শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে বন্যা দূগর্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে খাবার বিতরণ করলেন ডিসি আব্দুল আহাদ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:/=
সুনামগঞ্জে হঠাৎ করে শুরু হওয়া অতি বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে জেলার কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ও আশ পাশের বন্যা দূগর্ত এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শন করে শুকনো খাবার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ।

রবিবার ২৮,০৬,২০২০ অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের কারণে উদ্ভূত বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সুনামগঞ্জ সদরে পৌর এলাকায়, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ আশ্রয়কেন্দ্রে, গৌরারং, রাধানগর,লক্ষনশ্রী গুচ্ছগ্রামে ৫০০ পরিবারের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ(চিড়া, গুড়,বিস্কুট, পানি বিশুদ্ধকরণ পাউডার, দিয়াশলাই,মোম, মাস্ক) বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ। এসময় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব ইয়াসমিন নাহার রুমা, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. মোঃ আবুল হোসেনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ জানান,ইতিমধ্যেই সকল উপজেলায় জরুরি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সার্বক্ষণিক তদারকির সুবিধার্থে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রিত রয়েছে এবং জনগণকে আতংকিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিকেল থেকে পানি কমতে শুরু করেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সুনামগঞ্জে বন্যা দূগর্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে খাবার বিতরণ করলেন ডিসি আব্দুল আহাদ

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৭:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জুন ২০২০

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:/=
সুনামগঞ্জে হঠাৎ করে শুরু হওয়া অতি বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে জেলার কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ও আশ পাশের বন্যা দূগর্ত এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শন করে শুকনো খাবার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ।

রবিবার ২৮,০৬,২০২০ অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের কারণে উদ্ভূত বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সুনামগঞ্জ সদরে পৌর এলাকায়, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ আশ্রয়কেন্দ্রে, গৌরারং, রাধানগর,লক্ষনশ্রী গুচ্ছগ্রামে ৫০০ পরিবারের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ(চিড়া, গুড়,বিস্কুট, পানি বিশুদ্ধকরণ পাউডার, দিয়াশলাই,মোম, মাস্ক) বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ। এসময় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব ইয়াসমিন নাহার রুমা, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. মোঃ আবুল হোসেনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ জানান,ইতিমধ্যেই সকল উপজেলায় জরুরি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সার্বক্ষণিক তদারকির সুবিধার্থে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রিত রয়েছে এবং জনগণকে আতংকিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিকেল থেকে পানি কমতে শুরু করেছে।