রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনার কত রূপ! নতুন উপসর্গ কাঁচা মাছের গন্ধ

সেলিম হোসেন আশা ## ক্ষণে ক্ষণে রূপ বদলাচ্ছে মহামারি করোনাভাইরাস। ২০২০ সালকে মানুষের জন্য মহা আতঙ্ক হয়ে এসেছে এই অদৃশ্য ভাইরাস।

২১-এ এসেও পিছু ছাড়ছে না করোনা। বরং যোগ হচ্ছে নতুন নতুন উপসর্গ। এমনই এক উপসর্গ কাঁচা মাছের গন্ধ পাওয়া।

 

সাধারণত জ্বর, কাশি, খাবারের স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি হারানো, শরীর ব্যথার মতো উপসর্গগুলো আমাদের জানা। তারপরও চোখ জ্বালা করা, কাঁচা মাছের গন্ধও করোনার উপসর্গ। লং কোভিড রোগী বা দীর্ঘদিন ধরে যারা কোভিডে আক্রান্ত তারা কাঁচা মাছের পাচ্ছেন। এই উপসর্গটি একেবারেই নতুন বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই অসুখের নাম প্যারোস্মিয়া। গবেষণা চালিয়ে দেখা গেছে, আক্রান্ত ব্যক্তির মস্তিষ্ক কোনো নির্দিষ্ট বস্তুর প্রাকৃতিক গন্ধ চিনতে অক্ষম। অল্প বয়সি এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যেই এই উপসর্গ বেশি দেখা যাচ্ছে।
স্বাস্থ্যকর্মীরা এই ভাইরাসের সংস্পর্শে বেশি থাকছে বলেই নাকি তাদের মধ্যে এই প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। মনে করছেন ইংল্যান্ডের ইএনটি(নাক-কান-গলা) বিশেষজ্ঞ। মূলত এই ভাইরাসটি নার্ভাস সিস্টেমকে গিয়ে আঘাত করলেই এই ধরনের উপসর্গ দেখা যাচ্ছে।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ হেলথ অ্যান্ড কেয়ার অ্যাক্সিলেন্স এর মতে লং কোভিড ১২ সপ্তাহের বেশি থাকতে পারে। এই সময়েও শ্বাসকষ্ট, গায় হাত পায় ব্যথা, বুকে ব্যথা, ক্লান্তি ও স্বাদ-গন্ধহীনতার মতো উপসর্গ থাকে। আর এরই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এই প্যারোস্মিয়া অর্থাৎ যখন আক্রান্ত কাঁচা মাছের গন্ধ পাওয়া।

যেকোনো ধরনের উপসর্গ দেখা দিলে প্রথমে নিজেকে আলাদা করে ফেলুন সবার থেকে। অবহেলা না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশকে সোনার বাংলা করা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

করোনার কত রূপ! নতুন উপসর্গ কাঁচা মাছের গন্ধ

প্রকাশের সময় : ০৪:৫৫:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ জানুয়ারী ২০২১
সেলিম হোসেন আশা ## ক্ষণে ক্ষণে রূপ বদলাচ্ছে মহামারি করোনাভাইরাস। ২০২০ সালকে মানুষের জন্য মহা আতঙ্ক হয়ে এসেছে এই অদৃশ্য ভাইরাস।

২১-এ এসেও পিছু ছাড়ছে না করোনা। বরং যোগ হচ্ছে নতুন নতুন উপসর্গ। এমনই এক উপসর্গ কাঁচা মাছের গন্ধ পাওয়া।

 

সাধারণত জ্বর, কাশি, খাবারের স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি হারানো, শরীর ব্যথার মতো উপসর্গগুলো আমাদের জানা। তারপরও চোখ জ্বালা করা, কাঁচা মাছের গন্ধও করোনার উপসর্গ। লং কোভিড রোগী বা দীর্ঘদিন ধরে যারা কোভিডে আক্রান্ত তারা কাঁচা মাছের পাচ্ছেন। এই উপসর্গটি একেবারেই নতুন বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই অসুখের নাম প্যারোস্মিয়া। গবেষণা চালিয়ে দেখা গেছে, আক্রান্ত ব্যক্তির মস্তিষ্ক কোনো নির্দিষ্ট বস্তুর প্রাকৃতিক গন্ধ চিনতে অক্ষম। অল্প বয়সি এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যেই এই উপসর্গ বেশি দেখা যাচ্ছে।
স্বাস্থ্যকর্মীরা এই ভাইরাসের সংস্পর্শে বেশি থাকছে বলেই নাকি তাদের মধ্যে এই প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। মনে করছেন ইংল্যান্ডের ইএনটি(নাক-কান-গলা) বিশেষজ্ঞ। মূলত এই ভাইরাসটি নার্ভাস সিস্টেমকে গিয়ে আঘাত করলেই এই ধরনের উপসর্গ দেখা যাচ্ছে।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ হেলথ অ্যান্ড কেয়ার অ্যাক্সিলেন্স এর মতে লং কোভিড ১২ সপ্তাহের বেশি থাকতে পারে। এই সময়েও শ্বাসকষ্ট, গায় হাত পায় ব্যথা, বুকে ব্যথা, ক্লান্তি ও স্বাদ-গন্ধহীনতার মতো উপসর্গ থাকে। আর এরই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এই প্যারোস্মিয়া অর্থাৎ যখন আক্রান্ত কাঁচা মাছের গন্ধ পাওয়া।

যেকোনো ধরনের উপসর্গ দেখা দিলে প্রথমে নিজেকে আলাদা করে ফেলুন সবার থেকে। অবহেলা না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।