শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোলার লালমোহনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১০ দোকান পুড়ে ছাই কোটি টাকার ক্ষয়তি

কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা\
ভোলার লালমোহন উপজেলা সদরের উত্তর বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এসময় আগুনে প্রায় ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে কোটি টাকার য়তি হয়েছে বলে তিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন।
শুক্রবার (১৯ জুন) রাত আনুমানিক পৌনে ১০ টার দিকে এ অগ্নিকার ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় স‚ত্র জানায়, শুক্রবার রাতে পৌনে ১০ টার দিকে হঠাৎ করে লালমোহন উত্তর বাজারের একটি দোকান থেকে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলে উঠলে স্থানীয় মানুষ চিৎকার করে উঠে। এতে মুহ‚র্তের মধ্যে আগুন চারপাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে লালমোহন ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে বোরহানউদ্দিন ও চরফ্যাশন থেকে আরও দু’টি ইউনিট এসে চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভাতে সম হয়। কিন্তু তার আগেই আগুনে কাঁচা মালের আড়ৎ, ফার্মেসি, চায়ের দোকান, মাংসের দোকানসহ অন্তত ১০টি দোকান পুড়ে চাই হয়ে যায়। এতে প্রায় কোটি টাকার য়তি হয়েছে বলে দাবি তিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের।
রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন লালমোহন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাবিবুল হাসাস রুমি ও পৌরসভার মেয়র এমদাদুল ইসলাম তুহিন। সেসময় ইউএনও তিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির মাধ্যমে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।
লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মীর খায়রুল কবির এ তথ্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ভোলার লালমোহনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১০ দোকান পুড়ে ছাই কোটি টাকার ক্ষয়তি

প্রকাশের সময় : ০৮:৫২:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০

কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা\
ভোলার লালমোহন উপজেলা সদরের উত্তর বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এসময় আগুনে প্রায় ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে কোটি টাকার য়তি হয়েছে বলে তিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন।
শুক্রবার (১৯ জুন) রাত আনুমানিক পৌনে ১০ টার দিকে এ অগ্নিকার ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় স‚ত্র জানায়, শুক্রবার রাতে পৌনে ১০ টার দিকে হঠাৎ করে লালমোহন উত্তর বাজারের একটি দোকান থেকে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলে উঠলে স্থানীয় মানুষ চিৎকার করে উঠে। এতে মুহ‚র্তের মধ্যে আগুন চারপাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে লালমোহন ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে বোরহানউদ্দিন ও চরফ্যাশন থেকে আরও দু’টি ইউনিট এসে চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভাতে সম হয়। কিন্তু তার আগেই আগুনে কাঁচা মালের আড়ৎ, ফার্মেসি, চায়ের দোকান, মাংসের দোকানসহ অন্তত ১০টি দোকান পুড়ে চাই হয়ে যায়। এতে প্রায় কোটি টাকার য়তি হয়েছে বলে দাবি তিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের।
রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন লালমোহন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাবিবুল হাসাস রুমি ও পৌরসভার মেয়র এমদাদুল ইসলাম তুহিন। সেসময় ইউএনও তিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির মাধ্যমে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।
লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মীর খায়রুল কবির এ তথ্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।