রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আফগান সামরিক বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করলো উজবেকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।উজবেকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আফগানিস্তানের একটি সামরিক জেট বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলছেন বিমানটি উজবেকিস্তানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছিল। তবে বিধ্বস্ত বিমানটিতে কতজন ছিল বা তাদের কেউ বেঁচে আছেন কীনা তা ওই মুখপাত্র নিশ্চিত করেননি। খবর বিবিসির।

তবে আফগান সীমান্তবর্তী উজবেকিস্তানের সুরকোনদারিও প্রদেশের চিকিৎসক বেপুলাত ওকবোয়েভ বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, আফগান সেনাবাহিনীর পোশাক পরিহিত দু’জনকে রোববার সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের একজনের শরীরের সাথে প্যারাসুট ছিল।

ৎরোববার উজবেক সরকার জানায় সীমান্ত অতিক্রম করার দায়ে ৮৪ জন আফগান সৈন্যকে আটক করা হয়েছে। তালেবান আফগানিস্তান দখল করার পর থেকেই সেখান থেকে আফগান সেনাদের পালিয়ে যাওয়ার হিড়িক শুরু হয়। এমনকি বহু বেসামরিক নাগরিকও উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় দেশ ছাড়তে শুরু করেছেন।

১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তান তালেবানের শাসনে ছিল। এর মধ্যে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল-কায়েদার নেতাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়ার অভিযোগে ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা জোট সেখানে যৌথ অভিযান চালায়, যার মাধ্যমে তালেবান শাসনের অবসান ঘটে।

অভিযানে আল-কায়েদার শীর্ষ নেতাদের দমন করা হলেও ‘শান্তিরক্ষার স্বার্থে’ সেখানে ঘাঁটি গেড়ে অবস্থান করছিল পশ্চিমা সেনারা। কিছু বছর পার হওয়ার পর সেখান থেকে ধাপে ধাপে যুক্তরাষ্ট্র বাদে অন্য দেশের সেনাদের ফিরিয়ে নেয়া হয়। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রও তাদের সেনাদের ফিরিয়ে নিতে শুরু করলে প্রত্যন্ত এলাকা দখল করে থাকা তালেবান কাবুলের ক্ষমতার মসনদে উঠতে জোর লড়াইয়ে নামে। যদিও এর মধ্যে তালেবানের সঙ্গে কাবুলের শাসকগোষ্ঠীর সংঘাতের অবসানে কাতারসহ বিভিন্ন পক্ষের মধ্যস্থতায় নানা সময়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু সব আলোচনাই ভেস্তে গেছে।

আফগান সামরিক বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করলো উজবেকিস্তান

প্রকাশের সময় : ১০:১৩:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ অগাস্ট ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।উজবেকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আফগানিস্তানের একটি সামরিক জেট বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলছেন বিমানটি উজবেকিস্তানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছিল। তবে বিধ্বস্ত বিমানটিতে কতজন ছিল বা তাদের কেউ বেঁচে আছেন কীনা তা ওই মুখপাত্র নিশ্চিত করেননি। খবর বিবিসির।

তবে আফগান সীমান্তবর্তী উজবেকিস্তানের সুরকোনদারিও প্রদেশের চিকিৎসক বেপুলাত ওকবোয়েভ বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, আফগান সেনাবাহিনীর পোশাক পরিহিত দু’জনকে রোববার সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের একজনের শরীরের সাথে প্যারাসুট ছিল।

ৎরোববার উজবেক সরকার জানায় সীমান্ত অতিক্রম করার দায়ে ৮৪ জন আফগান সৈন্যকে আটক করা হয়েছে। তালেবান আফগানিস্তান দখল করার পর থেকেই সেখান থেকে আফগান সেনাদের পালিয়ে যাওয়ার হিড়িক শুরু হয়। এমনকি বহু বেসামরিক নাগরিকও উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় দেশ ছাড়তে শুরু করেছেন।

১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তান তালেবানের শাসনে ছিল। এর মধ্যে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল-কায়েদার নেতাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়ার অভিযোগে ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা জোট সেখানে যৌথ অভিযান চালায়, যার মাধ্যমে তালেবান শাসনের অবসান ঘটে।

অভিযানে আল-কায়েদার শীর্ষ নেতাদের দমন করা হলেও ‘শান্তিরক্ষার স্বার্থে’ সেখানে ঘাঁটি গেড়ে অবস্থান করছিল পশ্চিমা সেনারা। কিছু বছর পার হওয়ার পর সেখান থেকে ধাপে ধাপে যুক্তরাষ্ট্র বাদে অন্য দেশের সেনাদের ফিরিয়ে নেয়া হয়। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রও তাদের সেনাদের ফিরিয়ে নিতে শুরু করলে প্রত্যন্ত এলাকা দখল করে থাকা তালেবান কাবুলের ক্ষমতার মসনদে উঠতে জোর লড়াইয়ে নামে। যদিও এর মধ্যে তালেবানের সঙ্গে কাবুলের শাসকগোষ্ঠীর সংঘাতের অবসানে কাতারসহ বিভিন্ন পক্ষের মধ্যস্থতায় নানা সময়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু সব আলোচনাই ভেস্তে গেছে।