শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরম দুধে দারুচিনি দিয়ে খেলে সারাবে সর্দি-কাশি

সেলিম রেজা: স্টাফ রিপোর্টার:/=

শরীরের শক্তি বাড়াতে এক গ্লাস গরম দুধের বিকল্প নেই। প্রোটিনসমৃদ্ধ দুধের সঙ্গে এক চিমটে দারুটিনি মিশিয়ে পান করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। দুধ ক্যালসিয়ামের উৎস, তার সঙ্গে দারুচিনি মেশালে মেটাবলিজমের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে পেতে পারেন প্রোটিন, ভিটামিন বি১২, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, থায়ামিন, ভিটামিন এ এবং সেলিনিয়ম।

আসুন জেনে নিই উপকারিতা-

১. রাতে ঘুমের আগে দুধ পানের অভ্যাস থাকা ভালো। আর তাতে এক চিমটে দারুচিনি মসলা মেশাবেন। এতে করে আপনার অনিদ্রাজনিত সমস্যা দূর হবে। ২. এক গ্লাস দুধে এক চিমটে দারুচিনি মিশিয়ে খেলে পরিপাক ক্ষমতা বাড়ায়। এ ছাড়া গ্যাস অম্বলের সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাবেন। ৩. এই দুধ মেটাবলিজম বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। দারুচিনি যুক্ত দুধ ওজনও কমায়।৪. সর্দি-কাশি সারাতে দুধের সঙ্গে দারুচিনি খান। গরম দুধের সঙ্গে দারুচিনি এন্টিঅ্যাক্সিডেন্টের কাজ করে। এই পানীয় সর্দি-কাশির সারাবে। এ ছাড়া শরীরে বহুদিন ধরে কোনো ব্যথায় ভুগে থাকলে সহজেই রেহাই পাবেন। ৫. দারুচিনি মিশ্রিত দুধ পান করলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। ৬. ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এই দুধ খুবই উপকারী। এই দুধ আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা নিয়মিত এই দুধ পান করতে পারেন।

যেভাবে তৈরি করবেন দারুচিনি মেশানো দুধ- এক কাপ দুধে এক থেকে দুই চামচ দারুচিনি পাউডার দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন রাতে শোবার আগে পান করুন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

গরম দুধে দারুচিনি দিয়ে খেলে সারাবে সর্দি-কাশি

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৪:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুন ২০২০

সেলিম রেজা: স্টাফ রিপোর্টার:/=

শরীরের শক্তি বাড়াতে এক গ্লাস গরম দুধের বিকল্প নেই। প্রোটিনসমৃদ্ধ দুধের সঙ্গে এক চিমটে দারুটিনি মিশিয়ে পান করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। দুধ ক্যালসিয়ামের উৎস, তার সঙ্গে দারুচিনি মেশালে মেটাবলিজমের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে পেতে পারেন প্রোটিন, ভিটামিন বি১২, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, থায়ামিন, ভিটামিন এ এবং সেলিনিয়ম।

আসুন জেনে নিই উপকারিতা-

১. রাতে ঘুমের আগে দুধ পানের অভ্যাস থাকা ভালো। আর তাতে এক চিমটে দারুচিনি মসলা মেশাবেন। এতে করে আপনার অনিদ্রাজনিত সমস্যা দূর হবে। ২. এক গ্লাস দুধে এক চিমটে দারুচিনি মিশিয়ে খেলে পরিপাক ক্ষমতা বাড়ায়। এ ছাড়া গ্যাস অম্বলের সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাবেন। ৩. এই দুধ মেটাবলিজম বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। দারুচিনি যুক্ত দুধ ওজনও কমায়।৪. সর্দি-কাশি সারাতে দুধের সঙ্গে দারুচিনি খান। গরম দুধের সঙ্গে দারুচিনি এন্টিঅ্যাক্সিডেন্টের কাজ করে। এই পানীয় সর্দি-কাশির সারাবে। এ ছাড়া শরীরে বহুদিন ধরে কোনো ব্যথায় ভুগে থাকলে সহজেই রেহাই পাবেন। ৫. দারুচিনি মিশ্রিত দুধ পান করলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। ৬. ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এই দুধ খুবই উপকারী। এই দুধ আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা নিয়মিত এই দুধ পান করতে পারেন।

যেভাবে তৈরি করবেন দারুচিনি মেশানো দুধ- এক কাপ দুধে এক থেকে দুই চামচ দারুচিনি পাউডার দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন রাতে শোবার আগে পান করুন।