রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অবসাদে ভুগছেন?‌ এগুলো মেনে চলুন

মেহেদী হাসান ## পরিসংখ্যান বলছে, এখন সারা দুনিয়ায় ২৬ কোটি ৪০ লক্ষ মানুষ অবসাদে ভুগছেন। করোনার জেরে অবসাদ আরও বেশি করে গ্রাস করেছে মানুষকে। প্রতিদিন তিলে তিলে ক্ষয়ে যাচ্ছে আট থেকে আশি। হ্যাঁ, আট থেকেই এই রোগের শিকার। বাস্তবে, পাঁচ বছরেরও শিশুরও হতে পারে অবসাদ। চিকিৎসকরা তাই মনে করেন। কী করলে এই অবসাদ দূরে রাখা সম্ভব?‌ জেনে নিন—
•মনোযোগী হতে চেষ্টা করুন:‌ অবসাদে ভুগলে উল্টোপাল্টা চিন্তা মাথায় আসে। এগুলোকে সরিয়ে রাখুন। নিজের কাজে মন দিন। যেটা ভালো লাগে, সেটা মন দিয়ে করুন।
• গান শুনুন:‌ এক মুহূর্তে পরিবেশ বদলে দিতে পারে গান। তাই গান শুনুন। ইতিবাচক, আনন্দের গান। মুড বদলে যেতে বাধ্য।
• নেতিবাচক হবেন না:‌ অবসাদে ভুগলে বারবার নেতিবাচক চিন্তা মাথায় আসে। সব সময় মানুষ নিজেকে দোষী মনে করেন। নিজেকে মূল্যহীন মনে করেন। এসব ভাবনাচিন্তা সরিয়ে ফেলুন।
• ঘুম:‌ অবসাদে ভুগলে ঘুম কমে যায়। অথচ অবসাদের সবথেকে ভালো ওষুধ হল ঘুম। তাই রোজ অন্তত আট ঘণ্টা ঘুমনো জরুরি।
• শরীরচর্চা:‌ প্রতিদিন যোগ, শরীরচর্চা খুব জরুরি। এর ফলে শরীর থেকে এনডোরফিন বেরিয়ে যায়। ফলে আমাদের মন ভালো থাকে। মন ভালো রাখার পাশাপাশি শরীর সুস্থ থাকলে রোগভোগও অনেক কম হয়।
• যোগাযোগ:‌ অবসাদ হলে মানুষ একা থাকতে চান। শুধু সোশ্যাল মিডিয়ায় ডুবে থাকবেন না। একা থাকবেন না। বরং পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করুন। মন ভালো হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বিদ্যুৎ গ্যাস ও তেলের মূল্যবৃদ্ধির ক্ষমতা পেল সরকার, বিল পাস

অবসাদে ভুগছেন?‌ এগুলো মেনে চলুন

প্রকাশের সময় : ০৩:২১:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২১

মেহেদী হাসান ## পরিসংখ্যান বলছে, এখন সারা দুনিয়ায় ২৬ কোটি ৪০ লক্ষ মানুষ অবসাদে ভুগছেন। করোনার জেরে অবসাদ আরও বেশি করে গ্রাস করেছে মানুষকে। প্রতিদিন তিলে তিলে ক্ষয়ে যাচ্ছে আট থেকে আশি। হ্যাঁ, আট থেকেই এই রোগের শিকার। বাস্তবে, পাঁচ বছরেরও শিশুরও হতে পারে অবসাদ। চিকিৎসকরা তাই মনে করেন। কী করলে এই অবসাদ দূরে রাখা সম্ভব?‌ জেনে নিন—
•মনোযোগী হতে চেষ্টা করুন:‌ অবসাদে ভুগলে উল্টোপাল্টা চিন্তা মাথায় আসে। এগুলোকে সরিয়ে রাখুন। নিজের কাজে মন দিন। যেটা ভালো লাগে, সেটা মন দিয়ে করুন।
• গান শুনুন:‌ এক মুহূর্তে পরিবেশ বদলে দিতে পারে গান। তাই গান শুনুন। ইতিবাচক, আনন্দের গান। মুড বদলে যেতে বাধ্য।
• নেতিবাচক হবেন না:‌ অবসাদে ভুগলে বারবার নেতিবাচক চিন্তা মাথায় আসে। সব সময় মানুষ নিজেকে দোষী মনে করেন। নিজেকে মূল্যহীন মনে করেন। এসব ভাবনাচিন্তা সরিয়ে ফেলুন।
• ঘুম:‌ অবসাদে ভুগলে ঘুম কমে যায়। অথচ অবসাদের সবথেকে ভালো ওষুধ হল ঘুম। তাই রোজ অন্তত আট ঘণ্টা ঘুমনো জরুরি।
• শরীরচর্চা:‌ প্রতিদিন যোগ, শরীরচর্চা খুব জরুরি। এর ফলে শরীর থেকে এনডোরফিন বেরিয়ে যায়। ফলে আমাদের মন ভালো থাকে। মন ভালো রাখার পাশাপাশি শরীর সুস্থ থাকলে রোগভোগও অনেক কম হয়।
• যোগাযোগ:‌ অবসাদ হলে মানুষ একা থাকতে চান। শুধু সোশ্যাল মিডিয়ায় ডুবে থাকবেন না। একা থাকবেন না। বরং পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করুন। মন ভালো হবে।