মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শোরের চৌগাছায় দুই জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত

নজরুল ইসলাম : ঝিকরগাছা ব্যুরো ।।

যশোরের চৌগাছা উপজেলায়  এক নারী (৩৫) ও এক কিশোরের (১৩) করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বুধবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম। এদের মধ্যে কিশোরটির বাড়ি পৌরশহরের ৭নং ওয়ার্ডের মডেল স্কুল পাড়ায়। তার মা  একটি প্রাইভেট হাসপাতালের কর্মী। নারীটির বাড়ি  ২নং ওয়ার্ডের থানা পাড়ায়।

গত কয়েকদিনে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাগারে এই প্রথম করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলো।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে মঙ্গলবার চৌগাছার চার রোগীর নমুনা পাঠানো হয় যশোর সিভিল সার্জন অফিসে।

সেখান থেকে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয় নমুনা। ওই দুজনের নমুনা পজেটিভ আসে।

বর্তমানে ওই দুজনই তাদের নিজেদের বাড়িতে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, এদের মধ্যে কিশোরটির ডায়রিয়া ও জ্বর ছিল এবং নারীটির জর ও গলায় ব্যাথা ছিল। তারা পরীক্ষা করাতে না চাইলেও কর্তব্যরত চিকিৎসকের এগুলি করোনা উপসর্গ বলে মনে হওয়ায় তাদের নমুনা এক প্রকার জোর করেই পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার বলেন মঙ্গলবার ৪ রোগীর নমুনা পাঠানো হয়েছিল। সেখান থেকে দুজন পজেটিভ হয়েছেন বলে সিভিল সার্জন অফিস থেকে নিশ্চিত হয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন মৌখিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। এখন রোগীদের সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাদের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে এবং ওইসব বাড়িগুলো লকডাউন করা হয়েছে।

 

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ থেকে বিরত থাকুন- এসপি 

শোরের চৌগাছায় দুই জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত

প্রকাশের সময় : ১২:১২:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ এপ্রিল ২০২০

নজরুল ইসলাম : ঝিকরগাছা ব্যুরো ।।

যশোরের চৌগাছা উপজেলায়  এক নারী (৩৫) ও এক কিশোরের (১৩) করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বুধবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম। এদের মধ্যে কিশোরটির বাড়ি পৌরশহরের ৭নং ওয়ার্ডের মডেল স্কুল পাড়ায়। তার মা  একটি প্রাইভেট হাসপাতালের কর্মী। নারীটির বাড়ি  ২নং ওয়ার্ডের থানা পাড়ায়।

গত কয়েকদিনে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাগারে এই প্রথম করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলো।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে মঙ্গলবার চৌগাছার চার রোগীর নমুনা পাঠানো হয় যশোর সিভিল সার্জন অফিসে।

সেখান থেকে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয় নমুনা। ওই দুজনের নমুনা পজেটিভ আসে।

বর্তমানে ওই দুজনই তাদের নিজেদের বাড়িতে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, এদের মধ্যে কিশোরটির ডায়রিয়া ও জ্বর ছিল এবং নারীটির জর ও গলায় ব্যাথা ছিল। তারা পরীক্ষা করাতে না চাইলেও কর্তব্যরত চিকিৎসকের এগুলি করোনা উপসর্গ বলে মনে হওয়ায় তাদের নমুনা এক প্রকার জোর করেই পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার বলেন মঙ্গলবার ৪ রোগীর নমুনা পাঠানো হয়েছিল। সেখান থেকে দুজন পজেটিভ হয়েছেন বলে সিভিল সার্জন অফিস থেকে নিশ্চিত হয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন মৌখিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। এখন রোগীদের সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাদের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে এবং ওইসব বাড়িগুলো লকডাউন করা হয়েছে।