সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তালেবানের শাসনে ১০০ বছর পিছিয়ে যাবে আফগানিস্তান: সাংসদ আনারকলি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

আনারকলি কৌর হোনিয়ার। আফগানিস্তান পার্লামেন্টের সদস্য ছিলেন। কিন্তু তালেবানেরা আফগানিস্তান দখলের পর  ভারতে চলে এসেছেন তিনি। ভারতের এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে, আফগান শিখ এবং হিন্দুদের আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারের জন্য ভারত সরকারের কাছে আবেদন করেছেন তিনি।

এক জনপ্রতিনিধি হয়েও কেন আফগানিস্তান ছাড়লেন? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, সারা বিশ্ব জানে কী ঘটনা ঘটেছে আফগানিস্তানে। সেখানকার পরিস্থিতি খুব দ্রুত বদলে গিয়েছে। যা আশা করা যায়নি। সকলে অসহায়, ভয়ে আছে। দেশ আমাদের মা। তাকে ছেড়েই আসতে হয়েছে। অন্য কোনও উপায় ছিল না।

সাংসদ আনারকলি ভারতে এলেও প্রচুর শিখ পরিবার গুরদ্বারে আশ্রয় নিয়েছেন। তাঁদের জন্য কিছু করতে না পারলেও চিন্তিত তিনি। তাই ভারত সরকারের কাছে তিনি অনুরোধ করেছেন আফগানিস্তানে আটকে পড়া হিন্দু এবং শিখ ধর্মাবলম্বীদের উদ্ধার করে ভারতে ফিরিয়ে আনার জন্য। কারণ তালেবানকে বিশ্বাস করা যায় না বলেই মত তাঁর। এ ব্যাপারে আনারকলি বলেছেন, তালেবান যা বলে আর যা করে, তার মধ্য অনেক ফারাক রয়েছে। মানবাধিকার এবং মহিলাদের অধিকার সেখানে লঙ্ঘিত হচ্ছে।

গত ২০ বছরে আফগানিস্তানের যতটা উন্নতি হয়েছিল তা ব্যাহত হবে বলে মনে করেন তিনি। তাঁর মতে, তালেবানি শাসনের জেরে ১০০ বছর পিছিয়ে যাবে আফগানিস্তান। তবে পরিস্থিতি বদলানোর আশা রাখছেন তিনি। পরিস্থিতি বদলালে দেশে ফিরতে পারবেন বলে আশা করছেন আনারকলি।

সূত্র: আনন্দবাজার

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা,চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দোয়া মাহফিল

তালেবানের শাসনে ১০০ বছর পিছিয়ে যাবে আফগানিস্তান: সাংসদ আনারকলি

প্রকাশের সময় : ১২:৫৩:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ অগাস্ট ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

আনারকলি কৌর হোনিয়ার। আফগানিস্তান পার্লামেন্টের সদস্য ছিলেন। কিন্তু তালেবানেরা আফগানিস্তান দখলের পর  ভারতে চলে এসেছেন তিনি। ভারতের এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে, আফগান শিখ এবং হিন্দুদের আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারের জন্য ভারত সরকারের কাছে আবেদন করেছেন তিনি।

এক জনপ্রতিনিধি হয়েও কেন আফগানিস্তান ছাড়লেন? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, সারা বিশ্ব জানে কী ঘটনা ঘটেছে আফগানিস্তানে। সেখানকার পরিস্থিতি খুব দ্রুত বদলে গিয়েছে। যা আশা করা যায়নি। সকলে অসহায়, ভয়ে আছে। দেশ আমাদের মা। তাকে ছেড়েই আসতে হয়েছে। অন্য কোনও উপায় ছিল না।

সাংসদ আনারকলি ভারতে এলেও প্রচুর শিখ পরিবার গুরদ্বারে আশ্রয় নিয়েছেন। তাঁদের জন্য কিছু করতে না পারলেও চিন্তিত তিনি। তাই ভারত সরকারের কাছে তিনি অনুরোধ করেছেন আফগানিস্তানে আটকে পড়া হিন্দু এবং শিখ ধর্মাবলম্বীদের উদ্ধার করে ভারতে ফিরিয়ে আনার জন্য। কারণ তালেবানকে বিশ্বাস করা যায় না বলেই মত তাঁর। এ ব্যাপারে আনারকলি বলেছেন, তালেবান যা বলে আর যা করে, তার মধ্য অনেক ফারাক রয়েছে। মানবাধিকার এবং মহিলাদের অধিকার সেখানে লঙ্ঘিত হচ্ছে।

গত ২০ বছরে আফগানিস্তানের যতটা উন্নতি হয়েছিল তা ব্যাহত হবে বলে মনে করেন তিনি। তাঁর মতে, তালেবানি শাসনের জেরে ১০০ বছর পিছিয়ে যাবে আফগানিস্তান। তবে পরিস্থিতি বদলানোর আশা রাখছেন তিনি। পরিস্থিতি বদলালে দেশে ফিরতে পারবেন বলে আশা করছেন আনারকলি।

সূত্র: আনন্দবাজার