সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বি‌য়ের প্র‌লোভ‌ন: প্রে‌মিকা‌কে ভার‌তে পাচারের সময় উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

আতাউর রহমান,সাতক্ষীরা ব্যুরো ।।
বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে  যৌন নিপীড়ন শেষে ভারতে পাচারের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে বন্ধুর সাবেক স্ত্রী এক গৃহবধূ।বিজিবি ও  ইউপি সদস্য তাকে একটি তালাবদ্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করেছেন। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের তলুইগাছা গ্রামে।
বাঁশদহা ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ  জানান, হাওয়ালখালি গ্রামের স্বামী পরিত্যক্ত গৃহবধুর সাথে ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে তার বন্ধু একই গ্রামের বাবু। সম্প্রতি বাবু তলুইগাছা গ্রামে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘর পেয়েছেন। ওই ঘরে বাবু তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েকে নিয়ে বসবাস করেন।
আবদুস সামাদ আরও জানান বাবু তার সন্তান সম্ভবা স্ত্রীকে বাবার বাড়ি রেখে আসেন। এই সুযোগে বন্ধুর স্ত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার নতুন ঘরে নিয়ে আসেন। তিনি জানান কয়েকদিন যাবত তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে তাকে কৌশলে ভারতে পাচারের উদ্যোগ নেয় বাবু।
বুধবার রাতে তাকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে নির্যাতন করে বাবু। বৃহস্পতিবার সকালে বাবু ভালো খাবার আনবার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এ সময় বাবু তার ঘরে বাইরে থেকে তালা ঝুলিয়ে রেখে যায়।
গৃহবধু বাবুর গতিবিধি  বুঝতে পেরে ঘরের জানালা খুলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। পরে বিজিবির তলুইগাছা ক্যাম্পের নায়েক আহসান হাবিব ও ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ সবার সহযোগিতা নিয়ে তালা ভেঙ্গে ঘর থেকে সুমাইয়া খাতুনকে বিধ্বস্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। এরই মধ্যে বাবু পালিয়ে যায়।
বিজিবির নায়েক আহসান হাবিব জানান গৃহবধুকে পুলিশের মাধ্যমে তার বাবা মার কাছে দেওয়া হবে। তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হতে পারে। এ ব্যাপারে মামলাও হবে বলেও জানান তিনি।

বি‌য়ের প্র‌লোভ‌ন: প্রে‌মিকা‌কে ভার‌তে পাচারের সময় উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ০৬:০১:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অগাস্ট ২০২১
আতাউর রহমান,সাতক্ষীরা ব্যুরো ।।
বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে  যৌন নিপীড়ন শেষে ভারতে পাচারের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে বন্ধুর সাবেক স্ত্রী এক গৃহবধূ।বিজিবি ও  ইউপি সদস্য তাকে একটি তালাবদ্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করেছেন। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের তলুইগাছা গ্রামে।
বাঁশদহা ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ  জানান, হাওয়ালখালি গ্রামের স্বামী পরিত্যক্ত গৃহবধুর সাথে ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে তার বন্ধু একই গ্রামের বাবু। সম্প্রতি বাবু তলুইগাছা গ্রামে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘর পেয়েছেন। ওই ঘরে বাবু তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েকে নিয়ে বসবাস করেন।
আবদুস সামাদ আরও জানান বাবু তার সন্তান সম্ভবা স্ত্রীকে বাবার বাড়ি রেখে আসেন। এই সুযোগে বন্ধুর স্ত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার নতুন ঘরে নিয়ে আসেন। তিনি জানান কয়েকদিন যাবত তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে তাকে কৌশলে ভারতে পাচারের উদ্যোগ নেয় বাবু।
বুধবার রাতে তাকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে নির্যাতন করে বাবু। বৃহস্পতিবার সকালে বাবু ভালো খাবার আনবার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এ সময় বাবু তার ঘরে বাইরে থেকে তালা ঝুলিয়ে রেখে যায়।
গৃহবধু বাবুর গতিবিধি  বুঝতে পেরে ঘরের জানালা খুলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। পরে বিজিবির তলুইগাছা ক্যাম্পের নায়েক আহসান হাবিব ও ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ সবার সহযোগিতা নিয়ে তালা ভেঙ্গে ঘর থেকে সুমাইয়া খাতুনকে বিধ্বস্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। এরই মধ্যে বাবু পালিয়ে যায়।
বিজিবির নায়েক আহসান হাবিব জানান গৃহবধুকে পুলিশের মাধ্যমে তার বাবা মার কাছে দেওয়া হবে। তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হতে পারে। এ ব্যাপারে মামলাও হবে বলেও জানান তিনি।