রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঋতুপর্ণা-চন্দনের নোনতা সম্পর্কের গল্প

মামুন বাবু ## গত বছরটা প্রায় সিঙ্গাপুরেই কাটিয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এ বার ফিরেছেন কলকাতায় নতুন ছবি ‘সল্ট’-এর শুটিংয়ে। ছবিতে তাঁর বিপরীতে রয়েছেন চন্দন রায় সান্যাল।

‘সল্ট’ দিয়ে পরিচালনায় ডেবিউ করছেন সানি রায়। পরিচালক এবং অভিনেতারা বাঙালি হলেও ছবিটি হিন্দি, প্রযোজকও বলিউডের।

ঋতুপর্ণার কথায়, ‘‘পরপর কাজ করে যাচ্ছিলাম। ‘মায়াকুমারী’ করার পরে একটু বিরতি নিয়ে সিঙ্গাপুর যাই। তার পর করোনা, লকডাউন… এত কিছু হয়ে গেল। এখন আবার কাজে ফিরেছি। বেশ কয়েকটা ছবি করব এ বার।’’ নতুন পরিচালকের হিন্দি ছবি বাছার নেপথ্য কারণ কী? ‘‘গল্পটা ভাল লাগল। একটি মেয়ের জীবনের নানা পর্ব নিয়ে ছবি। আমার বিপরীতে চন্দন রয়েছে। ওর সঙ্গে এর আগে ‘মহানগর অ্যাট কলকাতা’ করেছিলাম,’’ বললেন অভিনেত্রী।

গল্পের ব্যাখ্যায় সানি বলছিলেন, ‘‘দু’জন সম্পূর্ণ বিপরীতধর্মী মানুষের প্রেমের গল্প ‘সল্ট’। কাহিনিতে ছ’টি পর্যায় আছে। ছবি শুরু হচ্ছে এদের শেষ দেখা হওয়ার জায়গা থেকে, আর শেষ হচ্ছে প্রথম সাক্ষাতের জায়গায়। লিনিয়ার স্টাইলে পিছন দিকে যায় গল্প।’’ ছবির প্রেক্ষাপট, কাহিনি, চরিত্র সবই কলকাতার। তা হলে হিন্দিতে করার কারণ কী? ‘‘আমি তো বাংলাতেই ছবি করতে চাইছিলাম। কিন্তু এখানে কেউ দিল না করতে। নিজেই গল্প লিখি। একটা স্বতন্ত্র চিন্তাভাবনা রয়েছে। প্রযোজকের নির্দেশ মতো সব কিছু করতে পারব না। চার বছর অপেক্ষা করেছি, বাংলায় হল না। হিন্দিতে হয়ে দিকে ভালই হয়েছে। আরও বেশি দর্শকের কাছে পৌঁছতে পারব,’’ বললেন পরিচালক।

বুধবার থেকে শুটিং শুরু। লোকেশন মূলত কলকাতা ও দার্জিলিং। ঋতুপর্ণা-চন্দন ছাড়াও ছবিতে রয়েছেন সুদীপ মুখোপাধ্যায়, ঈশান মজুমদার, শুভম প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বিদ্যুৎ গ্যাস ও তেলের মূল্যবৃদ্ধির ক্ষমতা পেল সরকার, বিল পাস

ঋতুপর্ণা-চন্দনের নোনতা সম্পর্কের গল্প

প্রকাশের সময় : ১২:২৬:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী ২০২১

মামুন বাবু ## গত বছরটা প্রায় সিঙ্গাপুরেই কাটিয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এ বার ফিরেছেন কলকাতায় নতুন ছবি ‘সল্ট’-এর শুটিংয়ে। ছবিতে তাঁর বিপরীতে রয়েছেন চন্দন রায় সান্যাল।

‘সল্ট’ দিয়ে পরিচালনায় ডেবিউ করছেন সানি রায়। পরিচালক এবং অভিনেতারা বাঙালি হলেও ছবিটি হিন্দি, প্রযোজকও বলিউডের।

ঋতুপর্ণার কথায়, ‘‘পরপর কাজ করে যাচ্ছিলাম। ‘মায়াকুমারী’ করার পরে একটু বিরতি নিয়ে সিঙ্গাপুর যাই। তার পর করোনা, লকডাউন… এত কিছু হয়ে গেল। এখন আবার কাজে ফিরেছি। বেশ কয়েকটা ছবি করব এ বার।’’ নতুন পরিচালকের হিন্দি ছবি বাছার নেপথ্য কারণ কী? ‘‘গল্পটা ভাল লাগল। একটি মেয়ের জীবনের নানা পর্ব নিয়ে ছবি। আমার বিপরীতে চন্দন রয়েছে। ওর সঙ্গে এর আগে ‘মহানগর অ্যাট কলকাতা’ করেছিলাম,’’ বললেন অভিনেত্রী।

গল্পের ব্যাখ্যায় সানি বলছিলেন, ‘‘দু’জন সম্পূর্ণ বিপরীতধর্মী মানুষের প্রেমের গল্প ‘সল্ট’। কাহিনিতে ছ’টি পর্যায় আছে। ছবি শুরু হচ্ছে এদের শেষ দেখা হওয়ার জায়গা থেকে, আর শেষ হচ্ছে প্রথম সাক্ষাতের জায়গায়। লিনিয়ার স্টাইলে পিছন দিকে যায় গল্প।’’ ছবির প্রেক্ষাপট, কাহিনি, চরিত্র সবই কলকাতার। তা হলে হিন্দিতে করার কারণ কী? ‘‘আমি তো বাংলাতেই ছবি করতে চাইছিলাম। কিন্তু এখানে কেউ দিল না করতে। নিজেই গল্প লিখি। একটা স্বতন্ত্র চিন্তাভাবনা রয়েছে। প্রযোজকের নির্দেশ মতো সব কিছু করতে পারব না। চার বছর অপেক্ষা করেছি, বাংলায় হল না। হিন্দিতে হয়ে দিকে ভালই হয়েছে। আরও বেশি দর্শকের কাছে পৌঁছতে পারব,’’ বললেন পরিচালক।

বুধবার থেকে শুটিং শুরু। লোকেশন মূলত কলকাতা ও দার্জিলিং। ঋতুপর্ণা-চন্দন ছাড়াও ছবিতে রয়েছেন সুদীপ মুখোপাধ্যায়, ঈশান মজুমদার, শুভম প্রমুখ।