বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাহাড় ধসে টেকনাফে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

কক্সবাজার প্রতিনিধি ।।
কক্সবাজারের টেকনাফে পাহাড় ধসে একই পরিবারের পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত (২৮ জুলাই) দুইটার দিকে টেকনাফ উপজেলারর হ্নীলা ইউনিয়নের ভিলিজারপাড়ায় এ পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা মাটির নিচে চাপা পড়া পাঁচটি মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন।
নিহতরা হলো টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের পাহাড়ি গ্রাম ভিলেজার পাড়া এলাকার সৈয়দ আলমের ছেলে আবদু শুক্কুর (১৬), মোহাম্মদ জুবাইর (১২), আবদুর রহিম (৫), মেয়ে কহিনুর আক্তার (৯) ও জয়নবা আক্তার (৭)।
টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মধ্যরাতে টেকনাফের হ্নীলার ভিলিজারপাড়ায় পাহাড় ধসে নিহত সৈয়দ আলমের তিন ছেলে ও দুই মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। টেকনাফ থানার পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।
এদিকে ভারী বৃষ্টির কারণে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঝুঁকিপূর্ণ বসতিগুলো সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।
এরআগে, মঙ্গলবার ভারী বর্ষণে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসে ও পানিতে ভেসে ছয় জন মারা গেছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুই জন। দুপুরে উখিয়ার বালুখালী ১০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পাহাড় ধসে টেকনাফে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

প্রকাশের সময় : ০২:১১:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১
কক্সবাজার প্রতিনিধি ।।
কক্সবাজারের টেকনাফে পাহাড় ধসে একই পরিবারের পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত (২৮ জুলাই) দুইটার দিকে টেকনাফ উপজেলারর হ্নীলা ইউনিয়নের ভিলিজারপাড়ায় এ পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা মাটির নিচে চাপা পড়া পাঁচটি মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন।
নিহতরা হলো টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের পাহাড়ি গ্রাম ভিলেজার পাড়া এলাকার সৈয়দ আলমের ছেলে আবদু শুক্কুর (১৬), মোহাম্মদ জুবাইর (১২), আবদুর রহিম (৫), মেয়ে কহিনুর আক্তার (৯) ও জয়নবা আক্তার (৭)।
টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মধ্যরাতে টেকনাফের হ্নীলার ভিলিজারপাড়ায় পাহাড় ধসে নিহত সৈয়দ আলমের তিন ছেলে ও দুই মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। টেকনাফ থানার পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।
এদিকে ভারী বৃষ্টির কারণে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঝুঁকিপূর্ণ বসতিগুলো সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।
এরআগে, মঙ্গলবার ভারী বর্ষণে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসে ও পানিতে ভেসে ছয় জন মারা গেছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুই জন। দুপুরে উখিয়ার বালুখালী ১০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ দুর্ঘটনা ঘটে।