বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে ভূমিধসে ১৩ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হিমাচল প্রদেশে ভূমিধসে কমপক্ষে ১৩ জন প্রাণ হারিয়েছে। এ ঘটনায় ৬০ জনেরও বেশি মানুষ মাটির নিচে চাপা পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

ভূমিধসে একটি বাসসহ কয়েকটি যানবাহন ধ্বংসাবশেষের নিচে চাপা পড়ায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

হিমাচল প্রদেশের সিমলা থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে রাজ্যের কিন্নর জেলার রেকং পিও-সিমলা মহাসড়কে গতকাল বুধবার (১১ আগস্ট) এই ঘটনা ঘটে।

এখন পর্যন্ত ১৩ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। স্থানীয় পুলিশ ছাড়াও প্যারা মিলিটারি ইন্দো-তিব্বতীয় বর্ডার ফোর্স (আইটিবিপি) উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

আইটিবিপি টুইট করেছে, হিমাচল প্রদেশের কিন্নর জেলার রেকং পিও-শিমলা হাইওয়েতে আজ একটি ভূমিধসের খবর পাওয়া গেছে। এতে একটি ট্রাক, একটি বাস ও কয়েকটি যানবাহন ধ্বংসাবশেষের নিচে চাপা পড়ে অনেকেই আটকা পড়ে আছে।

এক পুলিশ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, নিহতদের নিকটবর্তী একটি হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে তাদেরও একই হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এক টুইট বার্তায় বলেছে, নরেন্দ্র মোদি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন। -ইউএনবি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

ভারতে ভূমিধসে ১৩ জনের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০১:৩৯:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অগাস্ট ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হিমাচল প্রদেশে ভূমিধসে কমপক্ষে ১৩ জন প্রাণ হারিয়েছে। এ ঘটনায় ৬০ জনেরও বেশি মানুষ মাটির নিচে চাপা পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

ভূমিধসে একটি বাসসহ কয়েকটি যানবাহন ধ্বংসাবশেষের নিচে চাপা পড়ায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

হিমাচল প্রদেশের সিমলা থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে রাজ্যের কিন্নর জেলার রেকং পিও-সিমলা মহাসড়কে গতকাল বুধবার (১১ আগস্ট) এই ঘটনা ঘটে।

এখন পর্যন্ত ১৩ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। স্থানীয় পুলিশ ছাড়াও প্যারা মিলিটারি ইন্দো-তিব্বতীয় বর্ডার ফোর্স (আইটিবিপি) উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

আইটিবিপি টুইট করেছে, হিমাচল প্রদেশের কিন্নর জেলার রেকং পিও-শিমলা হাইওয়েতে আজ একটি ভূমিধসের খবর পাওয়া গেছে। এতে একটি ট্রাক, একটি বাস ও কয়েকটি যানবাহন ধ্বংসাবশেষের নিচে চাপা পড়ে অনেকেই আটকা পড়ে আছে।

এক পুলিশ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, নিহতদের নিকটবর্তী একটি হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে তাদেরও একই হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এক টুইট বার্তায় বলেছে, নরেন্দ্র মোদি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন। -ইউএনবি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস