রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গর্ভাবস্থাতেই সুখবর পেল, শুভশ্রী সেরা অভিনেত্রী

সাজ্জাদুল ইসলাম সৌরভ:/=

গর্ভাবস্থাতেই সুখবর,সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেলেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। নেপথ্যে স্বামী রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত পরিণীতা। জিৎ, দেবের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে জুটি বেঁধে তিনি একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন দর্শককে। বিয়ের পর খানিক বিরতি নিয়েছিলেন বটে, কিন্তু পরিণীতা ছবির হাত ধরে দুর্ধর্ষ অভিনয়ের মাধ্যমেই ফের প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছিলেন পর্দায়। অভিনেত্রী হিসেবে রাজের পরিণীতা যে এখন বেশ পরিণত, তা বোধহয় অস্বীকার করারও কোনও জায়গা নেই!

এই ছবির জন্য চেনা গণ্ডি ছাড়িয়ে একেবারে অন্যভাবে ধরা দিয়েছিলেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ফ্রেমে। পায়ে হাওয়াই চটি, পরনে জামা, বিনুনিতে বাঁধা লাল ফিতে দেখে বোঝার উপায়ই ছিল না যে অভিনেত্রী এখন আর ষোড়শী নন! পরিণীতার জন্য অভিনয়ের তালিম নিয়েছিলেন সোহিনী সেনগুপ্তর কাছ থেকে। বাধ্য ছাত্রীর মতো অক্ষরে অক্ষরে তিনি যে অভিনয়ের পাঠ নিয়েছেন, তা সিনেমা দেখেই বোঝা গিয়েছে। যেন এক অচেনা শুভশ্রী! জুটিও ছকভাঙা। শুভশ্রীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। মেহুল আর বাবাইদার জুটি যে দর্শক বেশ পছন্দ করেছেন, তার উত্তর বক্স অফিসের ফলাফলেই ধরা পড়েছে। আর সেই পরিণীতার জন্যই ফিল্মস্যান্ড ফ্রেমস ডিজিটাল অ্যাওয়ার্ড-এ ২০২০ সালের সেরা অভিনেত্রীর শিরোপা জিতেছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়।

শুধু যে শুভশ্রীই পুরস্কার জিতেছেন, এমনটা নয় কিন্তু! এই ছবির জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার গিয়েছে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর হাতে। এমনকী, দর্শক এবং বিচারকদের বিচারে সেরা ছবির খেতাবও গিয়েছে পরিণীতার কাছে। এছাড়াও সেরা সংগীত, সেরা গান এবং সেরা নেপথ্য গায়িকার মতো একাধিক বিভাগেও পুরস্কার জিতে নিয়েছে এই ছবি। পরিণীতার এই সাফল্যে স্বাভাবিকবশতই উচ্ছ্বসিত টলিউডের তারকাদম্পতি। আর তাই এই ছবিকে এতটা ভালবাসার জন্য এবং জেতানোর জন্যে সকল দর্শক বন্ধুদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাজ-শুভশ্রী।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতার বিশ্বস্ত ঠিকানা, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক–সেতুমন্ত্রী 

গর্ভাবস্থাতেই সুখবর পেল, শুভশ্রী সেরা অভিনেত্রী

প্রকাশের সময় : ০২:১৪:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০

সাজ্জাদুল ইসলাম সৌরভ:/=

গর্ভাবস্থাতেই সুখবর,সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেলেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। নেপথ্যে স্বামী রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত পরিণীতা। জিৎ, দেবের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে জুটি বেঁধে তিনি একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন দর্শককে। বিয়ের পর খানিক বিরতি নিয়েছিলেন বটে, কিন্তু পরিণীতা ছবির হাত ধরে দুর্ধর্ষ অভিনয়ের মাধ্যমেই ফের প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছিলেন পর্দায়। অভিনেত্রী হিসেবে রাজের পরিণীতা যে এখন বেশ পরিণত, তা বোধহয় অস্বীকার করারও কোনও জায়গা নেই!

এই ছবির জন্য চেনা গণ্ডি ছাড়িয়ে একেবারে অন্যভাবে ধরা দিয়েছিলেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ফ্রেমে। পায়ে হাওয়াই চটি, পরনে জামা, বিনুনিতে বাঁধা লাল ফিতে দেখে বোঝার উপায়ই ছিল না যে অভিনেত্রী এখন আর ষোড়শী নন! পরিণীতার জন্য অভিনয়ের তালিম নিয়েছিলেন সোহিনী সেনগুপ্তর কাছ থেকে। বাধ্য ছাত্রীর মতো অক্ষরে অক্ষরে তিনি যে অভিনয়ের পাঠ নিয়েছেন, তা সিনেমা দেখেই বোঝা গিয়েছে। যেন এক অচেনা শুভশ্রী! জুটিও ছকভাঙা। শুভশ্রীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। মেহুল আর বাবাইদার জুটি যে দর্শক বেশ পছন্দ করেছেন, তার উত্তর বক্স অফিসের ফলাফলেই ধরা পড়েছে। আর সেই পরিণীতার জন্যই ফিল্মস্যান্ড ফ্রেমস ডিজিটাল অ্যাওয়ার্ড-এ ২০২০ সালের সেরা অভিনেত্রীর শিরোপা জিতেছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়।

শুধু যে শুভশ্রীই পুরস্কার জিতেছেন, এমনটা নয় কিন্তু! এই ছবির জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার গিয়েছে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর হাতে। এমনকী, দর্শক এবং বিচারকদের বিচারে সেরা ছবির খেতাবও গিয়েছে পরিণীতার কাছে। এছাড়াও সেরা সংগীত, সেরা গান এবং সেরা নেপথ্য গায়িকার মতো একাধিক বিভাগেও পুরস্কার জিতে নিয়েছে এই ছবি। পরিণীতার এই সাফল্যে স্বাভাবিকবশতই উচ্ছ্বসিত টলিউডের তারকাদম্পতি। আর তাই এই ছবিকে এতটা ভালবাসার জন্য এবং জেতানোর জন্যে সকল দর্শক বন্ধুদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাজ-শুভশ্রী।