বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হবে পরীমনিকে আজ

বিনোদন ডেস্ক ।।

রাজধানীর বনানী থানায় দায়ের করা মাদক মামলায় চার দিনের রিমান্ড শেষে ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুকে ফের আদালতে হাজির করা হবে। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) আদালতে তাদের হাজির করবে মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) রাজধানীর সিএমএম আদালতের বিচারক হাকিম মামুনুর রশীদ শুনানি শেষে তাদের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আব্দুল্লাহ আবু সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, বনানী থানার মাদক মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে আসামির সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। এ সময় আসামিপক্ষের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চাওয়ার পাশাপাশি জামিন চেয়ে আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে পরীমনিকে আদালতে হাজির করার পর তার পক্ষে আদালতে লড়তে ওকালতনামায় স্বাক্ষর করা নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন আইনজীবীরা। আইনজীবীদের মধ্যে কয়েকটি গ্রুপ সৃষ্টি হলে একপর্যায়ে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ এজলাস ত্যাগ করেন।

এ সময় আইনজীবীদের উদ্দেশে বিচারক বলেন, ‘আগে আপনারা ঠিক করেন, কে আসামি পরীমনির আইনজীবী হবেন। তারপর শুনানি হবে।‘
বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ ওয়াইন, ভয়ংকর মাদক আইস, এলএসডি ও মাদক সেবনের সরঞ্জামাদি উদ্ধার করে র‌্যাব।
পরদিন সন্ধ্যার দিকে শামসুন্নাহার স্মৃতি ওরফে পরীমনি ও আশরাফুল ইসলাম ওরফে দীপুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮- এর ৩৬ (১) এর সারণি ২৪(খ)/৩৬ (১) এর সারণি ১০ (ক)/৪২(১)/৪১ ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।  

এদিকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীর ও আলোচিত নায়িকা পরীমনিসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা ১২টি মামলা তদন্ত করতে চায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।
সোমবার (৯ আগস্ট) এলিট ফোর্সের পক্ষ থেকে পুলিশ সদর দপ্তরে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বাকি ৬ জন হলেন- পরীমনির ম্যানেজার সবুজ, প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ, মডেল মরিয়ম আক্তার মৌ, ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা, শরফুল হাসান ওরফে মিশু হাসান ও মাসুদুল ইসলাম ওরফে জিসান।
এর আগে মামলা ডিবিতে থাকলেও সেই মামলা ও আসামিদের পুলিশ সদর দপ্তরের চিঠির প্রেক্ষিতে সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়। বর্তমানে সিআইডির হেফাজতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হবে পরীমনিকে আজ

প্রকাশের সময় : ১০:৪৪:০০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১

বিনোদন ডেস্ক ।।

রাজধানীর বনানী থানায় দায়ের করা মাদক মামলায় চার দিনের রিমান্ড শেষে ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুকে ফের আদালতে হাজির করা হবে। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) আদালতে তাদের হাজির করবে মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) রাজধানীর সিএমএম আদালতের বিচারক হাকিম মামুনুর রশীদ শুনানি শেষে তাদের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আব্দুল্লাহ আবু সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, বনানী থানার মাদক মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে আসামির সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। এ সময় আসামিপক্ষের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চাওয়ার পাশাপাশি জামিন চেয়ে আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে পরীমনিকে আদালতে হাজির করার পর তার পক্ষে আদালতে লড়তে ওকালতনামায় স্বাক্ষর করা নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন আইনজীবীরা। আইনজীবীদের মধ্যে কয়েকটি গ্রুপ সৃষ্টি হলে একপর্যায়ে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ এজলাস ত্যাগ করেন।

এ সময় আইনজীবীদের উদ্দেশে বিচারক বলেন, ‘আগে আপনারা ঠিক করেন, কে আসামি পরীমনির আইনজীবী হবেন। তারপর শুনানি হবে।‘
বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ ওয়াইন, ভয়ংকর মাদক আইস, এলএসডি ও মাদক সেবনের সরঞ্জামাদি উদ্ধার করে র‌্যাব।
পরদিন সন্ধ্যার দিকে শামসুন্নাহার স্মৃতি ওরফে পরীমনি ও আশরাফুল ইসলাম ওরফে দীপুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮- এর ৩৬ (১) এর সারণি ২৪(খ)/৩৬ (১) এর সারণি ১০ (ক)/৪২(১)/৪১ ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।  

এদিকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীর ও আলোচিত নায়িকা পরীমনিসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা ১২টি মামলা তদন্ত করতে চায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।
সোমবার (৯ আগস্ট) এলিট ফোর্সের পক্ষ থেকে পুলিশ সদর দপ্তরে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বাকি ৬ জন হলেন- পরীমনির ম্যানেজার সবুজ, প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ, মডেল মরিয়ম আক্তার মৌ, ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা, শরফুল হাসান ওরফে মিশু হাসান ও মাসুদুল ইসলাম ওরফে জিসান।
এর আগে মামলা ডিবিতে থাকলেও সেই মামলা ও আসামিদের পুলিশ সদর দপ্তরের চিঠির প্রেক্ষিতে সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়। বর্তমানে সিআইডির হেফাজতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।