বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বুকের দুধ বিক্রি করে এক নারী কোটিপতি!

ইকবাল হোসেন:/=
বিশ্বাসকে পুঁজি করেই সাইপ্রাসের এক নারী সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্ট সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানায়, রাফেলা ল্যাম্পরুউ নামের সাইপ্রাসের ওই নারী মাত্র ৭ মাসেই বুকের দু’ধ বিক্রি করে কোটিপতি হয়ে গেছেন।

যা কিনেছে বডি বিল্ডারেরা। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাফেলা ল্যাম্পরুউ গত ৭ মাস আগে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। সন্তান হওয়ার পর নিয়মিত বুকের দু’ধ পান করাচ্ছিলেন তিনি। তবে এটাও লক্ষ্য করেন যে, সন্তানকে খাওয়ানোর পরও দু’ধ যথেষ্ট ন’ষ্ট

হচ্ছে। তাই ঠিক করেন বাড়তি দু’ধ তিনি বিক্রি করবেন। অবশ্য বাড়তি দু’ধ তিনি অন্য শি’শুদের কাছে বিক্রি করতে চেয়েছিলেন। যাদের মায়েদের বুকের দু’ধ তৈরি হয় না। কিন্তু বিক্রি করতে গিয়ে রাফেলার হয় অন্য অ’ভিজ্ঞতা। দেখলেন, শি’শুর মায়েদের চাইতে ব্যায়াম বীরদের দু’ধের প্রতি বেশি আগ্রহ। শুরুতে পর পর কয়েকজন বডি বিল্ডার তার কাছে বুকের দু’ধ কেনার

জন্য যান। তারাই জানান, পেশী শক্তি বাড়ানোর জন্য বুকের দু’ধের কার্যকারিতা নাকি সবচেয়ে বেশি। সেই কারণেই নানা রকম রাসায়নিক সম্পূরক খাদ্যের চাইতে বুকের দু’ধ তাদের বেশি পছন্দ। চাহিদা মোতাবেক তাই এদের কাছেই প্যাকে’টে বুকের দু’ধ বিক্রি করা শুরু করেন রাফেলা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এরই মধ্যে তিনি নাকি প্রায় ৫ কোটি টাকা রোজগার করে ফেলেছেন। বিষয়টি যাতে প্রচার পায় সেজন্য ২৪ বছরের ওই নারী নিজের একটি ওয়েবসাইটও তৈরি করেছেন। দু’ধ বিক্রির ব্যবসা নিয়ে দুই সন্তানের জননী রাফেলা স্বামী অ্যালেক্স’কে নিয়ে নাকি সুখেই সংসার করছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বুকের দুধ বিক্রি করে এক নারী কোটিপতি!

প্রকাশের সময় : ০৯:২৩:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুন ২০২০

ইকবাল হোসেন:/=
বিশ্বাসকে পুঁজি করেই সাইপ্রাসের এক নারী সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্ট সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানায়, রাফেলা ল্যাম্পরুউ নামের সাইপ্রাসের ওই নারী মাত্র ৭ মাসেই বুকের দু’ধ বিক্রি করে কোটিপতি হয়ে গেছেন।

যা কিনেছে বডি বিল্ডারেরা। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাফেলা ল্যাম্পরুউ গত ৭ মাস আগে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। সন্তান হওয়ার পর নিয়মিত বুকের দু’ধ পান করাচ্ছিলেন তিনি। তবে এটাও লক্ষ্য করেন যে, সন্তানকে খাওয়ানোর পরও দু’ধ যথেষ্ট ন’ষ্ট

হচ্ছে। তাই ঠিক করেন বাড়তি দু’ধ তিনি বিক্রি করবেন। অবশ্য বাড়তি দু’ধ তিনি অন্য শি’শুদের কাছে বিক্রি করতে চেয়েছিলেন। যাদের মায়েদের বুকের দু’ধ তৈরি হয় না। কিন্তু বিক্রি করতে গিয়ে রাফেলার হয় অন্য অ’ভিজ্ঞতা। দেখলেন, শি’শুর মায়েদের চাইতে ব্যায়াম বীরদের দু’ধের প্রতি বেশি আগ্রহ। শুরুতে পর পর কয়েকজন বডি বিল্ডার তার কাছে বুকের দু’ধ কেনার

জন্য যান। তারাই জানান, পেশী শক্তি বাড়ানোর জন্য বুকের দু’ধের কার্যকারিতা নাকি সবচেয়ে বেশি। সেই কারণেই নানা রকম রাসায়নিক সম্পূরক খাদ্যের চাইতে বুকের দু’ধ তাদের বেশি পছন্দ। চাহিদা মোতাবেক তাই এদের কাছেই প্যাকে’টে বুকের দু’ধ বিক্রি করা শুরু করেন রাফেলা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এরই মধ্যে তিনি নাকি প্রায় ৫ কোটি টাকা রোজগার করে ফেলেছেন। বিষয়টি যাতে প্রচার পায় সেজন্য ২৪ বছরের ওই নারী নিজের একটি ওয়েবসাইটও তৈরি করেছেন। দু’ধ বিক্রির ব্যবসা নিয়ে দুই সন্তানের জননী রাফেলা স্বামী অ্যালেক্স’কে নিয়ে নাকি সুখেই সংসার করছেন।