মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যশোরের শার্শা সীমান্তে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি

মিলন হোসেন #
যশোরের শার্শা উপজেলার শালকোনা সীমান্তে থেকে বুধবার ভোররাতে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা।

আটকৃতরা হলো,শার্শা থানাধীন শালকোনা গ্রামের আব্দুল মিয়ার ছেলে মেহেদী(১৯)শফিকুলের ছেলে রিয়াদ(২২)ও আশরাফুলের ছেলে সবুজ(২৮) উভয়ে একই গ্রামের বাসিন্দা। আটক গাজার মূল্য এক লক্ষ টাকা বলে জানা যায়।

৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল সেলিম রেজা জানান,গোপন সংবাদের শালকোনা সীমান্তবর্তী মাঠ দিয়ে বিপুল পরিমান মাদক দ্রব্য পাচার হয়ে যশোরে যাচ্ছে এমন ধরনের গোপন সংবাদ পেয়ে বিজিবির একটি টহল দল সেখানে আভযান চালিয়ে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। আটকৃতদের নামে মাদকসহ মাদকদ্রব্য মামলা দিয়ে পোর্ট থানায় সৌপর্দ করা হবে। বহনকারীরা আটক হলেও প্রকৃত মালিকরা থেকে যাচ্ছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।কিছু অসাধু মাদক ব্যাবসায়ীরা সীমান্তে বিজিবির কঠোর নিরাপত্তা থাকা সত্বেও মাদক ব্যাবসায়ীরা তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে কৌশলে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে বসবে দুই বাংলার ভাষা প্রেমীদের মিলন মেলা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

যশোরের শার্শা সীমান্তে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি

প্রকাশের সময় : ০৯:৫৭:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

মিলন হোসেন #
যশোরের শার্শা উপজেলার শালকোনা সীমান্তে থেকে বুধবার ভোররাতে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা।

আটকৃতরা হলো,শার্শা থানাধীন শালকোনা গ্রামের আব্দুল মিয়ার ছেলে মেহেদী(১৯)শফিকুলের ছেলে রিয়াদ(২২)ও আশরাফুলের ছেলে সবুজ(২৮) উভয়ে একই গ্রামের বাসিন্দা। আটক গাজার মূল্য এক লক্ষ টাকা বলে জানা যায়।

৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল সেলিম রেজা জানান,গোপন সংবাদের শালকোনা সীমান্তবর্তী মাঠ দিয়ে বিপুল পরিমান মাদক দ্রব্য পাচার হয়ে যশোরে যাচ্ছে এমন ধরনের গোপন সংবাদ পেয়ে বিজিবির একটি টহল দল সেখানে আভযান চালিয়ে ২৪ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। আটকৃতদের নামে মাদকসহ মাদকদ্রব্য মামলা দিয়ে পোর্ট থানায় সৌপর্দ করা হবে। বহনকারীরা আটক হলেও প্রকৃত মালিকরা থেকে যাচ্ছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।কিছু অসাধু মাদক ব্যাবসায়ীরা সীমান্তে বিজিবির কঠোর নিরাপত্তা থাকা সত্বেও মাদক ব্যাবসায়ীরা তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে কৌশলে।