সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পানিতে তলিয়ে চলে যেতে পারে ভারতের যে ১২ শহর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

জয়বায়ু পরিবর্তনের ফলে বাড়ছে বিশ্বের তাপমাত্রা। ইন্টারগভর্নমেন্টাল প্যানেল আইপিসিসি’র সম্প্রতি রিপোর্ট চিন্তা বাড়াচ্ছে বিভিন্ন দেশের অনেক অংশ তলিয়ে যাওয়ার খরবে।

যে হারে সমুদ্রের পানির স্তর বাড়ছে তাতে কয়েক বছরের মধ্যেই পানিতে তলিয়ে যেতে পারে ভারতের ১২টি উপকূলবর্তী শহর। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মুম্বাই, চেন্নাই, কোচি, বিশাখাপত্তনম। প্রায় তিন ফুট পানির নিচে চলে যেতে পারে এই শহরগুলো।  খবর জি নিউজের।

আইপিসিসি’র রিপোর্ট বলছে, গোটা বিশ্বের তুলনায় এশিয়ার পানির স্তর বৃদ্ধির হার অনেক বেশি। আগে যেখানে ১০০ বছরে একবার সমুদ্রের জলস্তর পরিবর্তিত হতো, কয়েক বছরে মাঝে মধ্যেই সেই পরিবর্তন হবে। সেজন্যই বাড়বে সমুদ্রের পানির স্তর। যদি এই হারেই জলস্তর বৃদ্ধি পেতে থাকে তবে, শতাব্দীর শেষে ভারতের ১২টি উপকূলবর্তী শহর তলিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

সেই শহরগুলো হলো- কান্দলা ১.৮৭ ফুট, ওখা ১.৯৬ ফুট, ভৌনগর ২.৭০ ফুট, মুম্বাই ১.৯০ ফুট, মরমুগাও ২.০৬ ফুট, ম্যাঙ্গালোর ১.৮৭ ফুট, কোচিন ২.৩২ ফুট, পরাদ্বীপ ১.৯৩ ফুট, খিদিরপুর ০.৪৯ ফুট, বিশাখাপত্তনম ১.৭৭ ফুট, চেন্নাই ১.৮৭ ফুট ও তুতিকোরিন ১.৯ ফুট।

পানিতে তলিয়ে চলে যেতে পারে ভারতের যে ১২ শহর

প্রকাশের সময় : ১২:৫৬:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অগাস্ট ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

জয়বায়ু পরিবর্তনের ফলে বাড়ছে বিশ্বের তাপমাত্রা। ইন্টারগভর্নমেন্টাল প্যানেল আইপিসিসি’র সম্প্রতি রিপোর্ট চিন্তা বাড়াচ্ছে বিভিন্ন দেশের অনেক অংশ তলিয়ে যাওয়ার খরবে।

যে হারে সমুদ্রের পানির স্তর বাড়ছে তাতে কয়েক বছরের মধ্যেই পানিতে তলিয়ে যেতে পারে ভারতের ১২টি উপকূলবর্তী শহর। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মুম্বাই, চেন্নাই, কোচি, বিশাখাপত্তনম। প্রায় তিন ফুট পানির নিচে চলে যেতে পারে এই শহরগুলো।  খবর জি নিউজের।

আইপিসিসি’র রিপোর্ট বলছে, গোটা বিশ্বের তুলনায় এশিয়ার পানির স্তর বৃদ্ধির হার অনেক বেশি। আগে যেখানে ১০০ বছরে একবার সমুদ্রের জলস্তর পরিবর্তিত হতো, কয়েক বছরে মাঝে মধ্যেই সেই পরিবর্তন হবে। সেজন্যই বাড়বে সমুদ্রের পানির স্তর। যদি এই হারেই জলস্তর বৃদ্ধি পেতে থাকে তবে, শতাব্দীর শেষে ভারতের ১২টি উপকূলবর্তী শহর তলিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

সেই শহরগুলো হলো- কান্দলা ১.৮৭ ফুট, ওখা ১.৯৬ ফুট, ভৌনগর ২.৭০ ফুট, মুম্বাই ১.৯০ ফুট, মরমুগাও ২.০৬ ফুট, ম্যাঙ্গালোর ১.৮৭ ফুট, কোচিন ২.৩২ ফুট, পরাদ্বীপ ১.৯৩ ফুট, খিদিরপুর ০.৪৯ ফুট, বিশাখাপত্তনম ১.৭৭ ফুট, চেন্নাই ১.৮৭ ফুট ও তুতিকোরিন ১.৯ ফুট।