রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভবদহে জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

যশোর ব্যুরো।। যশোরের ভবদহ অঞ্চলের জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানের জন্য অবিলম্বে পরিকল্পিত জোয়ারাধার (টিআরএম) প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবিতে এলাকাবাসির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। ভবদহ জলাবদ্ধতা নিস্কাশন আন্দোলন কমিটি গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর এ স্বারকলিপি দেন। স্বারকলিপিতে এলাকার কয়েক হাজার মানুষ গণস্বাক্ষর দেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, ভবদহ এলাকার পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় রয়েছে। বছরের পর বছর ধরে পানিবন্দী হয়ে মানুষ মূল ¯্রােত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। নিস্ব হয়ে পড়েছে প্রান্তিক চাষিরা। বিস্তীর্ণ গ্রাম, বাজারঘাট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং ফসল ও মাছের ঘের পানিতে তলিয়ে গেছে। এলাকার লাখো মানুষ এখন পানিবন্দী। সরকার যদি দ্রুত পদক্ষেপ না নেয়, মহা বিপর্যয় দেখা দেবে।
মানবিক বিপর্যয় রোধে স্মারকলিপিতে পাঁচ দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে জরুরি ভিত্তিতে পরিকল্পিত জোয়ারাধার (টিআরএম) প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে নদী রক্ষা ও উজানের নদী সংযোগ করতে হবে। আমডাঙ্গা খাল প্রশ্বস্ত করে সংস্কার করতে হবে। পোল্ডারের অভ্যন্তরে আবদ্ধ নদীগুলো উন্মুক্ত করে ভৈরব কপোতাক্ষ এবং বিল ডাকাতিয়ার সাথে সংযোগ করতে হবে। বেঁচে থাকার জন্য ওই অ লের মানুষের খাদ্যনিরাপত্তা, চিকিৎসাসহ পুনর্বাসন করতে হবে। এ পর্যন্ত প্রকল্প বাস্তবায়ণে যারা দূর্ণীতি ও লুঠপাট করেছে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনতে হবে। স্মারকলিপিটি জেলা প্রশাসকের হাতে তুলে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
স্মারকলিপি শেষে নেতৃবৃন্দ প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে একই দাবি করেন। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন, ভবদহ জলাবদ্ধতা নিস্কাশন আন্দোলন কমিটির আহবায়ক এনামুল হক বাবুল, সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুপদ দত্ত, ভবদহ মহাবিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আব্দুল মতলেবসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।#

ভবদহে জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

প্রকাশের সময় : ০৮:০৭:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ অগাস্ট ২০২১
যশোর ব্যুরো।। যশোরের ভবদহ অঞ্চলের জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানের জন্য অবিলম্বে পরিকল্পিত জোয়ারাধার (টিআরএম) প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবিতে এলাকাবাসির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। ভবদহ জলাবদ্ধতা নিস্কাশন আন্দোলন কমিটি গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর এ স্বারকলিপি দেন। স্বারকলিপিতে এলাকার কয়েক হাজার মানুষ গণস্বাক্ষর দেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, ভবদহ এলাকার পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় রয়েছে। বছরের পর বছর ধরে পানিবন্দী হয়ে মানুষ মূল ¯্রােত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। নিস্ব হয়ে পড়েছে প্রান্তিক চাষিরা। বিস্তীর্ণ গ্রাম, বাজারঘাট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং ফসল ও মাছের ঘের পানিতে তলিয়ে গেছে। এলাকার লাখো মানুষ এখন পানিবন্দী। সরকার যদি দ্রুত পদক্ষেপ না নেয়, মহা বিপর্যয় দেখা দেবে।
মানবিক বিপর্যয় রোধে স্মারকলিপিতে পাঁচ দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে জরুরি ভিত্তিতে পরিকল্পিত জোয়ারাধার (টিআরএম) প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে নদী রক্ষা ও উজানের নদী সংযোগ করতে হবে। আমডাঙ্গা খাল প্রশ্বস্ত করে সংস্কার করতে হবে। পোল্ডারের অভ্যন্তরে আবদ্ধ নদীগুলো উন্মুক্ত করে ভৈরব কপোতাক্ষ এবং বিল ডাকাতিয়ার সাথে সংযোগ করতে হবে। বেঁচে থাকার জন্য ওই অ লের মানুষের খাদ্যনিরাপত্তা, চিকিৎসাসহ পুনর্বাসন করতে হবে। এ পর্যন্ত প্রকল্প বাস্তবায়ণে যারা দূর্ণীতি ও লুঠপাট করেছে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনতে হবে। স্মারকলিপিটি জেলা প্রশাসকের হাতে তুলে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
স্মারকলিপি শেষে নেতৃবৃন্দ প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে একই দাবি করেন। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন, ভবদহ জলাবদ্ধতা নিস্কাশন আন্দোলন কমিটির আহবায়ক এনামুল হক বাবুল, সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুপদ দত্ত, ভবদহ মহাবিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আব্দুল মতলেবসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।#