শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিলেটের এমসি কলেজে গণধর্ষণের প্রধান আসামি সাইফুর গ্রেফতার

সিলেট ব্যুরো # সিলেটের  এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রোববার  সকালে সুনামগঞ্জের ছাতক থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনার পর থেকেই জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছিল বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল।

গ্রেফতারকৃত সাইফুর রহমানের (২৮) বাড়ি সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার চান্দাইপাড়া গ্রামে। সে এমসি কলেজের ৫ম ব্লক হোস্টেলে থাকতো। এর আগে শনিবার ভোররাতে সাইফুর রহমানের কক্ষ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও রামদা, চাকু ও জিআই পাইপসহ বিভিন্ন দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) জ্যোতির্ময় সরকার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২৫ সেপ্টেম্বর এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে নারীকে ছাত্রলীগের ৬ জন নেতাকর্মী গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই দম্পতিকে ছাত্রাবাস থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরবর্তী সময়ে ধর্ষণের শিকার নারীকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় শনিবার  ভোর রাতে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২/৩ জনকে অভিযুক্ত করে নগরের শাহপরান থানায় মামলা  করেন ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী। আসামিরা হলো, সাইফুর রহমান (২৮), তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮), শাহ  মাহবুবুর রহমান রনি (২৫), অর্জুন লস্কর (২৫), রবিউল ইসলাম (২৫) ও মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫)।

এছাড়া অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করেন শাহপরান থানা পুলিশের এসআই মিল্টন সরকার। সাইফুর রহমানকে আসামি করে এ মামলা করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বাংলাদেশ ও ভারত হচ্ছে অকৃত্রিম বন্ধু: ভারতীয় হাই কমিশনার

সিলেটের এমসি কলেজে গণধর্ষণের প্রধান আসামি সাইফুর গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ০৪:৪০:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

সিলেট ব্যুরো # সিলেটের  এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রোববার  সকালে সুনামগঞ্জের ছাতক থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনার পর থেকেই জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছিল বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল।

গ্রেফতারকৃত সাইফুর রহমানের (২৮) বাড়ি সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার চান্দাইপাড়া গ্রামে। সে এমসি কলেজের ৫ম ব্লক হোস্টেলে থাকতো। এর আগে শনিবার ভোররাতে সাইফুর রহমানের কক্ষ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও রামদা, চাকু ও জিআই পাইপসহ বিভিন্ন দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) জ্যোতির্ময় সরকার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২৫ সেপ্টেম্বর এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে নারীকে ছাত্রলীগের ৬ জন নেতাকর্মী গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই দম্পতিকে ছাত্রাবাস থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরবর্তী সময়ে ধর্ষণের শিকার নারীকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় শনিবার  ভোর রাতে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২/৩ জনকে অভিযুক্ত করে নগরের শাহপরান থানায় মামলা  করেন ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী। আসামিরা হলো, সাইফুর রহমান (২৮), তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮), শাহ  মাহবুবুর রহমান রনি (২৫), অর্জুন লস্কর (২৫), রবিউল ইসলাম (২৫) ও মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫)।

এছাড়া অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করেন শাহপরান থানা পুলিশের এসআই মিল্টন সরকার। সাইফুর রহমানকে আসামি করে এ মামলা করা হয়।