মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটে চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগের সম্পাদকের  পাল্টাপাল্টি থানায় অভিযোগ 

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ।।
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেনকে গালিগালাজ ও হুমকিসহ মিথ্যা মামলায় হয়রানি করেন এমন অভিযোগ তুলে বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামান সোহেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন  ছাত্রলীগ নেতা। গত সোমবার রাতে পারভেজ হোসেন বাদী হয়ে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামান সোহেলকে আসামী করে হাতীবান্ধা থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন।এর আগে পারভেজ হোসেন তার ফেসবুক আইডি থেকে “বড়খাতায় ত্রাণের চাল উদ্ধারের ঘটনা কি সত্য!’ এমন একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। ওই স্ট্যাটাসে মানহানি হয়েছে এ অভিযোগ তুলে পারভেজ হোসেনের বিরুদ্ধে গত ১৮ এপ্রিল হাতীবান্ধা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল। হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেন বলেন, আমি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে একটি ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছি মাত্র। এই অপরাধে শুধু আমার বিরুদ্ধে অভিযোগে করেনি। আমাকে হুমকি দিয়েছেন বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল। তাই আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অভিযোগ করেছি।বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল বলেন, “ বড়খাতায় ত্রাণের চাল উদ্ধারের ঘটনা কি সত্য!” এমন একটি মিথ্যা স্ট্যাটাস দিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ। ওই মিথ্যা স্ট্যাটাসের কারণে আমার সম্মান নষ্ট হয়েছে। তাই আমি বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ করেছি। ছাত্রলীগ নেতা পারভেজকে গালিগালাজ ও হুমকি দেয়া হয়নি। তার এ অভিযোগ মিথ্যা। আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে কিনা তা আমি জানি নাা। লালমনিরহাট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাবেদ হোসেন বক্কর বলেন, ছাত্রলীগের ওই নেতা একটি ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছেন মাত্র। সত্য জানতে চাওয়া যদি অপরাধ হয় তাহলে কিছু বলার নেই। আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহন করব।হাতীবান্ধা থানার ওসি (তদন্ত) নজির হোসেন বলেন, এখন পর্যন্ত আমি বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেলের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতার কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে ছাত্রলীগ নেতা পারভেজের বিরুদ্ধে বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান একটি অভিযোগ করেছেন।হাতীবান্ধা থানার ডিউটি অফিসার ও পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইব্রাহিম হোসেন বলেন, বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেলের বিরুদ্ধে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেন একটি অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ পত্র ওসি দেখার পর তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

লালমনিরহাটে চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগের সম্পাদকের  পাল্টাপাল্টি থানায় অভিযোগ 

প্রকাশের সময় : ০৭:০৩:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল ২০২০

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ।।
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেনকে গালিগালাজ ও হুমকিসহ মিথ্যা মামলায় হয়রানি করেন এমন অভিযোগ তুলে বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামান সোহেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন  ছাত্রলীগ নেতা। গত সোমবার রাতে পারভেজ হোসেন বাদী হয়ে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামান সোহেলকে আসামী করে হাতীবান্ধা থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন।এর আগে পারভেজ হোসেন তার ফেসবুক আইডি থেকে “বড়খাতায় ত্রাণের চাল উদ্ধারের ঘটনা কি সত্য!’ এমন একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। ওই স্ট্যাটাসে মানহানি হয়েছে এ অভিযোগ তুলে পারভেজ হোসেনের বিরুদ্ধে গত ১৮ এপ্রিল হাতীবান্ধা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল। হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেন বলেন, আমি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে একটি ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছি মাত্র। এই অপরাধে শুধু আমার বিরুদ্ধে অভিযোগে করেনি। আমাকে হুমকি দিয়েছেন বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল। তাই আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অভিযোগ করেছি।বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল বলেন, “ বড়খাতায় ত্রাণের চাল উদ্ধারের ঘটনা কি সত্য!” এমন একটি মিথ্যা স্ট্যাটাস দিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ। ওই মিথ্যা স্ট্যাটাসের কারণে আমার সম্মান নষ্ট হয়েছে। তাই আমি বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ করেছি। ছাত্রলীগ নেতা পারভেজকে গালিগালাজ ও হুমকি দেয়া হয়নি। তার এ অভিযোগ মিথ্যা। আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে কিনা তা আমি জানি নাা। লালমনিরহাট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাবেদ হোসেন বক্কর বলেন, ছাত্রলীগের ওই নেতা একটি ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছেন মাত্র। সত্য জানতে চাওয়া যদি অপরাধ হয় তাহলে কিছু বলার নেই। আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহন করব।হাতীবান্ধা থানার ওসি (তদন্ত) নজির হোসেন বলেন, এখন পর্যন্ত আমি বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেলের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতার কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে ছাত্রলীগ নেতা পারভেজের বিরুদ্ধে বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান একটি অভিযোগ করেছেন।হাতীবান্ধা থানার ডিউটি অফিসার ও পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইব্রাহিম হোসেন বলেন, বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেলের বিরুদ্ধে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেন একটি অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ পত্র ওসি দেখার পর তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।