মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে বিষাক্ত মদপানে আরও ২ জনের মৃত্যু

যশোর ব্যুরো ।।

বিষাক্ত মদপানে যশোরে আরও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন শহরের আরবপুর গোরাপাড়ার মৃত কৃঞ্চপদ দাসের ছেলে পোল্লাদ দাস (৪৫) ও একই এলাকার মৃত অজিত দাসের ছেলে প্রশান্ত দাস (৩৮)।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সোমবার দুপুরে প্রশান্ত দাস ও  পোল্লাদ দাস এক সাথে বসে মদ পান করেন। এরপর তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। বিষয়টি গোপন রাখার জন্য তারা নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মঙ্গলবার বিকেল ৪ টার দিকে পোল্লাদের অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে আনেন। এ সময় জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক দেলোয়ার হোসেন তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এরআগে সোমবার রাত ৮টার দিকে প্রশান্ত দাসকে  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। যশোর পুরাতন কসবা ফাঁড়ির এসআই সুকুমার কুমার কুন্ডু জানান, মদ পানে অসুস্থ  প্রশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পোল্লাদের মৃত্যুর বিষয়টি জানা নেই।

উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহে যশোরে বিষাক্ত মদ পানে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে মোট ১৫ জনে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

যশোরে বিষাক্ত মদপানে আরও ২ জনের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ১০:৫১:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ এপ্রিল ২০২০

যশোর ব্যুরো ।।

বিষাক্ত মদপানে যশোরে আরও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন শহরের আরবপুর গোরাপাড়ার মৃত কৃঞ্চপদ দাসের ছেলে পোল্লাদ দাস (৪৫) ও একই এলাকার মৃত অজিত দাসের ছেলে প্রশান্ত দাস (৩৮)।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সোমবার দুপুরে প্রশান্ত দাস ও  পোল্লাদ দাস এক সাথে বসে মদ পান করেন। এরপর তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। বিষয়টি গোপন রাখার জন্য তারা নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মঙ্গলবার বিকেল ৪ টার দিকে পোল্লাদের অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে আনেন। এ সময় জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক দেলোয়ার হোসেন তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এরআগে সোমবার রাত ৮টার দিকে প্রশান্ত দাসকে  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। যশোর পুরাতন কসবা ফাঁড়ির এসআই সুকুমার কুমার কুন্ডু জানান, মদ পানে অসুস্থ  প্রশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পোল্লাদের মৃত্যুর বিষয়টি জানা নেই।

উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহে যশোরে বিষাক্ত মদ পানে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে মোট ১৫ জনে।