সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণ, কিশোরের বিরুদ্ধে মামলা

যশোর ব্যুরো।। যশোরে মাদ্রাসা ছাত্রী (১৬) কে অপহরণের অভিযোগে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। ওই ছাত্রীর মা মামলায় শিশু রিফাত হোসেন ১৬ নামে এক কিশোরকে আসামি করেছেন। রিফাত যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের করিচিয়া গ্রামের সাদেক হোসেনের ছেলে।
ওই ছাত্রীর মা মামলায় উল্লেখ করেন, তার মেয়ে ১৬ একটি মাদ্রাসার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মাদ্রাসায় যাতায়াতের পথে প্রায় সময় রিফাত তার মেয়েকে উত্যক্ত ও কু-প্রস্তাব দিতো। পরে বিয়ের জন্য ফুসলাইতো। মেয়ে রিফাতের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে অপহরণের হুমকি দেয়। এরই এক পর্যায় ২৪ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তার মেয়ে পাশের চাচার বাড়িতে যাচ্ছিল । পথে রিফাত হোসেনের দেখা হলে আসামিরা দুই মোটরসাইকেলে করে এসে তাকে ফুসলিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায়। মোটরসাইকেলের শব্দ শুনে স্কুল পড়–য়া শিক্ষাথীর মাতা ও পিতা এগিয়ে এসে দেখে তার মেয়েকে মোটর সাইকেলে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরে খোঁজ নিয়ে রিফাত তার মেয়েকে অপহরণ করেছে বলে জানতে পারে। মেয়ের কোন খোঁজ জানতে না পেয়ে তিনি থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি থানার এসআই সাইদুর রহমান জানিয়েছেন, বিষয়টি প্রেম ঘটিত। মামলার আসামিকে আটক করা যায়নি। তবে অচিরেই ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করা হবে। #

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা,চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দোয়া মাহফিল

যশোরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণ, কিশোরের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশের সময় : ০৯:৪০:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ অগাস্ট ২০২১
যশোর ব্যুরো।। যশোরে মাদ্রাসা ছাত্রী (১৬) কে অপহরণের অভিযোগে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। ওই ছাত্রীর মা মামলায় শিশু রিফাত হোসেন ১৬ নামে এক কিশোরকে আসামি করেছেন। রিফাত যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের করিচিয়া গ্রামের সাদেক হোসেনের ছেলে।
ওই ছাত্রীর মা মামলায় উল্লেখ করেন, তার মেয়ে ১৬ একটি মাদ্রাসার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মাদ্রাসায় যাতায়াতের পথে প্রায় সময় রিফাত তার মেয়েকে উত্যক্ত ও কু-প্রস্তাব দিতো। পরে বিয়ের জন্য ফুসলাইতো। মেয়ে রিফাতের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে অপহরণের হুমকি দেয়। এরই এক পর্যায় ২৪ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তার মেয়ে পাশের চাচার বাড়িতে যাচ্ছিল । পথে রিফাত হোসেনের দেখা হলে আসামিরা দুই মোটরসাইকেলে করে এসে তাকে ফুসলিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায়। মোটরসাইকেলের শব্দ শুনে স্কুল পড়–য়া শিক্ষাথীর মাতা ও পিতা এগিয়ে এসে দেখে তার মেয়েকে মোটর সাইকেলে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরে খোঁজ নিয়ে রিফাত তার মেয়েকে অপহরণ করেছে বলে জানতে পারে। মেয়ের কোন খোঁজ জানতে না পেয়ে তিনি থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি থানার এসআই সাইদুর রহমান জানিয়েছেন, বিষয়টি প্রেম ঘটিত। মামলার আসামিকে আটক করা যায়নি। তবে অচিরেই ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করা হবে। #