মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে নাভারন ইউনিয়নে মানুষের আস্থার যায়গায় রফিকুল ইসলাম (বুলি)

নজরুল ইসলাম।। ঝিকরগাছা ব্যুরো

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ৭নং নাভারন ইউনিয়নের যোগ্য”সাধারণ সম্পাদক”রফিকুল ইসলাম বুলি অল্প সময়ের মধ্যে জয় করে নিয়েছেন অগণিত মানুষের হৃদয়। গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু হিসেবে পেয়েছেন তুমুল পরিচিতি। অল্প সময়ের মধ্যে ঝিমিয়ে পড়া নাভারন ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে চাঙা করেছেন তাঁর সুদক্ষ নেতৃত্ব ও যোগ্যতায়।
শুধু তাই না……
বিশ্ব বিবেক কে স্তব্ধ করে দেওয়া মহামারী রূপধারণ করা করোনা ভাইরাসের এই সংকটময় মুহূর্তে ”মানুষ মানুষের জন্যে,জীবন জীবনের জন্যে”এই মহান ব্রত সামনে রেখে রফিকুল ইসলাম বুলি আঞ্চলিক শত শত অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। তিনি প্রথম পর্যায়ে ১৫০টি পরিবার ও দ্বিতীয় পর্যায়ে ১০০টি পরিবারের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। তার সাথে সমাজের বিত্তবান শ্রেণির মানুষদেরকে অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানো অনুরোধ করেন তিনি। তাছাড়া এই সংকটময় পরিস্থিতিতে তৃণমূলপর্যায়ে ঘুরে ঘুরে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের ত্যাগী স্হানীয় নেতাকর্মীদের খোঁজ নেওয়াসহ নাভারন ইউনিয়নের রাজনীতিকে উর্বর করার লক্ষে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। যার ফলে এরই মধ্যে বিভিন্ন মহলে কুড়িয়ে নিয়েছেন বেশ সুনাম। তিনি খুবই জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছেন।
এলাকার মানুষ জানান, প্রতিবছর শীতের শুরুতেই সুবিধাবঞ্চিত দরিদ্র অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। শীতবস্ত্র পেয়ে শীতের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হয় এসব নিম্ন-শ্রেণির মানুষের।
শুধু তাই নয়, অভাবী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে সবসময় তৎপর থাকেন রফিকুল ইসলাম বুলি। অর্থের অভাবে চিকিৎসা সেবা নিতে না পারা রোগীদের পাশেও দাঁড়ান তিনি। তাদের পাশে দাঁড়ান, ভরসা হয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন তিনি। এলাকার অনেকেই  বলেন,তিনি একজন  ভালো মানুষ। উনার পাশে এলাকার নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও আছে। আমরাও চাই, তাঁর মতো ভালো মানুষ আগামী দিনে এলাকায় জনপ্রতিনিধিত্ব করুক। তাহলে এলাকারও উন্নয়ন হবে।’
রফিকুল ইসলাম বুলি ব্যক্তি হিসেবে যেমন ভালো, এলাকার মানুষের কাছেও তেমনই জনপ্রিয় এবং গ্রহণযোগ্য। বিপদে আপদে তিনি সবসময়ই মানুষের পাশে থাকেন।’

রফিকুল ইসলাম বুলি  বলেন, ‘আমি এলাকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে ওঁৎপ্রোতভাবে মিশে আছি। তাদের সুখে-দুঃখে থাকার চেষ্টা করি। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসূরী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের দেশ গড়তে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

যশোরে নাভারন ইউনিয়নে মানুষের আস্থার যায়গায় রফিকুল ইসলাম (বুলি)

প্রকাশের সময় : ০৮:১৮:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২০
নজরুল ইসলাম।। ঝিকরগাছা ব্যুরো

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ৭নং নাভারন ইউনিয়নের যোগ্য”সাধারণ সম্পাদক”রফিকুল ইসলাম বুলি অল্প সময়ের মধ্যে জয় করে নিয়েছেন অগণিত মানুষের হৃদয়। গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু হিসেবে পেয়েছেন তুমুল পরিচিতি। অল্প সময়ের মধ্যে ঝিমিয়ে পড়া নাভারন ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে চাঙা করেছেন তাঁর সুদক্ষ নেতৃত্ব ও যোগ্যতায়।
শুধু তাই না……
বিশ্ব বিবেক কে স্তব্ধ করে দেওয়া মহামারী রূপধারণ করা করোনা ভাইরাসের এই সংকটময় মুহূর্তে ”মানুষ মানুষের জন্যে,জীবন জীবনের জন্যে”এই মহান ব্রত সামনে রেখে রফিকুল ইসলাম বুলি আঞ্চলিক শত শত অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। তিনি প্রথম পর্যায়ে ১৫০টি পরিবার ও দ্বিতীয় পর্যায়ে ১০০টি পরিবারের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। তার সাথে সমাজের বিত্তবান শ্রেণির মানুষদেরকে অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানো অনুরোধ করেন তিনি। তাছাড়া এই সংকটময় পরিস্থিতিতে তৃণমূলপর্যায়ে ঘুরে ঘুরে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের ত্যাগী স্হানীয় নেতাকর্মীদের খোঁজ নেওয়াসহ নাভারন ইউনিয়নের রাজনীতিকে উর্বর করার লক্ষে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। যার ফলে এরই মধ্যে বিভিন্ন মহলে কুড়িয়ে নিয়েছেন বেশ সুনাম। তিনি খুবই জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছেন।
এলাকার মানুষ জানান, প্রতিবছর শীতের শুরুতেই সুবিধাবঞ্চিত দরিদ্র অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। শীতবস্ত্র পেয়ে শীতের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হয় এসব নিম্ন-শ্রেণির মানুষের।
শুধু তাই নয়, অভাবী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে সবসময় তৎপর থাকেন রফিকুল ইসলাম বুলি। অর্থের অভাবে চিকিৎসা সেবা নিতে না পারা রোগীদের পাশেও দাঁড়ান তিনি। তাদের পাশে দাঁড়ান, ভরসা হয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন তিনি। এলাকার অনেকেই  বলেন,তিনি একজন  ভালো মানুষ। উনার পাশে এলাকার নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও আছে। আমরাও চাই, তাঁর মতো ভালো মানুষ আগামী দিনে এলাকায় জনপ্রতিনিধিত্ব করুক। তাহলে এলাকারও উন্নয়ন হবে।’
রফিকুল ইসলাম বুলি ব্যক্তি হিসেবে যেমন ভালো, এলাকার মানুষের কাছেও তেমনই জনপ্রিয় এবং গ্রহণযোগ্য। বিপদে আপদে তিনি সবসময়ই মানুষের পাশে থাকেন।’

রফিকুল ইসলাম বুলি  বলেন, ‘আমি এলাকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে ওঁৎপ্রোতভাবে মিশে আছি। তাদের সুখে-দুঃখে থাকার চেষ্টা করি। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসূরী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের দেশ গড়তে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।