বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলের ব্যবসায়ী বাবুল আক্তার ডিবি পুলিশের হাতে আটক

যশোর ব্যুরো:/=

বন্দর নগরী বেনাপোলের প্রভাবশালী আমদানী কারক হিসাবে সুপরিচিত বাবুল আক্তার(৪৬) যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) সদস্যদের হাতে আটক হয়েছে।ব্যাঙ্কের টাকা আত্নসাৎ মামলায় ১ বছরের সাজা প্রাপ্ত হওয়ায় দীর্ঘদীন ধরে সে পলাতক ছিলো।শার্শা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ঘীবা গ্রামের মৃত বজলুর রহমানের পুত্র। ১লা জুলাই বুধবার দিবাগত রাতে আরবপুর এলাকার জৈনক আমিনুল ইসলামের বাসা হতে ডিবি পুলিশ সদস্যরা তাকে আাটক করেন।

ডিবি সদস্যদের অভিযান চলা কালীন সময়ে ভবনটির নিচতলায় বাবুলের অফিস কক্ষ তল্লাশী চালালে নিজ নামীয় বিভিন্ন ব্যাংকের ২৫ পৃথক চেক বই,প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তির নিকট থেকে নেওয়া ৪০/৫০ কোটি টাকা আত্নসাৎ করার একাধিক মানিস্যুট মামলা সহ ফৌজধারী মামলার কাগজ পত্র উদ্ধার করেন।ডিবি অফিস সুত্রে জানা যায়, যশোর জেলা পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মারুফ আহম্মেদ এর ত্তাবাধায়নে ডিবি পুলিশ পরিদর্শক সোমেন দাশ এর নেতৃত্বে এস আই মফিজুল ইসলাম,এস আই শামীম সঙ্গীয় ফোর্স সহ বুধবার দিবাগত রাত ১.৩০ মিনিটে অভিযান পরিচালনা করে আরবপুর এলাকা হতে ইসলামী ব্যাংকের ১২,৯৯,১৬১/= টাকা আত্নসাৎ মামলার ১ বছরের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী বাবুল আক্তার কে আটক করেন।

যশোর জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং হতে বিষয়টি নিশ্চিত হন গনমাধ্যম কর্মীরা।উল্লেখ্য বিভিন্ন ব্যাংক হতে শার্শা এলাকার কৃষি জমি (কম মূল্যের সম্পতি) বিশেষ সুবিধায় চড়া মূল্যমান নির্ধারন করে ব্যাংক ঝন গ্রহনের মাধ্যমে রাতারাতি কোটিপতি বনে যায় বাবুল আক্তার ও তার ভাইয়েরা। বেনাপোলে অত্যাধুনিক বিলাশ বহুল বাড়ি গাড়ীর মালিক সহ দেশ বিদেশে বিভিন্ন পন্যের আমদানী-রপ্তানীর ব্যাবসা শুরু করেন বাবুল আক্তার।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বেনাপোলের ব্যবসায়ী বাবুল আক্তার ডিবি পুলিশের হাতে আটক

প্রকাশের সময় : ০৮:০০:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

যশোর ব্যুরো:/=

বন্দর নগরী বেনাপোলের প্রভাবশালী আমদানী কারক হিসাবে সুপরিচিত বাবুল আক্তার(৪৬) যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ(ডিবি) সদস্যদের হাতে আটক হয়েছে।ব্যাঙ্কের টাকা আত্নসাৎ মামলায় ১ বছরের সাজা প্রাপ্ত হওয়ায় দীর্ঘদীন ধরে সে পলাতক ছিলো।শার্শা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ঘীবা গ্রামের মৃত বজলুর রহমানের পুত্র। ১লা জুলাই বুধবার দিবাগত রাতে আরবপুর এলাকার জৈনক আমিনুল ইসলামের বাসা হতে ডিবি পুলিশ সদস্যরা তাকে আাটক করেন।

ডিবি সদস্যদের অভিযান চলা কালীন সময়ে ভবনটির নিচতলায় বাবুলের অফিস কক্ষ তল্লাশী চালালে নিজ নামীয় বিভিন্ন ব্যাংকের ২৫ পৃথক চেক বই,প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তির নিকট থেকে নেওয়া ৪০/৫০ কোটি টাকা আত্নসাৎ করার একাধিক মানিস্যুট মামলা সহ ফৌজধারী মামলার কাগজ পত্র উদ্ধার করেন।ডিবি অফিস সুত্রে জানা যায়, যশোর জেলা পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মারুফ আহম্মেদ এর ত্তাবাধায়নে ডিবি পুলিশ পরিদর্শক সোমেন দাশ এর নেতৃত্বে এস আই মফিজুল ইসলাম,এস আই শামীম সঙ্গীয় ফোর্স সহ বুধবার দিবাগত রাত ১.৩০ মিনিটে অভিযান পরিচালনা করে আরবপুর এলাকা হতে ইসলামী ব্যাংকের ১২,৯৯,১৬১/= টাকা আত্নসাৎ মামলার ১ বছরের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী বাবুল আক্তার কে আটক করেন।

যশোর জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং হতে বিষয়টি নিশ্চিত হন গনমাধ্যম কর্মীরা।উল্লেখ্য বিভিন্ন ব্যাংক হতে শার্শা এলাকার কৃষি জমি (কম মূল্যের সম্পতি) বিশেষ সুবিধায় চড়া মূল্যমান নির্ধারন করে ব্যাংক ঝন গ্রহনের মাধ্যমে রাতারাতি কোটিপতি বনে যায় বাবুল আক্তার ও তার ভাইয়েরা। বেনাপোলে অত্যাধুনিক বিলাশ বহুল বাড়ি গাড়ীর মালিক সহ দেশ বিদেশে বিভিন্ন পন্যের আমদানী-রপ্তানীর ব্যাবসা শুরু করেন বাবুল আক্তার।