মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটে মাটির নিচে সরকারি ঔষধ 

মোস্তাফিজুর রহমান: লালমনিরহাট:/=   
এবার মাটির নিচ থেকে বিপুল পরিমান সরকারি ওষুধ উদ্ধার করেছে লালমনিরহাট জেলা   পুলিশ।  মঙ্গলবার, ৩০ জুন সন্ধ্যায় শহরের স্টোরপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ী শরাফত আলীর বাড়ি থেকে এই উদ্ধার করা হয় এই ওষুধ। এর আগে তার মালিকানাধীন ‘টাউন ফার্মেসী’ থেকে সরকারি ওষুধসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।পুলিশ জানায়, গত ২৫ জুন গ্রেপ্তারকৃত শরাফত আলীর স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল স্টোরপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার তার বাড়িতে অভিযান চালায়। বাড়ির পিছনে টয়লেট ও উঠানের মাটি খুরে সাত ধরণের ওষুধ উদ্ধার হয়।
এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে লালমনিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম জানান, সরকারি ওষুধ চুরি সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।প্রসঙ্গত গত ২৩ জুন শহরের ড্রাইভারপাড়া এলাকায় একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ২৫ প্রকারের সরকারি ওষুধ ও ১৭৫টি ডিজিটাল ওৎন পরিমাপক মেশিনসহ আব্দুর রাজ্জাক রেজা ও তার স্ত্রী নিলুফা ইয়াসমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
পরে ওই দুইজন ও রেজার ভাই এবং আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোরকিপার মাহবুব আলম, কালীগঞ্জের জাকারিয়া এবং লালমনিরহাট সিভিল সার্জন অফিসের স্টোরকিপার মোয়াজ্জেম হোসেনের নাম উল্লেখ করে পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। এরপর আব্দুর রাজ্জাক রেজার তথ্যের ভিত্তিতে গত ২৫ জুন শহরের টাউন ফার্মেসীতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান ওষুধসহ ব্যবসায়ী শরাফত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

লালমনিরহাটে মাটির নিচে সরকারি ঔষধ 

প্রকাশের সময় : ০৮:২৬:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ জুলাই ২০২০
মোস্তাফিজুর রহমান: লালমনিরহাট:/=   
এবার মাটির নিচ থেকে বিপুল পরিমান সরকারি ওষুধ উদ্ধার করেছে লালমনিরহাট জেলা   পুলিশ।  মঙ্গলবার, ৩০ জুন সন্ধ্যায় শহরের স্টোরপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ী শরাফত আলীর বাড়ি থেকে এই উদ্ধার করা হয় এই ওষুধ। এর আগে তার মালিকানাধীন ‘টাউন ফার্মেসী’ থেকে সরকারি ওষুধসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।পুলিশ জানায়, গত ২৫ জুন গ্রেপ্তারকৃত শরাফত আলীর স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল স্টোরপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার তার বাড়িতে অভিযান চালায়। বাড়ির পিছনে টয়লেট ও উঠানের মাটি খুরে সাত ধরণের ওষুধ উদ্ধার হয়।
এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে লালমনিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম জানান, সরকারি ওষুধ চুরি সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।প্রসঙ্গত গত ২৩ জুন শহরের ড্রাইভারপাড়া এলাকায় একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ২৫ প্রকারের সরকারি ওষুধ ও ১৭৫টি ডিজিটাল ওৎন পরিমাপক মেশিনসহ আব্দুর রাজ্জাক রেজা ও তার স্ত্রী নিলুফা ইয়াসমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
পরে ওই দুইজন ও রেজার ভাই এবং আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোরকিপার মাহবুব আলম, কালীগঞ্জের জাকারিয়া এবং লালমনিরহাট সিভিল সার্জন অফিসের স্টোরকিপার মোয়াজ্জেম হোসেনের নাম উল্লেখ করে পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। এরপর আব্দুর রাজ্জাক রেজার তথ্যের ভিত্তিতে গত ২৫ জুন শহরের টাউন ফার্মেসীতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান ওষুধসহ ব্যবসায়ী শরাফত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়।