মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার কর্মসূচি নিয়ে মতবিনিময়

আল মোজাহিদ বাবু,বকশীগঞ্জ (জামালপুর)।। সারা দেশের ন্যায় জামালপুর বকশীগঞ্জেও প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে কোভিট- ১৯ করোনা প্রতিরোধ টিকা কার্যক্রম ও টিকা দান বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মমতবিনিময় সভা অনুষ্ঠত হয়।
বুধবার (৪ আগষ্ট) দুপুরে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে স্থানীয় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন  করেন। মতবিনিময়কালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী করোনার সংক্রমণ রোধে সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে সাংবাদিকদের বিস্তারিত কথা বলেন।
ডা. প্রতাপ নন্দী বলেন, আগামী ৭ আগষ্ট থেকে ১২ আগষ্ট পর্যন্ত উপজেলার পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়নের ৮টি কেন্দ্রে প্রতিদিন ৬ শত জনকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ৩টি বুথ স্থাপন করে প্রশিক্ষণ প্রাপ্তরা টিকা প্রদান করবেন। সমগ্র কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করার জন্য সুপারভাইজার হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শকবৃন্দ। এ ছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসারবৃন্দ মনিটরিং করবেন। প্রত্যহ সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত কার্যক্রম চলবে। কোভিড-১৯ টিকা প্রদান কার্যক্রম সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে পরিচালনার জন্য উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন,পৌর মেয়র,সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ সদস্যরা সহায়তায় থাকবেন। কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কার্যক্রম সফল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।
ইউনিয়ন পর্যায়ে প্রতিটি মানুষকে টিকাদান নিশ্চিত করতে একযোগে কাজ শুরু করা হবে। স্থানীয় মানুষদের টিকা নিশ্চিত করতে ও ভোগান্তি কমাতে জাতীয় পরিচয়পত্র দেখালেই টিকা দেওয়া হবে।
অসুস্থ্য ব্যক্তি যেমন ডায়াবেটিস রোগী, অ্যাজমা সমস্যা সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের টিকা দেওয়া হবে না। যারা এ পর্যায়ে টিকা পাবেন না তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই , পর্যায়ক্রমে টিকা পাওয়ার উপযোগী সকল মানুষকে টিকা প্রদান করা হবে।

বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার কর্মসূচি নিয়ে মতবিনিময়

প্রকাশের সময় : ০৯:০৮:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ অগাস্ট ২০২১
আল মোজাহিদ বাবু,বকশীগঞ্জ (জামালপুর)।। সারা দেশের ন্যায় জামালপুর বকশীগঞ্জেও প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে কোভিট- ১৯ করোনা প্রতিরোধ টিকা কার্যক্রম ও টিকা দান বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মমতবিনিময় সভা অনুষ্ঠত হয়।
বুধবার (৪ আগষ্ট) দুপুরে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে স্থানীয় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন  করেন। মতবিনিময়কালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী করোনার সংক্রমণ রোধে সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে সাংবাদিকদের বিস্তারিত কথা বলেন।
ডা. প্রতাপ নন্দী বলেন, আগামী ৭ আগষ্ট থেকে ১২ আগষ্ট পর্যন্ত উপজেলার পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়নের ৮টি কেন্দ্রে প্রতিদিন ৬ শত জনকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ৩টি বুথ স্থাপন করে প্রশিক্ষণ প্রাপ্তরা টিকা প্রদান করবেন। সমগ্র কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করার জন্য সুপারভাইজার হিসাবে দায়িত্ব পালন করবেন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শকবৃন্দ। এ ছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসারবৃন্দ মনিটরিং করবেন। প্রত্যহ সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত কার্যক্রম চলবে। কোভিড-১৯ টিকা প্রদান কার্যক্রম সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে পরিচালনার জন্য উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন,পৌর মেয়র,সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ সদস্যরা সহায়তায় থাকবেন। কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কার্যক্রম সফল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।
ইউনিয়ন পর্যায়ে প্রতিটি মানুষকে টিকাদান নিশ্চিত করতে একযোগে কাজ শুরু করা হবে। স্থানীয় মানুষদের টিকা নিশ্চিত করতে ও ভোগান্তি কমাতে জাতীয় পরিচয়পত্র দেখালেই টিকা দেওয়া হবে।
অসুস্থ্য ব্যক্তি যেমন ডায়াবেটিস রোগী, অ্যাজমা সমস্যা সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের টিকা দেওয়া হবে না। যারা এ পর্যায়ে টিকা পাবেন না তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই , পর্যায়ক্রমে টিকা পাওয়ার উপযোগী সকল মানুষকে টিকা প্রদান করা হবে।