রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২৮ দিন পর কারামুক্ত হলেন হবিগঞ্জের সাংবাদিক সুশান্ত দাশ গুপ্ত

ঢাকা ব্যুরো:/=

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার হওয়ার ২৮ দিন পর কারামুক্ত হলেন দৈনিক আমার হবিগঞ্জের প্রকাশক, সম্পাদক, আমার এমপির ডটকমের প্রতিষ্টাতা সুশান্ত দাশ গুপ্ত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি হবিগঞ্জ কারাগার থেকে মুক্তি পান। গত ১৪ জুন সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি আশরাফুল কামাল তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

বেলা দুটার দিকে তিনি কারাগার থেকে বের হলে সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক এমপি আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়ার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও স্থানীয় সাংবাদিকরা তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করেন। পরে প্রায় ১৫০টি মোটর সাইকেলের শোভযাত্রা সহকারে  সাংবাদিক সুশান্তকে তার গ্রামের বাড়ি সুনারুতে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত ২১ মে ভোরে হবিগঞ্জ শহরে চিড়াকান্দি এলাকায় দৈনিক আমার হবিগঞ্জ অফিস থেকে গ্রেপ্তার হন সুশান্ত। ২০মে মধ্যরাতে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সায়েদুজ্জামান জাহির বাদি হয়ে সুশান্ত দাশ গুপ্ত , নির্বাহী সম্পাদক নুরুজ্জামান মানিক, বার্তা সম্পাদক রায়হান উদ্দিন সুমন ও প্রতিবেদক তারেক হাবিবকে আসামী করে হবিগঞ্জ থানায়  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

বাদির অভিযোগ, হবিগঞ্জ সদরের এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু জাহিরের বিরুদ্ধে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ ৪টি অসত্য সংবাদ প্রকাশ ও ফেসবুকে আপলোড করা হয়েছে। সাংসদ আবু জাহির প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য। তাই  সংক্ষুব্দ হয়ে তিনি এই মামলা করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত ৩ সাংবাদিক গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। দৈনিক আমার হবিগঞ্জ প্রকাশ অব্যাহত রয়েছে।

লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগের তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক, সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয় এক সময়ের তুখোড় ছাত্রলীগ নেতা, ব্লগার  সুশান্ত দাশ গুপ্ত গ্রেপ্তারের হওয়ার পর দেশ বিদেশে সাংবাদিক, ব্লগার ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। তারা ফেসবুকসহ নানা গণমাধ্যমে সুশান্তের মুক্তি দাবি করেন।

কারামুক্ত সুমান্ত দাশ গুপ্ত  বলেন, দুর্নীতিবাজ, দখলবাজ ত্রান চোরেরা যত শক্তিশালী হোক  মামলা হামলা করে দৈনিক আমার হবিগঞ্জের কন্ঠরোধ করতে পারবে না।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

২৮ দিন পর কারামুক্ত হলেন হবিগঞ্জের সাংবাদিক সুশান্ত দাশ গুপ্ত

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৮:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০২০

ঢাকা ব্যুরো:/=

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার হওয়ার ২৮ দিন পর কারামুক্ত হলেন দৈনিক আমার হবিগঞ্জের প্রকাশক, সম্পাদক, আমার এমপির ডটকমের প্রতিষ্টাতা সুশান্ত দাশ গুপ্ত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি হবিগঞ্জ কারাগার থেকে মুক্তি পান। গত ১৪ জুন সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি আশরাফুল কামাল তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

বেলা দুটার দিকে তিনি কারাগার থেকে বের হলে সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক এমপি আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়ার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও স্থানীয় সাংবাদিকরা তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করেন। পরে প্রায় ১৫০টি মোটর সাইকেলের শোভযাত্রা সহকারে  সাংবাদিক সুশান্তকে তার গ্রামের বাড়ি সুনারুতে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত ২১ মে ভোরে হবিগঞ্জ শহরে চিড়াকান্দি এলাকায় দৈনিক আমার হবিগঞ্জ অফিস থেকে গ্রেপ্তার হন সুশান্ত। ২০মে মধ্যরাতে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সায়েদুজ্জামান জাহির বাদি হয়ে সুশান্ত দাশ গুপ্ত , নির্বাহী সম্পাদক নুরুজ্জামান মানিক, বার্তা সম্পাদক রায়হান উদ্দিন সুমন ও প্রতিবেদক তারেক হাবিবকে আসামী করে হবিগঞ্জ থানায়  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

বাদির অভিযোগ, হবিগঞ্জ সদরের এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু জাহিরের বিরুদ্ধে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ ৪টি অসত্য সংবাদ প্রকাশ ও ফেসবুকে আপলোড করা হয়েছে। সাংসদ আবু জাহির প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য। তাই  সংক্ষুব্দ হয়ে তিনি এই মামলা করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত ৩ সাংবাদিক গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। দৈনিক আমার হবিগঞ্জ প্রকাশ অব্যাহত রয়েছে।

লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগের তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক, সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয় এক সময়ের তুখোড় ছাত্রলীগ নেতা, ব্লগার  সুশান্ত দাশ গুপ্ত গ্রেপ্তারের হওয়ার পর দেশ বিদেশে সাংবাদিক, ব্লগার ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। তারা ফেসবুকসহ নানা গণমাধ্যমে সুশান্তের মুক্তি দাবি করেন।

কারামুক্ত সুমান্ত দাশ গুপ্ত  বলেন, দুর্নীতিবাজ, দখলবাজ ত্রান চোরেরা যত শক্তিশালী হোক  মামলা হামলা করে দৈনিক আমার হবিগঞ্জের কন্ঠরোধ করতে পারবে না।