাগানকে ৫ হাজার টাকা, আঃ মজিদ দক্ষিণ বুরুজবাগানকে ৫ হাজার টাকা, হাবিব ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা, নিউ সাহা স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, ময়না স্টোরকে ১০ দশ হাজার টাকা, বারিক স্টোরকে ৪ হাজার টাকা সহ সর্বমোট ৫৭,০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

মেজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম বলেন, বিভিন্ন অনিয়ম ও পণ্য সামগ্রীর মূল্য বেশি রাখার অভিযোগে এসব প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। সরকারি আদেশ অমান্য করে জনসমাগম করে দোকানপাট খোলা রেখে বেচা-কেনা করার দায়ে তাদেরকে এ জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি সকলকে করোনা ভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধে অযথা বা্ইরে বের না  হয়ে সকলকে বাড়িতে  অবস্থান, মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আহবান জানান।  সন্ধ্যা ৬টার পর সকলকে বা্বাইরে বের না হওয়ার জন্ইয পরামর্শ দেন।  এই নির্দেশ অমান্য করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

যশোরের শার্শায় প্রতিদিন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করছেন মেজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম

প্রকাশের সময় : ০৭:৪৪:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল ২০২০
তানজীর মহসিন অংকন ।। 

যশোরের শার্শা উপজেলার  নাভারনে সরকারি আদেশ অমান্য, বিভিন্ন অনিয়ম ও বেশি দামে পণ্য বিক্রির অভিযোগে ১০টি প্রতিষ্ঠানকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত  নাভারন বাজারে  সেনাবাহিনী ও পুলিশ ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করে এ জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমান আদালতের মেজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোরশেদ আলম।

এসময় শার্শা নাভারনের বজলুর রহমান কাঠ শিখড়াকে ১ হাজার টাকা, শুকুর আলী যাদবপুরকে ১ হাজার টাকা, রেজাউল নাভারণ রেল বাজারকে ১ হাজার টাকা, শহীদ দক্ষিণ বুরুজবাগানকে ১০ হাজার টাকা, আরিফ, বুরুজবাগানকে ৫ হাজার টাকা, আঃ মজিদ দক্ষিণ বুরুজবাগানকে ৫ হাজার টাকা, হাবিব ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা, নিউ সাহা স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, ময়না স্টোরকে ১০ দশ হাজার টাকা, বারিক স্টোরকে ৪ হাজার টাকা সহ সর্বমোট ৫৭,০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

মেজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম বলেন, বিভিন্ন অনিয়ম ও পণ্য সামগ্রীর মূল্য বেশি রাখার অভিযোগে এসব প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। সরকারি আদেশ অমান্য করে জনসমাগম করে দোকানপাট খোলা রেখে বেচা-কেনা করার দায়ে তাদেরকে এ জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি সকলকে করোনা ভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধে অযথা বা্ইরে বের না  হয়ে সকলকে বাড়িতে  অবস্থান, মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আহবান জানান।  সন্ধ্যা ৬টার পর সকলকে বা্বাইরে বের না হওয়ার জন্ইয পরামর্শ দেন।  এই নির্দেশ অমান্য করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।