বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

করোনা নিয়ে ভুল পথে যুক্তরাষ্ট্র : ড. ফাউচি

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক।। এখন পর্যন্ত যেসব মানুষ টিকা গ্রহণ করেনি তাদের মধ্যে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করায় যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের মহামারি ভুল পথে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি। যেসব এলাকায় টিকা প্রদানের হার কম সেসব এলাকায় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রভাব বেশি বলেও জানান তিনি। সংক্রমণ কমাতে টিকা গ্রহনকারী আমেরিকানদেরও মাস্ক পরার নির্দেশনা দেওয়ার কথা বিবেচনা করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। এছাড়া দুর্বল মানুষদের করোনার একটি বুস্টার ডোজ দেওয়ার কথাও বিবেচনা করা হচ্ছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান মেডিক্যাল উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফাউচি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি টিকা গ্রহণ করেনি এমন মানুষের মধ্যে মহামারি আকার নিচ্ছে। মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা জানান তিনি।
যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ কোটি ২৭ লাখ মানুষ বা মোট জনগোষ্ঠীর ৪৯ শতাংশ করোনার টিকা গ্রহণ করেছেন। গত এপ্রিল পর্যন্ত টিকা প্রদানে বিশ্বের শীর্ষ স্থানে ছিলো যুক্তরাষ্ট্র। তারপর থেকেই দেশটিতে টিকা গ্রহণে আগ্রহ কমতে থাকে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যগুলোতে টিকা গ্রহণের হার কম। সেখানকার অর্ধেকেরও কম বাসিন্দা এখন পর্যন্ত প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন।
অন্যদিকে, মে এবং জুনে আক্রান্তের সংখ্যা কমে যাওয়ার পর সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ড. ফাউচি বলেন, যেসব এলাকায় টিকা প্রদানের হার কম সেখানকার স্থানীয় নেতাদের উচিত মানুষকে টিকা গ্রহণে উৎসাহিত করে তোলা। তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারগুলো সিডিসির নির্দেশনা অনুসরণ করে নিজস্ব বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে।

করোনা নিয়ে ভুল পথে যুক্তরাষ্ট্র : ড. ফাউচি

প্রকাশের সময় : ০৭:১২:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১
 আন্তর্জাতিক ডেস্ক।। এখন পর্যন্ত যেসব মানুষ টিকা গ্রহণ করেনি তাদের মধ্যে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করায় যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের মহামারি ভুল পথে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি। যেসব এলাকায় টিকা প্রদানের হার কম সেসব এলাকায় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রভাব বেশি বলেও জানান তিনি। সংক্রমণ কমাতে টিকা গ্রহনকারী আমেরিকানদেরও মাস্ক পরার নির্দেশনা দেওয়ার কথা বিবেচনা করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। এছাড়া দুর্বল মানুষদের করোনার একটি বুস্টার ডোজ দেওয়ার কথাও বিবেচনা করা হচ্ছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান মেডিক্যাল উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফাউচি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি টিকা গ্রহণ করেনি এমন মানুষের মধ্যে মহামারি আকার নিচ্ছে। মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা জানান তিনি।
যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ কোটি ২৭ লাখ মানুষ বা মোট জনগোষ্ঠীর ৪৯ শতাংশ করোনার টিকা গ্রহণ করেছেন। গত এপ্রিল পর্যন্ত টিকা প্রদানে বিশ্বের শীর্ষ স্থানে ছিলো যুক্তরাষ্ট্র। তারপর থেকেই দেশটিতে টিকা গ্রহণে আগ্রহ কমতে থাকে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যগুলোতে টিকা গ্রহণের হার কম। সেখানকার অর্ধেকেরও কম বাসিন্দা এখন পর্যন্ত প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন।
অন্যদিকে, মে এবং জুনে আক্রান্তের সংখ্যা কমে যাওয়ার পর সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ড. ফাউচি বলেন, যেসব এলাকায় টিকা প্রদানের হার কম সেখানকার স্থানীয় নেতাদের উচিত মানুষকে টিকা গ্রহণে উৎসাহিত করে তোলা। তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারগুলো সিডিসির নির্দেশনা অনুসরণ করে নিজস্ব বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে।