রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত করতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করবে উত্তর কোরিয়া

নুরুজ্জামান লিটন # যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানতে সক্ষম দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র জনগণের জন্য প্রদর্শনের প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া। সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মার্কিন সাময়িকী দ্য ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট এ তথ্য জানিয়েছে।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন দল কমিউনিস্ট পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ অক্টোবর শক্ত জ্বালানির আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি সম্ভবত জনগণের প্রদর্শনের জন্য সামরিক মহড়ায় হাজির করা হবে।
হোয়াইট হাউজের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, ‘তাদের ইতিহাসের ওপর ভিত্তি করে এই চিত্রটিই সম্ভবত হতে পারে-আমরা এর প্রত্যাশা করছি। তবে আমরা অবশ্যই আশা করি এটা যেন ভুল প্রমাণিত হয়।’
উত্তর কোরিয়া বর্তমানে তরল জ্বালানিভিত্তিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের জন্য অনেক বেশি সময় প্রয়োজন হয় এবং উৎক্ষেপণের জন্য তাৎক্ষনিকভাবে প্রস্তুত অবস্থায় রাখা যায় না। বিপরীত দিক থেকে শক্ত জ্বালানির ক্ষেপণাস্ত্রগুলো অনেক দ্রুত উৎক্ষেপণ করা যায়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশকে সোনার বাংলা করা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত করতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করবে উত্তর কোরিয়া

প্রকাশের সময় : ০৮:৩১:১৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

নুরুজ্জামান লিটন # যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানতে সক্ষম দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র জনগণের জন্য প্রদর্শনের প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া। সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মার্কিন সাময়িকী দ্য ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট এ তথ্য জানিয়েছে।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন দল কমিউনিস্ট পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ অক্টোবর শক্ত জ্বালানির আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি সম্ভবত জনগণের প্রদর্শনের জন্য সামরিক মহড়ায় হাজির করা হবে।
হোয়াইট হাউজের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, ‘তাদের ইতিহাসের ওপর ভিত্তি করে এই চিত্রটিই সম্ভবত হতে পারে-আমরা এর প্রত্যাশা করছি। তবে আমরা অবশ্যই আশা করি এটা যেন ভুল প্রমাণিত হয়।’
উত্তর কোরিয়া বর্তমানে তরল জ্বালানিভিত্তিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের জন্য অনেক বেশি সময় প্রয়োজন হয় এবং উৎক্ষেপণের জন্য তাৎক্ষনিকভাবে প্রস্তুত অবস্থায় রাখা যায় না। বিপরীত দিক থেকে শক্ত জ্বালানির ক্ষেপণাস্ত্রগুলো অনেক দ্রুত উৎক্ষেপণ করা যায়।