সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি উদ্বোধন করলেন সেনাপ্রধান

নুরুজ্জামান লিটন:/=

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর স্বারক বিশেষ বৃক্ষরোপণ অভিযান-২০২০ এর শুভ উদ্বোধন করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

মঙ্গলবার (৩০জুন) এ উপলক্ষ্যে সেনাপ্রধান ঢাকা সেনানিবাসের ‘আল্লাহু মসজিদ’ প্রাঙ্গনে একটি কাঠগোলাপ গাছের চারা রোপনের মাধ্যমে ঢাকা সেনানিবাসে বৃক্ষরোপন অভিযান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।পাশাপাশি একই সাথে তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সকল সেনানিবাসে এই কর্মসূচি উদ্বোধন করেন।এ বছর বৃক্ষরোপন অভিযানের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘সবুজ বৃক্ষ-নির্মল পরিবেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।’

বৃক্ষরোপন অভিযান-২০২০ এ ফলজ, বনজ ও ঔষধি প্রজাতির বৃক্ষসহ সৌন্দর্য্যবর্ধক বিভিন্ন প্রকার গাছের চারা রোপন করা হবে। সকল সেনানিবাস, স্বর্ণদ্বীপসহ সকল প্রশিক্ষণ এলাকা ও ফায়ারিং রেঞ্চ, সকল ডিওএইচএস এবং জলসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পে এই বৃক্ষরোপন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে যা মাসব্যাপী চলমান থাকবে।

এ বছর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তিন লক্ষাধিক বৃক্ষরোপন করা হবে।দেশের বনজসম্পদ বৃদ্ধি ও পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষার লক্ষ্যে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীকে বিশেষ অর্থবহ করে তুলতে সকলকে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে উদ্যোগ নিতে উৎসাহিত করাই এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্দেশ্যে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি উদ্বোধন করলেন সেনাপ্রধান

প্রকাশের সময় : ০৭:৩৯:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জুন ২০২০

নুরুজ্জামান লিটন:/=

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর স্বারক বিশেষ বৃক্ষরোপণ অভিযান-২০২০ এর শুভ উদ্বোধন করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

মঙ্গলবার (৩০জুন) এ উপলক্ষ্যে সেনাপ্রধান ঢাকা সেনানিবাসের ‘আল্লাহু মসজিদ’ প্রাঙ্গনে একটি কাঠগোলাপ গাছের চারা রোপনের মাধ্যমে ঢাকা সেনানিবাসে বৃক্ষরোপন অভিযান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।পাশাপাশি একই সাথে তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সকল সেনানিবাসে এই কর্মসূচি উদ্বোধন করেন।এ বছর বৃক্ষরোপন অভিযানের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘সবুজ বৃক্ষ-নির্মল পরিবেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।’

বৃক্ষরোপন অভিযান-২০২০ এ ফলজ, বনজ ও ঔষধি প্রজাতির বৃক্ষসহ সৌন্দর্য্যবর্ধক বিভিন্ন প্রকার গাছের চারা রোপন করা হবে। সকল সেনানিবাস, স্বর্ণদ্বীপসহ সকল প্রশিক্ষণ এলাকা ও ফায়ারিং রেঞ্চ, সকল ডিওএইচএস এবং জলসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পে এই বৃক্ষরোপন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে যা মাসব্যাপী চলমান থাকবে।

এ বছর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তিন লক্ষাধিক বৃক্ষরোপন করা হবে।দেশের বনজসম্পদ বৃদ্ধি ও পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষার লক্ষ্যে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীকে বিশেষ অর্থবহ করে তুলতে সকলকে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে উদ্যোগ নিতে উৎসাহিত করাই এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্দেশ্যে।