শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:/=  
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী  বাবুল সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।
গত ২৭জুন জানতে পারেন তিনি ও তাঁর স্ত্রীর করোনা পজেটিভ। তিনি এখন সুনামগঞ্জ শহরে নিজের বাসায় ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে আইসোলেশনে রয়েছেন। এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন তিনি নিজেই।
এর পূর্বে তিনি ২৫জুন নিজ ফেইসবুকে এক স্ট্যাটসে লিখেছিলেন,করোনা টেস্ট করেছি, রিপোর্টের অপেক্ষায় অসুস্থ সকলের দোয়া আর্শীবাদ প্রার্থনা করি।
জানা যায়,করোনাভাইরাসের সংক্রমের শুরু থেকে তিনি উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছুটে চলেছেন কখনো করোনা রোগীর হোম কোয়ারেন্টািন নিশ্চিত করতে,কখনো জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে বা ত্রাণ বিতরণে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি মিশে গিয়েছিলেন জনতার সাথে। সেই করোনা এখন বাসা বেধেছে তার শরীরে। প্রিয় জনপ্রতিনিধি,প্রিয় নেতার জন্য তাহিরপুর উপজেলার সর্বস্থরের জনতাও তাদের প্রিয় নেতার সুস্থতা কামনা করে দোয়া ছেয়েছেন।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু  চৌধুরী  বাবুল জানান,আমিসহ আমার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছি। তবে কোন লক্ষ্যন নেই। শুস্থ আছি।
মহান আল্লাহ আমাদের যেন দ্রুত করোনা মুক্ত করে আমার এলাকাবাসীসহ সকল প্রিয়জনের কাছে আবারও সুস্থ হয়ে সবার কল্যাণে কাজ করতে পারি। তার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই। সবাই নিরাপদে,সুস্থ আর সর্তক থাকবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশের সময় : ০৩:৩০:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ জুন ২০২০
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:/=  
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী  বাবুল সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।
গত ২৭জুন জানতে পারেন তিনি ও তাঁর স্ত্রীর করোনা পজেটিভ। তিনি এখন সুনামগঞ্জ শহরে নিজের বাসায় ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে আইসোলেশনে রয়েছেন। এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন তিনি নিজেই।
এর পূর্বে তিনি ২৫জুন নিজ ফেইসবুকে এক স্ট্যাটসে লিখেছিলেন,করোনা টেস্ট করেছি, রিপোর্টের অপেক্ষায় অসুস্থ সকলের দোয়া আর্শীবাদ প্রার্থনা করি।
জানা যায়,করোনাভাইরাসের সংক্রমের শুরু থেকে তিনি উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছুটে চলেছেন কখনো করোনা রোগীর হোম কোয়ারেন্টািন নিশ্চিত করতে,কখনো জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে বা ত্রাণ বিতরণে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি মিশে গিয়েছিলেন জনতার সাথে। সেই করোনা এখন বাসা বেধেছে তার শরীরে। প্রিয় জনপ্রতিনিধি,প্রিয় নেতার জন্য তাহিরপুর উপজেলার সর্বস্থরের জনতাও তাদের প্রিয় নেতার সুস্থতা কামনা করে দোয়া ছেয়েছেন।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু  চৌধুরী  বাবুল জানান,আমিসহ আমার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছি। তবে কোন লক্ষ্যন নেই। শুস্থ আছি।
মহান আল্লাহ আমাদের যেন দ্রুত করোনা মুক্ত করে আমার এলাকাবাসীসহ সকল প্রিয়জনের কাছে আবারও সুস্থ হয়ে সবার কল্যাণে কাজ করতে পারি। তার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই। সবাই নিরাপদে,সুস্থ আর সর্তক থাকবেন।