শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটে বিদ্যুৎস্পৃস্টে দশম শ্রেণির ছাত্রের মৃত্যু

মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট।। লালমনিরহাট সদর উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দশম শ্রেণির ছাত্র আরিফুল ইসলাম (১৫) নামে এক ‘মাদ্রাসা’ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।সোমবার (২৬ জুলাই) রাত ৯টায় আহত অবস্থায় লালমনিরহাট সদর হাসাপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এর আগে, সোমবার বিকেলে লালমনিরহাট সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মিয়া বাজারে মুদির দোকানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত আরিফুল ইসলাম (১৫) খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মিয়া বাজার এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে ও স্থানীয় খুনিয়াগাছ দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্র বলে জানা গেছে।পুলিশ সুত্র ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বাড়ির পাশের স্থানীয় মিয়া বাজারে এক মুদির দোকানে খরচ করতে যান মাদ্রাসা ছাত্র আরিফুল ইসলাম। এ সময় ওই দোকানের ফ্যানের সুইচ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয় সে। এরপর স্থানীয়রা তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসাপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
পরে লালমনিরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  কামরুজ্জামান সুজনের উপস্থিতিতে হাসাপাতাল থেকে তার মৃতদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন সদর থানা পুলিশ।লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহা আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,কোন অভিযোগ না থানায় লাশ পরিবারে কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

লালমনিরহাটে বিদ্যুৎস্পৃস্টে দশম শ্রেণির ছাত্রের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০৭:২৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১
মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট।। লালমনিরহাট সদর উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দশম শ্রেণির ছাত্র আরিফুল ইসলাম (১৫) নামে এক ‘মাদ্রাসা’ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।সোমবার (২৬ জুলাই) রাত ৯টায় আহত অবস্থায় লালমনিরহাট সদর হাসাপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এর আগে, সোমবার বিকেলে লালমনিরহাট সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মিয়া বাজারে মুদির দোকানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত আরিফুল ইসলাম (১৫) খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মিয়া বাজার এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে ও স্থানীয় খুনিয়াগাছ দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্র বলে জানা গেছে।পুলিশ সুত্র ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বাড়ির পাশের স্থানীয় মিয়া বাজারে এক মুদির দোকানে খরচ করতে যান মাদ্রাসা ছাত্র আরিফুল ইসলাম। এ সময় ওই দোকানের ফ্যানের সুইচ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয় সে। এরপর স্থানীয়রা তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসাপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
পরে লালমনিরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  কামরুজ্জামান সুজনের উপস্থিতিতে হাসাপাতাল থেকে তার মৃতদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন সদর থানা পুলিশ।লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহা আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,কোন অভিযোগ না থানায় লাশ পরিবারে কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।