শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পরী-রাজের রাজযোটক কীভাবে হলো

ছবি: সংগৃহীত

বিনোদন ডেস্ক ।।

গত ৪ আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান শেষে তাকে আটক করে র‌্যাব। এরপর নাট্যপ্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের অফিসে অভিযান চালিয়ে তাকেও আটক করা হয়। এরপরই মূলত পরীমনির সঙ্গে রাজের নাম আলোচনায় উঠে আসে। প্রশ্ন ওঠে কে এই রাজ?

বিভিন্ন গণমাধ্যম রাজকে পরীমনি অভিনীত ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ সিনেমার প্রযোজক হিসেবে উল্লেখ করলে তৈরি হয় ধোঁয়াশা। চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতিসূত্রে জানা যায় রাজ সমিতির সদস্য নন। প্রযোজক সমিতির সদস্য না হলে কেউ চলচ্চিত্র প্রযোজনা করতে পারেন না। তাছাড়া উল্লেখিত সিনেমার প্রযোজক রাজ নন, আতিকুল ইসলাম। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন হলো- রাজের সঙ্গে পরীমনির রাজযোটক তৈরি হলো কীভাবে?

পরীমনির প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ হলেও ‘রানা প্লাজা’ তার আলোচিত সিনেমা। এই সিনেমায় রেশমা চরিত্রে অভিনয় করেই আলোচনায় আসেন পরীমনি। যদিও সিনেমাটি গত ৭ বছরেও মুক্তি পায়নি। সিনেমাটি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে রয়েছে সরকারি নিষেধাজ্ঞা। সাভারের রানা প্লাজা ভবন ধ্বসের ঘটনা উপজীব্য করে সিনেমাটি নির্মাণ করেন পরিচালক নজরুল ইসলাম খান। গণমাধ্যমে তিনি বলেছেন এই সিনেমায় অভিনয়ের ব্যাপারে নজরুল ইসলাম রাজ পরীমনির নাম প্রস্তাব করেছিলেন।

সে হিসেবে ২০১৪ সালের আগে থেকেই পরীমনির সঙ্গে রাজের যোগাযোগ ছিল। গত কয়েক বছরে রাজ কয়েকটি টেলিভিশন নাটক প্রযোজনা করেছেন। টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইরেশ যাকের নিশ্চিত করেছেন রাজ এই সংগঠনের সদস্য। যদিও রাজ প্রযোজিত কোনো নাটকে পরীমনি অভিনয় করেননি। অর্থাৎ দুজনের পরিচয় অভিনয়ের সূত্রে নয়।

পরী-রাজের রাজযোটক কীভাবে হলো

প্রকাশের সময় : ০১:৩৬:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১

বিনোদন ডেস্ক ।।

গত ৪ আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান শেষে তাকে আটক করে র‌্যাব। এরপর নাট্যপ্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের অফিসে অভিযান চালিয়ে তাকেও আটক করা হয়। এরপরই মূলত পরীমনির সঙ্গে রাজের নাম আলোচনায় উঠে আসে। প্রশ্ন ওঠে কে এই রাজ?

বিভিন্ন গণমাধ্যম রাজকে পরীমনি অভিনীত ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ সিনেমার প্রযোজক হিসেবে উল্লেখ করলে তৈরি হয় ধোঁয়াশা। চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতিসূত্রে জানা যায় রাজ সমিতির সদস্য নন। প্রযোজক সমিতির সদস্য না হলে কেউ চলচ্চিত্র প্রযোজনা করতে পারেন না। তাছাড়া উল্লেখিত সিনেমার প্রযোজক রাজ নন, আতিকুল ইসলাম। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন হলো- রাজের সঙ্গে পরীমনির রাজযোটক তৈরি হলো কীভাবে?

পরীমনির প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ হলেও ‘রানা প্লাজা’ তার আলোচিত সিনেমা। এই সিনেমায় রেশমা চরিত্রে অভিনয় করেই আলোচনায় আসেন পরীমনি। যদিও সিনেমাটি গত ৭ বছরেও মুক্তি পায়নি। সিনেমাটি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে রয়েছে সরকারি নিষেধাজ্ঞা। সাভারের রানা প্লাজা ভবন ধ্বসের ঘটনা উপজীব্য করে সিনেমাটি নির্মাণ করেন পরিচালক নজরুল ইসলাম খান। গণমাধ্যমে তিনি বলেছেন এই সিনেমায় অভিনয়ের ব্যাপারে নজরুল ইসলাম রাজ পরীমনির নাম প্রস্তাব করেছিলেন।

সে হিসেবে ২০১৪ সালের আগে থেকেই পরীমনির সঙ্গে রাজের যোগাযোগ ছিল। গত কয়েক বছরে রাজ কয়েকটি টেলিভিশন নাটক প্রযোজনা করেছেন। টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইরেশ যাকের নিশ্চিত করেছেন রাজ এই সংগঠনের সদস্য। যদিও রাজ প্রযোজিত কোনো নাটকে পরীমনি অভিনয় করেননি। অর্থাৎ দুজনের পরিচয় অভিনয়ের সূত্রে নয়।